আজ: শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২ইং, ১৫ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৩রা রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭, বৃহস্পতিবার |



kidarkar

৬ সূচকে শীর্ষে রয়েছে যেসব ব্যাংক

bankশেয়ারবাজার রিপোর্ট: রিটার্ন অন অ্যাসেট, রিটার্ন অন ইকুইটি, ঋণ ও অগ্রিম, লোন পোর্টফোলিও গ্রোথ, কর পরিশোধের পর প্রকৃত মুনাফা এবং কস্ট টু ইনকাম এ ৬ সূচকে শীর্ষে রয়েছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ১০ ব্যাংক।

আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইডিএলসি’র এক প্রতিবেদন থেকে এমন তথ্য জানা গেছে। ব্যাংকগুলোর ৩০ জুন, ২০১৭ সমাপ্ত অর্ধবার্ষিক আর্থিক প্রতিবেদনের ভিত্তিতে প্রতিবেদনটি তৈরি হয়েছে।

বিশ্লেষকরা বলছেন, এই ৬ সূচকের ফলাফল সংশ্লিষ্ট ব্যাংক সম্পর্কে বিনিয়োগকারীদের স্পষ্ট ধারণা দেয়।

রিটার্ন অন অ্যাসেট: সম্পদের তুলনায় ব্যাংকের আয়ের হার। এ সূচকে শীর্ষে রয়েছে ব্র্যাক ব্যাংক। তাদের রিটার্ন অন অ্যাসেট ১.৬০ শতাংশ। এরপর রয়েছে যথাক্রমে ইস্টার্ন ব্যাংক ১.৫০ শতাংশ; সিটি ব্যাংক ১.৪০ শতাংশ; ট্রাস্ট ব্যাংক ১.১০ শতাংশ; ডাচ-বাংলা ব্যাংক ১ শতাংশ; সাউথইস্ট ব্যাংক ০.৮০ শতাংশ; ইউনাইটেড কমার্সিয়াল ব্যাংক ০.৮০ শতাংশ; ইসলামি ব্যাংক ০.৭০ শতাংশ; পূবালী ব্যাংক ০.৭০ শতাংশ এবং প্রাইম ব্যাংকের রিটার্ন অন অ্যাসেট ০.৭০ শতাংশ।

রিটার্ন অন ইকুইটি: ইকুইটির তুলনায় ব্যাংকের আয়ের হার। এ সূচকে শীর্ষে রয়েছে ট্রাস্ট ব্যাংক। তাদের রিটার্ন অন ইকুইটি ২০.১০ শতাংশ। এরপর রয়েছে যথাক্রমে ব্র্যাক ব্যাংক ১৯.৭০ শতাংশ; ইস্টার্ন ব্যাংক ১৬.৩০ শতাংশ; ডাচ-বাংলা ব্যাংক ১৫.৭০ শতাংশ; সিটি ব্যাংক ১৪.৩০ শতাংশ; ইসলামি ব্যাংক ১১.৭০ শতাংশ; ইউনাইটেড কমার্সিয়াল ব্যাংক ১০.৩০ শতাংশ; পূবালী ব্যাংক ৯.২০ শতাংশ; সাউথইস্ট ব্যাংক ৯.১০ শতাংশ এবং প্রাইম ব্যাংকের রিটার্ন অন ইকুইটি ৭.১০ শতাংশ।

ঋণ ও অগ্রিম: ব্যাংকের মূল ব্যবসা সুদ কিংবা মুনাফার বিনিময়ে ঋণ ও অগ্রিম প্রদান করা। আর এক্ষেত্রে শীর্ষে রয়েছে ইসলামী ব্যাংক। তারা ৬৬১ বিলিয়ন টাকা ঋণ ও অগ্রিম বাবদ বিতরণ করেছে। এরপর রয়েছে যথাক্রমে ইউনাইটেড কমার্সিয়াল ব্যাংক ২৩৭ বিলিয়ন টাকা; পূবালী ব্যাংক ২১৩ বিলিয়ন টাকা; সাউথইস্ট ব্যাংক ২০৭ বিলিয়ন টাকা; সিটি ব্যাংক ১৮৬ বিলিয়ন টাকা; ডাচ-বাংলা ব্যাংক ১৮৬ বিলিয়ন টাকা; ব্র্যাক ব্যাংক ১৮১ বিলিয়ন টাকা; প্রাইম ব্যাংক ১৭৮ বিলিয়ন টাকা; ইস্টার্ন ব্যাংক ১৭১ বিলিয়ন টাকা এবং ট্রাস্ট ব্যাংক ১৬৯ বিলিয়ন টাকার ঋণ ও অগ্রিম বিতরণ করেছে।

