আজ: রবিবার, ১৪ অগাস্ট ২০২২ইং, ৩০শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৪ই মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭, রবিবার |



kidarkar

যুক্তরাষ্ট্রে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা অনিবার্য

koriaশেয়ারবাজার ডেস্ক: মার্কিন হুমকির জবাবে যুক্তরাষ্ট্রের মূল ভূখণ্ডে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা অনিবার্য হয়ে পড়েছে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে উত্তর কোরিয়া। শনিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে দেয়া ভাষণে এ হুঁশিয়ারি দিয়েছেন উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী রি ইয়ং হো।

উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তাদের সর্বোচ্চ নেতা কিম জং-উনকে ‘রকেটম্যান’ বলেছেন ‘শয়তান প্রেসিডেন্ট’ ডোনাল্ড ট্রাম্প। এর মধ্য দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে হামলার বৈধতা দেয়া হয়েছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে সমালোচনা করে রি ইয়ং হোর বক্তব্যের মাত্র কয়েক ঘণ্টা আগে যুক্তরাষ্ট্রের বিমানবাহিনীর বোমারু বিমান বি-১বি ল্যান্সার অন্য জঙ্গি বিমানগুলোর সঙ্গে উত্তর কোরিয়ার পূর্ব দিকে পানির ওপর আন্তর্জাতিক আকাশসীমায় টহল দেয়। যুক্তরাষ্ট্র যে সামরিক বিকল্প হাতে রাখছে, তা দেখাতেই এমনটা করা হয়েছে বলে জানিয়েছে মার্কিন প্রতিরক্ষা দপ্তর পেন্টাগন।

এর আগে এক সপ্তাহ ধরে তীব্র বাকযুদ্ধে লিপ্ত ছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জং-উন। বৃহস্পতিবার মার্কিন প্রেসিডেন্টকে ‘মানসিক বিকারগ্রস্ত যুক্তরাষ্ট্রের ভীমরতিগ্রস্ত বুড়ো’ হিসেবে আখ্যায়িত করেন কিম। পরের দিন শুক্রবার কিমকে ‘পাগলা’ বলেন ট্রাম্প।

শনিবারের ভাষণে কিমের নেতৃত্বাধীন সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী রি মার্কিন প্রেসিডেন্টকে ‘নিজেকে বড় ভাবা ও আত্মপ্রসাদে ভোগা মানসিকভাবে বিকারগ্রস্ত ব্যক্তি’ বলেন। তিনি আরো বলেন, ট্রাম্প জাতিসংঘকে ‘গ্যাং স্টারদের বাসা’ বানানোর চেষ্টা করছেন।

রি বলেন, উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা নন, ট্রাম্প নিজেই ‘আত্মহত্যার মিশনে’ আছেন। তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের আসনে বসে আছে ‘প্রেসিডেন্ট শয়তান’।

বিশ্ব নেতাদের বার্ষিক ওই অধিবেশেনে রি হুঁশিয়ার করে বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র আমাদের সদরদপ্তর বা আমাদের দেশের বিরুদ্ধে কোনো ধরনের সামরিক হামলার ইঙ্গিত প্রদর্শন করলে পিয়ংইয়ং নিজেকে রক্ষার জন্য প্রস্তুত আছে।’

তিনি বলেন, ‘চূড়ান্তভাবে পারমাণবিক শক্তিধর রাষ্ট্র হওয়া থেকে আমরা এখন মাত্র কয়েক পদক্ষেপ দূরে আছি।’

উত্তর কোরিয়ার পারমাণবিক অস্ত্র উন্নয়নের পথে নিষেধাজ্ঞা কোনো প্রভাব ফেলতে পারবে না বলে দাবি করেন তিনি। উত্তর কোরিয়া ‘যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে শক্তির ভারসাম্যের’ লক্ষ্যে পৌঁছাবেই বলে প্রত্যয় জানান।

এক বিবৃতিতে জাতিসংঘ জানিয়েছে, বক্তৃতা শেষে রি জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেসের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। এ সময় গুতেরেস বাড়তে থাকা উত্তেজনার বিষয়ে রিয়ের কাছে উদ্বেগ প্রকাশ করে উত্তেজনা প্রশমনের অনুরোধ জানান। সূত্র: রয়টার্স

শেয়ারবাজারনিউজ/মু

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.