আজ: সোমবার, ০৮ অগাস্ট ২০২২ইং, ২৪শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৮ই মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০১ জানুয়ারী ২০১৭, রবিবার |



kidarkar

এটা হরর ফিল্মের কল্পকাহিনী নয়, প্রকৃতির সবচেয়ে নির্মম সত্য ঘটনা….

volcano-lavaশেয়ারবাজার ডেস্ক: বিশাল আকৃতির এক গ্রহাণুর আঘাতে পৃথিবীতে শুরু হলো প্রবল ভূমিকম্প। নানা প্রান্তের আগ্নেয়গিরিগুলো থেকে অনর্গল লাভা নিঃস্বরণের ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হলো পৃথিবীর অধিকাংশ এলাকা। সমস্তস্থানে ছড়িয়ে পড়ল জ্বলন্ত লাভা। কোন কোন স্থানে এর গভীরতা হলো প্রায় ১ মাইল! গ্রহানুর আঘাত এবং লাভা নিঃস্বরণের ঘটনা দুটো মিলেই পৃথিবীর আকাশ ঢেকে গেল বিষাক্ত টক্সিস গ্যাসের কালো ধোঁয়ায়। বসবাসের অযোগ্য হয়ে উঠল আমাদের এই প্রানপ্রিয় পৃথিবী…….।

এটা কোন হরর ফিল্মের কল্পকাহিনী নয়। আমাদের এই সুন্দর পৃথিবীতেই এক সময় ঘটেছিল এই নির্মম ঘটনা। তবে সেটা আজ থেকে প্রায় সাড়ে ৬ কোটি বছর আগে।

ডাইনোসরেরা কিভাবে পৃথিবী থেকে বিলুপ্ত হলো তা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই নানা কথাবার্তা চলছে বৈজ্ঞানিক মহলে। কোনো মহল বলেছেন, পৃথিবীতে গ্রহাণু এসে পড়ায় বিস্ফোরণে ডাইনোসরেরা বিলুপ্ত হয়েছে। আবার কেউ কেউ বলেন, প্রকৃতির ক্রম বিবর্তনের ফলেই স্বাভাবিক নিয়মে এই বিশালদেহী প্রাণীরা অবলুপ্ত হয়েছে।

সম্প্রতি মার্ক রিচার্ডসের নেতৃত্বে ইউসি বার্কলের ভূবিজ্ঞানীদের একটি দল পৃথিবী থেকে ডাইনোসরদের অবলুপ্তি নিয়ে চাঞ্চল্যকর এই নতুন তথ্য সামনে নিয়ে এসেছে। শুক্রবার রিচার্ড ও তার সহকর্মীদের করা গবেষণাটি প্রকাশিত হয় ‘জিওলজিক্যাল স্যোসাইটি অব আমেরিকান বুলেটিন’-এ।

সেখানে ভূবিজ্ঞানী রিচার্ড জানিয়েছেন, প্রবল কম্পনের ফলে সৃষ্ট ওই লাভা নিঃসরণ ছিল পৃথিবীর ইতিহাসে অন্যতম বড় লাভা নিঃসরণের ঘটনা। আর এই ঘটনাই সবচেয়ে বেশি প্রভাব ফেলেছিল বিশালদেহী ডাইনোসরদের উপরে। ফলে পৃথিবী থেকে বিদায় নিতে হয়েছিল তাদের।

শেয়ারবাজারনিউজ/মা

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.