আজ: শুক্রবার, ১৫ অক্টোবর ২০২১ইং, ৩১শে আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৮ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২৪ অগাস্ট ২০১৭, বৃহস্পতিবার |



kidarkar

আইন মানছে না ৪৪ কোম্পানি: ব্যবস্থা নেবে বিএসইসি

dseশেয়ারবাজার রিপোর্ট: শেয়ার ধারণের বাধ্যবাধকতার আইন মানছে না শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত ৪৪ কোম্পানি। কোম্পানিগুলো হলো- আইএফআইসি ব্যাংক, ন্যাশনাল ব্যাংক, পূবালী ব্যাংক, উত্তরা ব্যাংক, কনফিডেন্টস সিমেন্ট, ফুয়াং সিরামিক, স্ট্যার্ডার্ড সিরামিক, আফতাব অটোমোবাইল, অ্যাপোলো ইস্পাত,  বিডি থাই অ্যালুমিনিয়াম,ইস্টার্ন ক্যাবল, কে অ্যান্ড কিউ, এমারাল্ড অয়েল,ফাইন ফুড,ফু-ওয়াং ফুড, অলিম্পিক ইন্ডাস্ট্রিজ,  রহিমা ফুড, আরডি ফুড, বারাকা পাওয়ার, বাংলাদেশ জেনারেল ইন্স্যুরেন্স, কর্ণফুলী ইন্স্যুরেন্স, মেঘনা লাইফ ইন্স্যুরেন্স, পিপলস ইন্স্যুরেন্স, অগ্নি সিস্টেম, বিডিকম অনলাইন, ইনটেক লিমিটেড, ইনফরমেশন সার্ভিস নেটওর্য়াক, নর্দার্ণ জুট, বেক্সিমকো লিমিটেড, একটিভ ফাইন কেমিক্যাল, বেক্সিমকো ফার্মার, ফার্মা এইড, সালভো কেমিক্যাল, এপেক্স ফুটওয়্যার, সি অ্যান্ড এ টেক্সাটইল, ডেল্টা স্পিনার্স, দুলামিয়া কটন, ফ্যামিলি টেক্সে, জেনারেশন নেক্সট ফ্যাশন, ম্যাকসন্স স্পিনিং, মেট্রো স্পিনিং, মিথুন নিটিং, তাল্লু স্পিনিং এবং ইউনাইটেড এয়ার লিমিটেড। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

নিয়ম অনুসারে তালিকাভুক্তি কোম্পানির উদ্যোক্তা পরিচালকদের সম্মিলিতভাবে নিজ কোম্পানির ন্যূনতম ৩০ শতাংশ শেয়ার ধারণ বাধ্যতামূলক। আর পরিচালকদের ব্যক্তিগতভাবে দুই শতাংশ শেয়ার ধারণ করতে হবে। কিন্তু এসব কোম্পানিতে উদ্যোক্তা ও পরিচালকদের সম্মিলিত শেয়ার ৩০ শতাংশের কম। এর মধ্যে কোনো কোম্পানিতে মাত্র এক শতাংশ রয়েছে উদ্যোক্তাদের। বাকি ৯৯ শতাংশের বেশি শেয়ারের মালিক সাধারণ বিনিয়োগকারী এবং বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান। অথচ এ স্বল্প পরিমাণ শেয়ার দিয়ে উদ্যোক্তারা পুরো কোম্পানি নিয়ন্ত্রণ করছে।

এ বিষয়ে বিএসইর মূখপাত্র ও নিবাহী পরিচালক মো: সাইফুর রহমান শেয়ারবাজারনিউজ ডটকমকে বলেন, তালিকাভুক্ত যেসব কোম্পানির পরিচালকদের শেয়ার ধারণে ৩০ শতাংশের নিচে আছে তাদের তালিকা স্টক একচেঞ্জে কাছে চাওয়া হয়েছে। তালিকা পাওয়ার পরেই এদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

