আজ: শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২ইং, ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৬ই জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০৮ মার্চ ২০১৭, বুধবার |


kidarkar

মার্চেন্ট ব্যাংকগুলোর করহার কমানো ও তালিকাভুক্তির ক্ষেত্রে কর ব্যবধান বাড়ানোর প্রস্তাব


samakal-online_46772শেয়ারবাজার ডেস্ক: মার্চেন্ট ব্যাংকগুলোর করহার কমানোর প্রস্তাব দিয়েছে বাংলাদেশ চেম্বার অব ইন্ডাস্ট্রিজ (বিসিআই)। পাশাপাশি ভালো ভালো কোম্পানি পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্তির ক্ষেত্রে কর ব্যবধান বাড়ানোর প্রস্তাব দিয়েছে সংগঠনটি। আজ বুধবার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় জাতীয় রাজস্ব বোর্ড সম্মেলন কক্ষে ২০১৭-১৮ অর্থবছরের প্রাক-বাজেট আলোচনায় এ প্রস্তাব দেওয়া হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান মো. নজিবুর রহমান।

বিসিআই সভাপতি মোস্তফা আজাদ চৌধুরী বাবু করপোরেট করহার কমানোর প্রস্তাব করে বলেন, একটি গতিশীল পুঁজিবাজারের জন্য ভালো ভালো কোম্পানি তালিকাভুক্তির প্রয়োজন। এজন্য প্রয়োজন কিছু প্রণোদনা। করহার কমানো হলে কোম্পানিগুলো পুঁজিবাজারের প্রতি আগ্রহী হবে। তালিকাভুক্ত কোম্পানি করহার ২৫ শতাংশ থেকে কমিয়ে ২০ করার প্রস্তাব রাখেন তিনি।

অন্যদিকে পাবলিক লিস্টেড কোম্পানির ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ ২০ কোটি টাকার উর্ধ্বে ৩০ শতাংশ কর; মার্চেন্ট ব্যাংকের ক্ষেত্রে করহার ৩৭ দশমিক ৫ শতাংশ থেকে কমিয়ে ৩৫ শতাংশ করার প্রস্তাব করেন তিনি। একই সঙ্গে নন অধ্যাদেশ ১৬বি(এ) ধারা বাতিল করার প্রস্তাব রাখেন তিনি।

বর্তমানে ব্যাংক, বিমা, নন-ব্যাংকিং আর্থিক প্রতিষ্ঠান, সিগারেট প্রস্তুতকারী কোম্পানি ও মোবাইল ফোন অপারেটর ছাড়া বাকি সব তালিকাভুক্ত কোম্পানিকে ২৫ শতাংশ হারে আয়কর দিতে হয়। তালিকাভুক্ত মোবাইল ফোন অপারেটরকে দিতে হয় ৪০ শতাংশ কর। ব্যাংক, বিমা, নন-ব্যাংকিং আর্থিক প্রতিষ্ঠান তালিকাভুক্ত হলে ৪০ শতাংশ এবং পুঁজিবাজারের বাইরে থাকলে ৪২ দশমিক ৫০ শতাংশ হারে কর দিতে হয়।পুঁজিবাজারের বাইরে থাকা অন্যান্য কোম্পানিকে কর দিতে হয় ৩৫ শতাংশ হারে।

প্রাক-বাজেট আলোচনায় বিসিআই ও এমসিসিআই এর সদস্য, এনবিআর সদস্য ও কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ারবাজারনিউজ/এম.আর


আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.