আজ: বুধবার, ১৭ অগাস্ট ২০২২ইং, ২রা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৭ই মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০১ জানুয়ারী ২০১৭, রবিবার |



kidarkar

নতুন বছর যে ৫টি খাবার চলবে বেশি!

ad13a70db01652f4135c50e9a6288b99-1শেয়ারবাজার ডেস্ক: কত রকম খাবার যে ফেসবুক-টুইটারে দেখা যায়! যাঁরা ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম, টুইটারে বেশি সময় কাটান, তাঁরা এমন মজার মজার আকর্ষণীয় খাবার দেখতে অভ্যস্ত। শুধু কি দেখেই ক্ষান্ত? অনেকেই আছেন এ রকম খাবার তাঁদের চেখে দেখা চাই-ই চাই! সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে যেসব খাবারের ছবি বেশি ছড়ায় বা ট্রেন্ডে পরিণত হয়, সেগুলোর প্রতি তাঁদের চরম আকর্ষণ। এ বছরেও সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে খাবারের এ রকম কিছু ট্রেন্ড দেখা যাবে। এসব খাবারের মধ্যে কিছু খাবার আনকোরা নতুন আবার কিছু পুরোনো খাবারের নতুন-পুরোনো মিশেল বা টুইস্ট। চলতি বছরে যেসব খাবার বেশি চলবে, তার তালিকা দেখে নিতে পারেন।

সবজি-দই (ভেজিটেবল ইয়োগার্ট): ফলযুক্ত ইয়োগার্ট মোটামুটি সবারই পছন্দ। কিন্তু এ বছরের শুরু থেকে বাড়তি ফ্লেভারযুক্ত ইয়োগার্টের খোঁজ করবে মানুষ। বিট, টমেটো কিংবা শসার ফ্লেভার দেওয়া ইয়োগার্ট চলবে বেশি। যুক্তরাষ্ট্রে ইতিমধ্যে ফল ও সবজি ফ্লেভারের ইয়োগার্টের চল শুরু হয়েছে। এ বছর সবজি ফ্লেভার সবখানে চলবে।

ক্যালরিযুক্ত খাবার: গত কয়েক বছর মানুষ খাবারদাবার যথেষ্ট বিবেচনায় নিয়ে খেয়েছে। কিন্তু সব সময় নির্দিষ্ট নিয়মকানুন মানা কঠিন। এ বছর অনেকেই ক্যালরিসমৃদ্ধ খাবার বেশি খাবেন। গত বছর যেমন বিশাল আকৃতির মিল্কশেক ‘ফ্রিকশেকস’ সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে জনপ্রিয় হয়েছিল, এ বছরেও বাড়তি ক্যালরিযুক্ত খাবার বেশি চলবে।

পলিনেশিয়ান খাবার: একসময় কোরিয়ান খাবার চলেছে প্রচুর। এ বছর মানুষ পলিনেশিয়ান বা খাবারের দিকে ঝুঁকবে। (পলিনেশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরের একাধিক দ্বীপের সমন্বয়ে গঠিত একটি দ্বীপরাষ্ট্র।) ভাতের সঙ্গে কাঁচা মাছ, লেবু, সয়া ও তিল দিয়ে মেরিনেট করা বিশেষ সালাদ ‘পোক’ এ বছর রেস্তোরাঁগুলোর প্রিয় খাবারের তালিকায় থাকবে। টুনা ও স্যামনের সঙ্গে শসা, অ্যাভোকাডো, গাজর সব মিলিয়ে জিবে জল আনা এ খাবার খুব চলবে। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোতে নিশ্চয়ই বেশি বেশি চোখে পড়বে এই খাবার।

সুগন্ধি ককটেল: গত বছরের শুরুর দিকে লন্ডনের একটি বিলাসবহুল হোটেল কর্তৃপক্ষ আরেকটি সুগন্ধি নির্মাতার সঙ্গে যুক্ত হয়ে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিল। সেখানকার অতিথিদের প্রিয় সুগন্ধি বেছে নিতে বলা হয়। পরে ওই সুগন্ধিযুক্ত পানীয় তাঁদের সরবরাহ করা হয়। যুক্তরাজ্যের অনেক বারে এই ট্রেন্ড এখন শুরু হয়েছে। নতুন বছর অনেক দেশের বড় বড় হোটেল ও বারে এ ট্রেন্ড দেখা যাবে।

তরমুজ জুস: গত বছর বিভিন্ন সময় সামাজিক যোগাযোগের ওয়েবসাইটগুলোয় তরমুজের জুসের ছবি হয়তো দেখেছেন। যাঁরা জুসে চিনি কম দিয়ে তৃষ্ণা মেটাতে চান, তাঁদের পছন্দের তালিকায় শীর্ষেই থাকে তরমুজ জুস। অতি সাদাসিধে এই জুস এখন হাই-প্রোফাইল। কারণ, সংগীতশিল্পী বিয়ন্সি তরমুজ-পানির একটি ব্র্যান্ডে বিনিয়োগ করেছেন। নতুন বছর তাই তরমুজ-পানি বা তরমুজ জুস পানের হার বেড়ে যাবে।

তথ্যসূত্র: টিএনএন।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.