স্টক এক্সচেঞ্জ তথ্যানুযায়ী, প্রতিষ্ঠানের উদ্যোক্তাদের ৩০ শতাংশ শেয়ার নেই এমন কোম্পানিগুলোর মধ্যে- আইএফআইসি ব্যাংক ৫.৯২ শতাংশ, ন্যাশনাল ব্যাংকের ২৭.৯৫ শতাংশ, পূবালী ব্যাংকের ২৮.৮৯ শতাংশ এবং উত্তরা ব্যাংকের ১২.৫৮ শতাংশ, কনফিডেন্টস সিমেন্টের ২৫.৫০ শতাংশ, ফুয়াং সিরামিক ৫.৩৩, স্ট্যার্ডার্ড সিরামিকতের ২৮.৪৫ শতাংশ, আফতাব অটোমোবাইল ২৮.৪২ শতাংশ, অ্যাপোলো ইস্পাত ২১.১৯ শতাংশ, বিডি থাই অ্যালুমিনিয়ামের ২৬.০২ শতাংশ, ইস্টার্ন ক্যাবল ৪.৬৪, কে অ্যান্ড কিউ ২৪.০৬ শতাংশ, এমারাল্ড অয়েলের ২৮.৪২ শতাংশ, ফাইন ফুড ১.০৭ শতাংশ, ফু-ওয়াং ফুডের ৪.৭৬ শতাংশ, অলিম্পিক ইন্ডাস্ট্রিজ ২৮.৯২,  রহিমা ফুডের ৯.৩০ শতাংশ, আরডি ফুডের ২৩.৪৮ শতাংশ, বারাকা পাওয়ার ১৯.৯১ শতাংশ, বাংলাদেশ জেনারেল ইন্স্যুরেন্স ১৬.১৬, কর্ণফুলী ইন্স্যুরেন্স ২৫.৭২ শতাংশ, মেঘনা লাইফ ইন্স্যুরেন্সের ১৮.৪৩ শতাংশ, পিপলস ইন্স্যুরেন্সের ২০.৯৬ শতাংশ, অগ্নি সিস্টেম ১১.৪০ শতাংশ, বিডিকম অনলাইনের ২৩.১০ শতাংশ, ইনটেক লিমিটেডের ৪.৭৭ শতাংশ, ইনফরমেশন সার্ভিস নেটওর্য়াকের ২১.৬৫ শতাংশ, নর্দার্ণ জুটের ১৫.৩৮ শতাংশ, বেক্সিমকো লিমিটেড ২০.১৫ শতাংশ, একটিভ ফাইন কেমিক্যাল ১২.০২ শতাংশ, বেক্সিমকো ফার্মা ১৩.২১ শতাংশ, ফার্মা এইড ২৮.৪৪ শতাংশ, সালভো কেমিক্যালের ২২.১৪ শতাংশ, এপেক্স ফুটওয়্যারের ১৯.৪২ শতাংশ, সি অ্যান্ড এ টেক্সাটইলের ২২.১৪ শতাংশ, ডেল্টা স্পিনার্স ১৯ শতাংশ, দুলামিয়া কটনের ২১.০৪ শতাংশ, ফ্যামিলি টেক্সের ২২.৪৩ শতাংশ, জেনারেশন নেক্সট ফ্যাশন ১৩.৮২ শতাংশ, ম্যাকসন্স স্পিনিংয়ের ২৪.৪৬ শতাংশ, মেট্রো স্পিনিং ২৪.৫২ শতাংশ, মিথুন নিটিংয়ের ১৭.২০ শতাংশ, তাল্লু স্পিনিংয়ের ২৯.০৪ শতাংশ এবং ইউনাইটেড এয়ারের উদ্যোক্তাদের হাতে মাত্র ৪.১৬ শতাংশ শেয়ার রয়েছে।

শেয়ারবাজারনিউজ/এম.আর

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.