আজ: শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১ইং, ৩১শে আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৮ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২৮ অগাস্ট ২০১৭, সোমবার |



kidarkar

বিবিএস ক্যাবলস: ১৫০ টাকায় যাওয়ার পর তদন্ত কমিটি গঠনের ব্যাখ্যা দিলো বিএসইসি

bbs cablesশেয়ারবাজার রিপোর্ট: পুঁজিবাজারে সদ্য তালিকাভুক্ত প্রকৌশল খাতের বিবিএস ক্যাবলসের শেয়ার অস্বাভাবিকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। ১০ টাকার শেয়ার কয়েকদিনের ব্যবধানেই প্রায় ১৫০ টাকায় পৌছে গেছে। আর এই দর বৃদ্ধি কারণ খতিয়ে দেখতে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটিও ইতিমধ্যে গঠন করেছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)।

তবে অনেকের প্রশ্ন, একটি ১০ টাকার শেয়ার যখন ১৫০ টাকায় যায় তখন কেন এতো দেরিতে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। এতে সাধারণ বিনিয়োগকারীরা অনেক ক্ষতিগ্রস্ত হয়। বিনিয়োগকারীদের এমন ক্ষোভের প্রশ্নের জবাব দিয়েছেন বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মো: সাইফুর রহমান।

তিনি জানান, বিবিএস ক্যাবলস মাত্র মার্কেটে এসেছে। একটি কোম্পানি ডেব্যু হলে তার হাল চাল পর্যবেক্ষণ করতে একটু সময় দিতে হয়। হুট করেই যখন ইচ্ছা তখন তদন্ত কমিটি গঠন করা যায় না। আমাদের নিজস্ব অ্যানালাইসিস টিম রয়েছে। তারা বাজারে কখন কি হচ্ছে না হচ্ছে তা সার্বক্ষণিক নজরে রাখছে। আমাদের টিম যখন কোনো অস্বাভাবিকতা দেখে তখনই কার্যকরী ব্যবস্থা নেয়।

সাধারণ বিনিয়োগকারীদের প্রতি সাইফুর রহমান বলেন, আপনারা কি দেখে ১০ টাকার শেয়ার ১৫০ টাকায় কিনতে যান।আইটেমের ব্যবসা ছেড়ে দিন। আইটেমের পেছনে না  ছুটে আপনার আইটেম আপনি নিজে তৈরি করুন।  ঝুঁকি মিনিমাইজ  করুন। ক্যালকুলেটরে  প্রফিট গোনা বাদ দিয়ে সেই  প্রফিট ঘরে তুলুন। সর্বপরি নিজের পোর্টফলিও নিজে তৈরি করুন।

জানা যায়, গত ৩১ জুলাই পুঁজিবাজারে লেনদেনের শুরুর দিনই ৯০ টাকায় লেনদেন হয় বিবিএস ক্যাবলসের শেয়ার। তারপরের শেয়ার দর কমার পর আর পেছনে তাকায়নি বিবিএস ক্যাবলস। টানা দর বৃদ্ধি পেয়ে এ কোম্পানির শেয়ার দর ১৪৯ টাকায় চলে যায়। গত ২২ আগষ্ট বিবিএস ক্যাবলসের শেয়ার দর বৃদ্ধি বিএসইসির কাছে অস্বাভাবিক মনে হওয়ায় তার প্রকৃত কারণ খতিয়ে দেখতে তিন সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়। কমিটির সদস্যরা হলেন- বিএসইসির উপ পরিচালক মো. শামসুর রহমান, সহকারী পরিচালক মো. রাকিবুর রহমান ও ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের মো. আরিফুর রহমান চৌধুরী।

উল্লেখ্য, বর্তমানে বিবিএস ক্যাবলসের পি/ই রেশিও ৪৮.০৮। অর্থাৎ এ কোম্পানিটির শেয়ার ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থানে থাকায় কোনো মার্জিন লোনের সুবিধা পাবে না।

শেয়ারবাজারনিউজ/ম.সা

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.