আজ: রবিবার, ১৪ অগাস্ট ২০২২ইং, ৩০শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৪ই মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০২ জানুয়ারী ২০১৭, সোমবার |



kidarkar

ধেয়ে আসছে টাকার মিছিল

bazarশেয়ারবাজার রিপোর্ট: পুঁজিবাজারে গত কয়েক বছরে যে সংস্কার করা হয়েছে এর মাধ্যমে বাজারের ভিত্তি তৈরি হয়েছে। সেটাকে কেন্দ্র করে আগামি দিনগুলোতে বাজারের উন্নয়ন ঘটবে বলে আশাবাদ প্রকাশ করেছেন বিশ্লেষকরা। পাশাপাশি নানামুখী ইতিবাচক পদক্ষেপের কারণে দেশি-বিদেশী বিনিয়োগকারীদের মধ্যে শেয়ার ক্রয়ের ঝোঁক বাড়ছে। যার কারণে প্রতিনিয়ত বাড়ছে লেনদেন। আর এভাবে চলতে থাকলে খুব শিগগিরই এই মার্কেটে ১৫‘শো কোটি টাকার বেশি লেনদেন হবে। পাশাপাশি আসবে নতুন নতুন বিনিয়োগ।

বাজার নিয়ে বিদেশী ইনভেস্টরদের কনফিডেন্স উচ্চ পর্যায়ে চলে গেছে। তারা প্রতিদিনই নতুন নতুন বিনিয়োগ নিয়ে বাজারে অবস্থান নিচ্ছেন। এর ধারাবাহিকতায় বিদেশি বিনিয়োগকারীদের লেনদেনর পরিমাণ বেড়েছে প্রায় সাতগুণ যা ৬ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ। তাই আগামী দিনগুলোতেও লেনদেন বৃদ্ধির এ ধারাবাহিকতা বিদ্যমান থাকবে বলেও মনে করছেন তারা।

পুঁজিবাজারে বিদেশি বিনিয়োগ বাড়াকে ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন বাজার সংশ্লিষ্টরা। তারা বলছেন, এটি আমাদের বাজারের জন্য একটি শুভ লক্ষন। তাদের মতে, বর্তমানে দেশের সামষ্টিক অর্থনীতিতে সব ধরণের সূচক এখন ইতিবাচক। একইসঙ্গে পুঁজিবাজারের সব সূচকও ইতিবাচক অবস্থানে। দেশের প্রবৃদ্ধি, মুদ্রাস্ফীতি ও সুদের হারসহ সার্বিক পরিস্থিতি দেখে বিদেশিরা মার্কেটে এগিয়ে আসছে। তাতে বিনিয়োগ বাড়ছে। পাশাপাশি বিদেশীরা অন্যান্য দেশের চেয়ে বাংলাদেশকে এখন বেশি লাভজনক মনে করে। তাই তাদের বিনিয়োগ বাড়াচ্ছে বলেও মনে করছেন তারা।

বাজার বিশ্লেষণঃ চলতি বছরের দ্বিতীয়  কার্যদিবসে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচকের উর্ধ্বমুখী প্রবণতায় লেনদেন শেষ হয়েছে। এদিন লেনদেনের শুরুতে ক্রয় চাপে টানা বাড়তে থাকে সূচক। সোমবার সূচকের পাশাপাশি বেড়েছে বেশির ভাগ কোম্পানির শেয়ার দর। আর টাকার অংকে লেনদেন আগের দিনের তুলনায় কিছুটা বেড়েছে। আজ দিনশেষে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ৪৪৮ কোটি টাকা।

সোমবার ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ৩৫ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ৫১১৯ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৯ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১২০৯ পয়েন্টে এবং ডিএসই ৩০ সূচক ১৯ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১৮৪১ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩২৬টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১৯০টির, কমেছে ১১৪টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২২টির। আর দিনশেষে লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ৪৪৮ কোটি ১৫ লাখ ৩৪ হাজার টাকা।

এর আগের কার্যদিবস অর্থাৎ রোববার ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ৪৭ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করে ৫০৮৩ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৮ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করে ১২০০ পয়েন্টে এবং ডিএসই ৩০ সূচক ১০ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করে ১৮১১ পয়েন্টে। আর ওইদিন লেনদেন হয়েছিল ৯৯৩ কোটি ৬৯ লাখ ৮৮ হাজার টাকা। সে হিসেবে আজ ডিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ৪৫৪ কোটি ৪৫ লাখ ৪৬ হাজার টাকা বা ৪৫.৭৩ শতাংশ।

এদিকে, দিনশেষে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সাধারণ মূল্য সূচক ৭৯ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ৯৫৩৭ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ২৬৫টি কোম্পানির ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১৪৭টির, কমেছে ৯০টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৮টির। আর দিনশেষে লেনদেন হয়েছে ৭৮ কোটি ৪৫ লাখ ৫৮ হাজার টাকা।

শেয়ারবাজারনিউজ/মু

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.