আজ: শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২ইং, ১৫ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৩রা রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০২ ফেব্রুয়ারী ২০১৭, বৃহস্পতিবার |



kidarkar

আদালতের প্রতি অনাস্থা জানালেন খালেদা জিয়া

khaladaশেয়ারবাজার ডেস্ক: জিয়া চ্যারিটেবল ও জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় আদালতের প্রতি অনাস্থা জানালেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। আজ বৃহস্পতিবার ঢাকা ৩ নম্বর বিশেষ জজ আদালতের বিচারক আবু আহমেদ জমাদারের আদালতে দুটি মামলায় আত্মপক্ষ সমর্থনের শুনানিতে হাজির হয়ে খালেদা জিয়া এ অনাস্থা জানান।

দুই পক্ষের আইনজীবীদের তুমুল হট্টগোলের মধ্য দিয়ে আজ বিকেলে শুনানি শেষ হয়েছে। জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার শুনানি শেষে আদালত খালেদা জিয়ার কাছে জানতে চান ‘তিনি (খালেদা জিয়া) দোষী না নির্দোষ ?’ সে সময় খালেদা জিয়া আদালতের প্রশ্নের জবাব না দিয়ে বলেন, তাঁর আইনজীবীরা আদালতের প্রতি অনাস্থা প্রকাশ করেছেন। তিনিও আদালতের প্রতি অনাস্থা প্রকাশ করছেন।

এদিকে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় আদালত আসামিপক্ষের সাফাই সাক্ষ্যের জন্য আগামী ৯ ফেব্রুয়ারি শুনানির দিন ধার্য করেছেন। এ মামলার পুনঃ তদন্ত চেয়ে খালেদা জিয়ার আইনজীবীদের করা আবেদনের ওপর শুনানি শেষে তা খারিজ করে দেন আদালত। এ ছাড়া আদালতের প্রতি অনাস্থা জানিয়ে খালেদা জিয়ার আইনজীবীদের আবেদনও নাকচ করে দিয়েছেন আদালত। আজ দুপুরের বিরতির আগে জিয়া চ্যারিটেবল ও জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় আদালতের প্রতি অনাস্থা জানিয়ে আবেদন করেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা। তবে চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা সময় চেয়ে আবেদন করলে ওই মামলার শুনানির দিনও আগামী ৯ ফেব্রুয়ারি ধার্য করেন আদালত।

দুটি মামলায় আত্মপক্ষ সমর্থনে আজ বেলা ১১টা ২৫ মিনিটে আদালতে হাজির হন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। এ ছাড়া জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়ার আত্মপক্ষ সমর্থনে অসমাপ্ত বক্তব্য দেওয়ার দিনও আজ ধার্য ছিল।

এর আগে গত সোমবার জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার পুনঃ তদন্ত চেয়ে আবেদন করেছিলেন খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা। এই আবেদন নিষ্পত্তির আবেদনও করেছিলেন তাঁরা। ওই দিন আদালত ওই আবেদনের ওপর আজ বিস্তারিত শুনানির দিন ধার্য করেন। আজ আদালতে খালেদা জিয়া হাজির হওয়ার পর শুরুতে ওই আবেদন নিষ্পত্তির ওপর শুনানি চান তাঁর আইনজীবীরা। তবে আদালত আগে আত্মপক্ষ সমর্থনের শুনানি শেষে আবেদন নিষ্পত্তির শুনানি হবে বলে জানান। ওই সময় খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা আদালতের প্রতি অনাস্থা জানিয়ে আবেদন করেন।

বিরতির পর আদালত আইনজীবীদের অনাস্থা জানিয়ে করা আবেদন নাকচ করে দেন। আদালত জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ৩২ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য পড়ে শোনান। ওই সময় খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা এর বিরোধিতা করে হইচই শুরু করেন। সাক্ষীদের সাক্ষ্য পড়ে শোনানোর পর আদালত খালেদা জিয়ার কাছে জানতে চান তিনি দোষী না নির্দোষ।

শেয়ারবাজারনিউজ/মু

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.