আজ: বুধবার, ১০ অগাস্ট ২০২২ইং, ২৬শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১০ই মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০১ এপ্রিল ২০১৭, শনিবার |



kidarkar

পায়ের ঘাম দূর করার উপায়

satiitcenter handtশেয়ারবাজার ডেস্ক: অনেকের মুখে শোনা যায়, হাত-পা প্রচুর ঘামে। এতে করে হাতে কোন ধরণের বস্তু রাখা যায় না। ছোট্ট এক টুকরা কাগজ হাতে রাখলে ভিজে যায়। অনেক সময় মোবাইল হাতে রাখা যায় না। কারও হাত ধরে রাখতেও কেমন জানি ইতস্তত বোধ হয়। এ সমস্ত সমস্যা থেকে সমাধানের জন্য ছোট ছোট কিছু উপায় অবলম্বন করলেই যথেষ্ট। আসুন আজ সে বিষয়ে আলোচনা করা যাক-

১. বেকিং সোডাঃ
বেকিং সোডা ব্যবহার করলে এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে। গরম পানিতে ২-৩ চামচ বেকিং পাওডার মিশিয়ে নিন। এরপর ২০ থেকে ৩০ মিনিট পর্যন্ত হাত-পা ভিজিয়ে রাখুন। হাত-পা ঘষে ঘষে পরিষ্কার করুন।

২. গোলাপ জলঃ
বাজার থেকে গোলাপ জল কিনে না এনে, ঘরে বসে তৈরি করে নিলে বেশি উপকৃত হবেন। এজন্য গোলাপ ফুল কিনে এনে, ফুলের পাপড়ি আলাদা করে নিয়ে পানিতে সেদ্ধ করে নিবেন। নিয়মিত হাত-পায়ে গোলাপ জল ব্যবহার করলে ঘামের সমস্যা দূর হবে।

৩. ঠাণ্ডা পানিঃ
প্রতিদিন ১৫ থেকে ২০ মিনিটের জন্য ঠাণ্ডা পানিতে হাত পা ভিজিয়ে রাখলেও এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন।

৪. পাউডারঃ

তৈলাক্ত ত্বক শুষ্ক করার জন্য পাউডার যেভাবে কাজ করে, ঘামের সমস্যাও ঠিক সেভাবে দূর করে পাউডার। পারফিউম ছাড়া যে সকল পাউডার বাজারে পাওয়া যায়, সে সকল পাউডার আপনার হাতে ও পায়ে ব্যবহার করতে পারেন।

৫. লেবু ও কমলার খোসাঃ
লেবু ও কমলার খোসা ভাল করে শুঁকিয়ে নিয়ে তা গুঁড়া করে নিন। এটি পাউডার হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন। এটি হাত-পা ঘামা দূর করে এবং হাত-পায়ের ত্বক কোমল ও নরম করে।

হাত-পা ঘামার প্রাথমিক কারণ হিসেবে তেমন কিছু পাওয়া যায়নি। তবে অতিরিক্ত স্নায়বিক উত্তেজনার কারণে ঘাম হয়ে থাকে। এ ছাড়া আরও নানা কারণে হাত-পা ঘেমে থাকে। যেমন পারকিনসন্স ডিজিজ, থাইরয়েডে সমস্যা, ডায়বেটিস, জ্বর, শরীরে গ্লুকোজের স্বল্পতা, মেনোপোজের পর প্রভৃতি। অনেক সময় শরীরে ভিটামিনের অভাব থাকলে হাত-পা অতিরিক্ত ঘামতে পারে। আবার মানসিক চাপ, দুশ্চিন্তা ও জেনেটিক কারণে হাত-পা ঘামে।-সূত্রঃ টাইম্‌স অফ ইন্ডিয়া।

শেয়ারবাজারনিউজ/মু

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.