আজ: শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২ইং, ২৮শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১২ই মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০৮ জানুয়ারী ২০১৭, রবিবার |



kidarkar

খাদিজা অসুস্থ থাকায় সাক্ষ্যগ্রহণের দিন পিছিয়েছে

khadiza-seekশেয়ারবাজার ডেস্ক: চাঞ্চল্যকর কলেজছাত্রী খাদিজা বেগম হত্যাচেষ্টা মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণের দিন পিছিয়েছে। অসুস্থ থাকায় সিলেটের মুখ্য মহানগর বিচারিক হাকিম আদালতে খাদিজা আক্তার আসতে পারেননি।

আজ রোববার সিলেটের মুখ্য মহানগর বিচারিক হাকিম মো. সাইফুজ্জামান হিরো আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারি মামলার পরবর্তী তারিখ ধার্য করেছেন।

আদালতের অতিরিক্ত সরকারি কৌঁসুলি মাহফুজুর রহমান বলেন, আসামি বদরুল আলমের উপস্থিতিতে আজ খাদিজার সাক্ষ্য দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু খাদিজা আদালতে উপস্থিত হওয়ার মতো সুস্থ নন।

আদালত-সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, খাদিজা সাভারের পক্ষাঘাতগ্রস্তদের পুনর্বাসন কেন্দ্রে (সিআরপি) চিকিৎসাধীন। সেখানকার চিকিৎসকের বরাত দিয়ে খাদিজার শারীরিক ও মানসিক অবস্থার দিক চিন্তা করে আদালতে আরও এক মাস সময় বাড়ানোর জন্য আবেদন জানানো হয়। আদালতের অতিরিক্ত সরকারি কৌঁসুলির সঙ্গে কথা বলে খাদিজার চাচা ও মামলার বাদী আবদুল কুদ্দুসের মাধ্যমে এই আবেদন জানানো হয়।

খাদিজা হত্যাচেষ্টা মামলায় ৩৭ জন সাক্ষীর মধ্যে ৩৩ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ হয়েছে। খাদিজা ছাড়া আরও দুজনের সাক্ষ্য দেওয়া বাকি। তবে এর মধ্যে খাদিজাই গুরুত্বপূর্ণ সাক্ষী। বাকি দুজনের সাক্ষ্য না দিলেও চলবে বলে জানিয়েছেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীরা।

গত ৩ অক্টোবর বিকেলে সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের ছাত্রী খাদিজাকে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করা হয়। এরপর জনতা শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সহসম্পাদক বদরুল আলমকে পুলিশে দেন। পরদিন ৪ অক্টোবর এ ঘটনায় খাদিজার চাচা আবদুল কুদ্দুস মামলা করেন।

বদরুলের বাড়ি সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলার মনিজ্ঞাতি গ্রামে। শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি শেষ বর্ষের শিক্ষার্থী (অনিয়মিত) বদরুলকে ঘটনার পরপর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে।

শেয়ারবাজারনিউজ/এম.আর

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.