আজ: বুধবার, ১০ অগাস্ট ২০২২ইং, ২৬শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১০ই মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২৯ মার্চ ২০১৭, বুধবার |



kidarkar

কিডনির পাথর ভাঙতে সাহায্য করে তরমুজের খোসা

tormujশেয়ারবাজার ডেস্ক: বেশিরভাগ মানুষই তরমুজের রসালো মজ্জাটি খেয়ে থাকেন, যদিও এর খোসাও ভক্ষণ উপযোগী। তাছাড়া তরমুজের খোসাও আপনার শরীরের জন্য নানাভাবে উপকারী। বস্তুত তরমুজের পুষ্টি মূল্যের ৯৫ শতাংশই এর খোসা থেকে পাওয়া যায়। তরমুজের মাংসল অংশের মতোই এর খোসার বেশিরভাগ অংশই পানি দিয়ে গঠিত।

উচ্চ ঘনত্বের পানি থাকার কারণে কিডনির কাজে সাহায্য করে এটি। এছাড়াও পর্যাপ্ত পরিমাণে হাইড্রেটেড থাকার কারণে আপনার রক্তচাপও কম থাকবে। তরমুজের খোসায় ভিটামিন সি, বি ৬ এবং এ থাকে। তরমুজের খোসা খেলে আপনি পর্যাপ্ত পরিমাণে পটাসিয়াম ও জিংক পাবেন। তরমুজের খোসায় সাইট্রোলাইন থাকে যা ফ্রি র‍্যাডিকেলের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে এবং ইমিউন সিস্টেমকে প্রেরণা দেয়। তরমুজের খোসা খাওয়ার আরো কিছু স্বাস্থ্য উপকারিতার বিষয়ে জেনে নিই চলুন।

১। কিডনির পাথরকে ভাঙতে সাহায্য করে

তরমুজের খোসার পটাসিয়াম স্বাস্থ্যকর কিডনির জন্য অত্যাবশ্যকীয় উপাদান, যেহেতু এটি কিডনির এসিডের মাত্রার নিয়ন্ত্রণ বজায় রাখতে সাহায্য করে। তরমুজের খোসার পানি কিডনির পাথরকে বের হয়ে যেতে সাহায্য করে।

২। ওজন কমতে সাহায্য করে

তরমুজের খোসার সাইট্রোলাইন ওজন কমতে সাহায্য করে এবং এর খোসায় যে ফাইবার থাকে তা দীর্ঘক্ষণ পেট ভরা থাকতে সাহায্য করে।

৩। অ্যান্টিইনফ্লামেটরি গুণ আছে

তরমুজের খোসায় লাইকোপিন থাকে যা আরথ্রাইটিসের ব্যথার জন্য দায়ী ইনফ্লামেশন কমতে সাহায্য করে। তরমুজের খোসা বিটা ক্যারোটিনের ভালো উৎস যা চোখের জন্য ভালো।

৪। মূত্রনালির সংক্রমণ নিরাময়ে সাহায্য করে

মূত্রনালীর সংক্রমণ নিরাময়ের জন্য তরমুজের খোসা অত্যন্ত কার্যকরী কারণ এর মূত্রবর্ধক এবং হাইড্রেটিং গুনাগুণ আছে। এজন্য ইউটিআই এর প্রাথমিক লক্ষণ দেখা দেয়া মাত্রই আপনার তরমুজের খোসার জুস পান করা শুরু করা উচিৎ।

৫। গর্ভাবস্থার উপসর্গ কমতে সাহায্য করে

গর্ভবতী নারীরা তরমুজের খোসা খেতে পারেন বুক জ্বালাপোড়া কমানোর জন্য এবং গর্ভাবস্থার সাথে সম্পর্কিত যেকোন ফোলা কমানোর জন্য। তরমুজের খোসায় যে প্রাকৃতিক চিনি থাকে তা মর্নিং সিকনেস কমতে সাহায্য করে।

৬। রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে

এর পানির উপস্থিতির কারণে তরমুজের খোসা খেলে রক্তচাপ কমে। এছাড়াও যদি আপনার নিম্ন রক্তচাপের সমস্যা থাকে তাহলে তরমুজের খোসা খেলে আপনার রক্ত সংবহন নিয়ন্ত্রণে থাকবে এবং আপনার রক্তচাপ স্বাভাবিক হবে।

৭। অর্থনৈতিকভাবে স্মার্ট

তরমুজের সব অংশ খাওয়া শুধু আপনার স্বাস্থ্যের জন্যই উপকারী নয় বরং অর্থনৈতিকভাবেও অনেক সাশ্রয়ী।

শেয়ারবাজারনিউজ/মু

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.