আজ: বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২ইং, ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১২ই জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২৪ ডিসেম্বর ২০১৭, রবিবার |


kidarkar

পুন:অর্থায়নের মেয়াদ দুই বছর বাড়ল: বিনিয়োগকারীদের জন্য কমলো সুদের হার


শেয়ারবাজার রিপোর্ট: পুঁজিবাজারে ২০১০ সালের মহাধসের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের পুন:অর্থায়নের ৯০০ কোটি টাকা পাওয়ার মেয়াদ আরো দুই বছর বাড়ানো হয়েছে। সেই সঙ্গে কমানো হয়েছে সুদের হার। এক্ষেত্রে আগামী ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ সাল পর্যন্ত ক্ষতিগ্রস্ত বিনিয়োগকারীদের স্বল্পসুদে সংশ্লিষ্ট সিকিউরিটিজ হাউজ বা মার্চেন্ট ব্যাংকের মাধ্যমে ঋণ নিতে পারবেন। আগে যেখানে ৯ শতাংশ সুদ ছিলো সেখানে ৩ শতাংশ কমিয়ে সুদের হার ৬ শতাংশ নির্ধারণ করা হয়েছে। আইসিবি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, ক্ষতিগ্রস্ত ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের জন্য সরকার ঘোষিত প্রণোদনা প্যাকেজের আওতায় ‘পুঁজিবাজারে ক্ষতিগ্রস্ত ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের সহায়তা তহবিল’ নামে একটি তহবিল গঠন করে আইসিবির মাধ্যমে পুন:অর্থায়ন সুবিধা দেয়া হচ্ছে। এই সুবিধা চলতি ৩১ ডিসেম্বর,২০১৭ পর্যন্ত  সময় বেঁধে দিয়েছিল ইনভেষ্টমেন্ট করপোরেশন অব বাংলাদেশ(আইসিবি)। অর্থাৎ চলতি বছরেই এর মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা। কিন্তু বর্তমান বাজার পরিস্থিতি ও ক্ষতিগ্রস্ত বিনিয়োগকারীদের ক্ষতির দিক বিবেচনা করে এর মেয়াদ আরো বাড়ানো সিদ্ধান্ত নিয়েছে আইসিবি।

সূত্র জানায়, আগামী ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ সালের মধ্যে ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকায় নাম থাকা বিনিয়োগকারীদের সুদ মওকুফ ও মাত্র ৬ শতাংশ সুদে ঋণ রি-সিডিউলিংয়ের সুবিধা প্রাপ্তির আবেদন করতে হবে। বিনিয়োগকারীরা স্ব স্ব মার্চেন্ট ব্যাংক ও সিকিউরিটিজ হাউজের মাধ্যমে পুন:অর্থায়নের সুবিধা পেতে আবেদন করতে পারবেন।

এ ব্যাপারে আইসিবি’র একজন কর্মকর্তা শেয়ারবাজারনিউজ ডটকমকে বলেন, ক্ষতিগ্রস্ত ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের পুন:অর্থায়নের ৯০০ কোটি টাকা তহবিলের মেয়াদ আরো দুই বছর বাড়িয়ে ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৯ পর্যন্ত করা হয়েছে। এছাড়া বিনিয়োগকারীদের স্বার্থের দিক বিবেচনা করে সুদের হার ৯ শতাংশ থেকে কমিয়ে ৬ শতাংশ নির্ধারণ করা হয়েছৈ।

উল্লেখ্য, ২০১০ সালের শেয়ারবাজার ধসের পরিপ্রেক্ষিতে সরকার ২০১১ সালের ২৩ নভেম্বর ক্ষতিগ্রস্ত ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের সহায়তায় বিশেষ স্কিমের ঘোষণা দেয়। ওই স্কিমের আওতায় তাদের এক বছরের মার্জিন ঋণের ৫০ শতাংশ মওকুফ এবং বাকি সুদসহ সমুদয় ঋণ তিন বছরে সমান ১২ কিস্তিতে প্রদানের সুবিধা দেয়ার কথা বলা হয়। মাত্র ৯ শতাংশ সুদে ক্ষতিগ্রস্ত এসব বিনিয়োগকারীর পুনঃঅর্থায়ন ঋণসহায়তা দেয়া হয়। এছাড়া আইপিওতে ক্ষতিগ্রস্ত বিনিয়োগকারীদের জন্য বিশেষ কোটা সুবিধাও দেয়া হয়।

শেয়ারবাজারনিউজ/ম.সা


আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.