প্যান-এশিয়া স্টক এক্সচেঞ্জে অংশীদার হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ

DSE-CSEশেয়ারবাজার রিপোর্ট: ইন্টারন্যাশনাল লজিস্টিক অ্যান্ড ফাইন্যান্স অ্যাসোসিয়েশন (ইলফা) নতুন স্টক করিডোর হিসেবে প্যান এশিয়া স্টক এক্সচেঞ্জ গঠন করতে যাচ্ছে। এতে বাংলাদেশও অংশীদার হতে চায়। আর এ লক্ষ্যে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সাথে আজ বৃহস্পতিবার ইলফার একটি মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

মূলত এ স্টক এক্সচেঞ্জ কমিশন গঠনের মাধ্যেমে বাংলাদেশ, চীন, ভারত, মায়ানমার ইকনোমিক করিডোর (বিসিআইএম-ইসি) সিল্ক রোড অবকাঠামো নির্মানে দেশীয় স্টক এক্সচেঞ্জগুলোকে অর্থায়নে আগ্রহি করার লক্ষ্যে প্যান এশিয়া স্টক এক্সচেঞ্জ গঠনে আগ্রহি হচ্ছে বলে জানা যায়। এছাড়া ব্রোকারস্ ডিলার অ্যাসোসিয়েশনের ভবিষ্যৎ নিয়েও মতবিনিময় হয়।

এছাড়াও ক্রস বর্ডার লিস্টিং ও ক্রস বর্ডার ট্রেডিং নিয়েও আলোচনা হয়। এ উদ্যোগ বাস্তবায়িত হলে দেশের স্টক এক্সচেঞ্জগুলোতে প্যান এশিয়ান দেশগুলোর শেয়ার লেনদনেও সম্ভব হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

প্যান এশিয়ান দেশগুলোর মিলিত প্রচেষ্টায় এ স্টক এক্সচেঞ্জ আঞ্চলিক অবকাঠামো নির্মানের ক্ষেত্রে একটি নতুন মাইলফলক হিসেবে আবির্ভুত হবে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা। স্টক এক্সচেঞ্জটি গঠনের উদ্দেশ্যে এ মাসেই ১০ সদস্যর একটি প্রতিনিধিদল ঢাকা আসবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে। প্রতিনিধি দলটি ঢাকা আসার আগে পাকিস্থান ও শ্রীলংকায় এ বিষয়ে আলোচনা করে আসবে।

নতুন এ স্টক এক্সচেঞ্জ গঠনের মাধ্যেমে আঞ্চলিক অবকাঠামো খাতে বিনিয়োগ সহজতর হবে। এছাড়া, ঢাকা ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ এর সাথে মত বিনিময় সভায়, চায়না কুনমিং লজিস্টিক অ্যান্ড ফাইন্যান্স (আইএলএফএ) ও সাউথ এশিয়া ফেডারেশন অব এক্সচেঞ্জ (সেফ) গঠনে দেশের স্টক এক্সচেঞ্জগুলোর ভূমিকা নিয়েও আলোচনা হয়। প্রতিনিধি দলটি জানায়, বিসিআইএম ইকোনমিক করিডোর অবকাঠামো নির্মানে সহযোগিতা ও তথ্য আদান এবং নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) সাথে সম্পর্ক স্থাপন করার ব্যাপারে তারা আগ্রহি। এর ফলে সাউথ এশিয়া এক্সপোতে বিএসইসি’র কর্মকর্তাদের অংশগ্রহণ করা সহজতর হবে।

 

শেয়ারবাজারনিউজ/ও

আপনার মন্তব্য

Top