লোন পোর্টফোলিও গ্রোথ: ঋণ প্রদানে সবচেয়ে বেশি প্রবৃদ্ধি দেখিয়েছে ট্রাস্ট ব্যাংক। তাদের গ্রোথ ১৭.৩০ শতাংশ। এরপর রয়েছে যথাক্রমে ইস্টার্ন ব্যাংক ৯.৩০ শতাংশ; ইসলামি ব্যাংক ৮.২০ শতাংশ; সাউথইস্ট ব্যাংক ৭.৯০ শতাংশ; ডাচ-বাংলা ব্যাংক ৭.৪০ শতাংশ; সিটি ব্যাংক ৬.১০ শতাংশ; ইউনাইটেড কমার্সিয়াল ব্যাংক ৫.৮০ শতাংশ; পূবালী ব্যাংক ৫ শতাংশ; প্রাইম ব্যাংক ৩.৪০ শতাংশ এবং ব্র্যাক ব্যাংকের লোন পোর্টফোলিও গ্রোথ ৩.১০ শতাংশ।

কর পরিশোধের পর প্রকৃত মুনাফা: এ ক্ষেত্রে শীর্ষে রয়েছে ইসলামি ব্যাংক। তাদের কর পরিশোধের পর প্রকৃত মুনাফা ২.৯১ বিলিয়ন টাকা। এরপর রয়েছে যথাক্রমে ব্র্যাক ব্যাংক ২.২৭ বিলিয়ন টাকা; সিটি ব্যাংক ১.৯১ বিলিয়ন টাকা; ইস্টার্ন ব্যাংক ১.৭১ বিলিয়ন টাকা; ডাচ-বাংলা ব্যাংক ১.৪২ বিলিয়ন টাকা; ইউনাইটেড কমার্সিয়াল ব্যাংক ১.৩২ বিলিয়ন টাকা; সাউথইস্ট ব্যাংক ১.১৯ বিলিয়ন টাকা; ট্রাস্ট ব্যাংক ১.১৮ বিলিয়ন টাকা; পূবালী ব্যাংক ১.১৪ বিলিয়ন টাকা এবং প্রাইম ব্যাংকের কর পরিশোধের পর প্রকৃত মুনাফা ০.৮৮ বিলিয়ন টাকা।

কস্ট টু ইনকাম: আয়ের তুলনায় খরচের হার। এতে রেশিও কম থাকা ব্যাংক সুবিধাজনক অবস্থায় এবং রেশিও বেশি হওয়া ব্যাংক ঝুঁকিতে রয়েছে বুঝায়। প্রতিবেদন অনুযায়ী সবচেয়ে কম ঝুঁকিতে রয়েছে সাউথইস্ট ব্যাংক। ব্যাংকটির কস্ট টু ইনকাম রেশিও ৩৩.২০ শতাংশ। এরপর রয়েছে যথাক্রমে ট্রাস্ট ব্যাংক ৩৭.৩০ শতাংশ; ইস্টার্ন ব্যাংক ৪১.৯০ শতাংশ; পূবালী ব্যাংক ৪৪.৬০ শতাংশ; প্রাইম ব্যাংক ৪৮.৯০ শতাংশ; ইসলামি ব্যাংক ৪৯ শতাংশ; সিটি ব্যাংক ৫৫.২০ শতাংশ; ব্র্যাক ব্যাংক ৬০.৭০ শতাংশ; ইউনাইটেড কমার্সিয়াল ব্যাংক ৬২.৯০ শতাংশ এবং ডাচ-বাংলা ব্যাংকের কস্ট টু ইনকাম রেশিও ৭৩ শতাংশ।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.