আজ: মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২ইং, ২১শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১০ই জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

১৬ নভেম্বর ২০১৭, বৃহস্পতিবার |


kidarkar

গালফ অয়েলের সঙ্গে ইফাদের চুক্তি স্বাক্ষর


ifadশেয়ারবাজার রিপোর্ট: লুব্রিক্যান্ট উৎপাদন ও বিপননের জন্য গালফ অয়েল ইন্টারন্যাশনালের সঙ্গে অংশীদারিত্বের চুক্তি সম্পন্ন করেছে ইফাদ অটোস লিমিটেড।

গতকাল রাজধানীর একটি হোটেলে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদের উপস্থিতিতে দুপক্ষের মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষর হয়। এর আওতায় যুক্তরাজ্যভিত্তিক লুব্রিক্যান্ট গ্রুপটির সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে লুব্রিক্যান্ট অয়েল প্রস্তুত ও বাজারজাত করবে ইফাদ।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ এমপি। বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ব্রিটিশ ডেপুটি হাইকমিশনার ডেভিড অ্যাসলি। আরো বক্তব্য রাখেন ইফাদ অটোস লিমিটেডের চেয়ারম্যান ইফতেখার আহমেদ টিপু, ব্যবস্থাপনা পরিচালক তাসকিন আহমেদ, গালফ অয়েল ইন্টারন্যাশনালের ভাইস প্রেসিডেন্ট (ইন্টারন্যাশনাল) ফ্রাঙ্ক রুট্টেন ও গালফ অয়েল বাংলাদেশ লিমিটেডের চেয়ারম্যান রবি চাওলা।

এ সময় অন্যদের মধ্যে গালফ অয়েল বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক অম্লান মিত্র, ইফাদ গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তানভীর আহমেদ, পরিচালক তাসফিন আহমেদসহ দুই প্রতিষ্ঠানের অনেক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা, ব্যাংকার ও ব্যবসায়ী নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে ইফাদ অটোস লিমিটেডের চেয়ারম্যান ইফতেখার আহমেদ টিপু বলেন, ৩২ বছরেরও বেশি সময় ধরে ইফাদ অটোস দেশের পরিবহন খাতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে আসছে। এ সময় মানুষের যে আস্থা আমরা অর্জন করেছি, আগামীতেও তা অব্যাহত থাকবে। ইফাদ ভবিষ্যতে গাড়িতে ব্যবহারযোগ্য আরো অনেক পণ্য ও সেবার ব্যবসা করতে আগ্রহী।

গালফ অয়েল বাংলাদেশের ম্যানেজিং ডিরেক্টর অম্লান মিত্র বলেন, গালফ ও ইফাদের এ অংশীদারিত্ব দেশের লুব্রিক্যান্ট বাজারে একটি গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা। ইফাদ বাংলাদেশের একটি প্রতিষ্ঠিত ও স্বনামধন্য বাণিজ্যিক গ্রুপ, যাদের রয়েছে চমত্কার একটি মার্কেটিং টিম। গালফের সিস্টার কনসার্ন অশোক লেল্যান্ডের যানবাহন বাজারজাতে তাদের সাফল্য দীর্ঘদিনের।

ইফাদ অটোস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তাসকিন আহমেদ বলেন, ২০২২ সালের মধ্যে ইফাদের ব্যবসা সম্প্রসারণের যে লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে, তা অর্জনে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে গালফের সঙ্গে এ অংশীদারিত্ব।

তিনি আরো জানান, বাংলাদেশ ও প্রতিবেশী বাজারগুলোয় বিক্রির উদ্দেশ্যে গালফ অয়েল কোম্পানি এ দেশে লুুব্রিক্যান্ট ব্লেন্ডিং প্লান্ট স্থাপন করবে। আগামী চার বছরের মধ্যে গালফকে দেশের শীর্ষ একটি লুব্রিক্যান্ট ব্র্যান্ড হিসেবে দাঁড় করাতে চাই আমরা।

উল্লেখ্য, গালফ অয়েল বাংলাদেশ লিমিটেড যুক্তরাজ্যভিত্তিক গালফ অয়েল ইন্টারন্যাশনাল গ্রুপের একটি অঙ্গপ্রতিষ্ঠান। ১৬ লাখ ৮৫ হাজার ডলারে কোম্পানিটির ৪৯ শতাংশ শেয়ার কিনছে ইফাদ অটোস লিমিটেড।

১৯০১ সালে যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসে কার্যক্রম শুরুর পর এখন বিশ্বের শতাধিক দেশে ব্যবসা করছে গালফ অয়েল। কোম্পানিটির নিয়ন্ত্রণে রয়েছে হিন্দুজা গ্রুপ।

 

শেয়ারবাজারনিউজ/আ


আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.