আজ: রবিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২৩ইং, ১৫ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৫ই রজব, ১৪৪৪ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

৩০ ডিসেম্বর ২০১৭, শনিবার |


kidarkar

সূচক ও গড় লেনদেন বেড়েছে


শেয়ারবাজার রিপোর্ট: চলতি বছরের শেষ কার্যদিবসে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার উত্থান দিয়ে শেষ করলেও শেষ সপ্তাহটা ভাল করতে পারেনি। শেষ সপ্তাহজুড়ে (২৪ থেকে ২৮ ডিসেম্বর) ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) লেনদেন কমেছে ১০.৬৪ শতাংশ। তবে চট্টগ্রাম স্টক একচেঞ্জে (সিএসই) লেনদেন বিদায়ী সপ্তাহে বেড়েছে ১২৬.৯৯ শতাংশ।

জানা যায়, বড়দিনের উপলক্ষে শেয়ারবাজারে লেনদেন বন্ধ থকায় শেষ সপ্তাহে এক কার্যদিবস কম লেনদেন হওয়ার কারণে ডিএসইতে মোট লেনদেন কম হয়েছে। শেষ সপ্তাহের চার কার্যদিবসে ডিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ৯১০ কোটি ৮৯ লাখ ১৯ হাজার ৯২৪ টাকা। আগের সপ্তাহের পাঁচ কার্যদিবসে লেনদেন হয় ২ হাজার ১৩৮ কোটি ৪৮ লাখ ৯৬ হাজার ১৫৬ টাকা। সে হিসেবে লেনদেন কমেছে ২২৭ কোটি ৫৯ লাখ ৭৬ হাজার ২৩২ টাকা বা ১০.৬৪ শতাংশ।

তবে বিদায়ী সপ্তাহে লেনদেন কমলেও সবক’টি মূল্য সূচক এবং দৈনিক গড় লেনদেন বেড়েছে। সপ্তাহজুড়ে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স বেড়েছে ৬১.৭৩ পয়েন্ট বা ১ শতাংশ। আগের সপ্তাহে এ সূচকটি কমেছিল ৪৭.২৩ পয়েন্ট বা ০.৭৬ শতাংশ।

অপর দুটি সূচকের মধ্যে শেষ সপ্তাহে ডিএসই-৩০ বেড়েছে ৫২.০৩ পয়েন্ট বা ২.৩৩ শতাংশ। যা আগের সপ্তাহেও এ সূচকটি কমেছিল ১৫.৯৯ পয়েন্ট বা ০.৭১ শতাংশ। আর ডিএসই শরিয়াহ্ সূচক বেড়েছে ২৪.১১ পয়েন্ট বা ১.৭৬ শতাংশ। যা আগের সপ্তাহে এ সূচকটি কমেছিলে ১০.০২ পয়েন্ট বা ০.৭৩ শতাংশ।

সপ্তাহজুড়ে ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩৩৯টি কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিটের মধ্যে ১১২টির দাম আগের সপ্তাহের তুলনায় বেড়েছে। অপরদিকে দাম কমেছে ২০২টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৫টির দাম।

সপ্তাহে মূল্য সূচকের সঙ্গে বেড়েছে দৈনিক গড় লেনদেনের পরিমাণ। সপ্তাহের প্রতি কার্যদিবসে গড়ে লেনদেন হয়েছে ৪৭৭ কোটি ৭২ লাখ ২৯ হাজার ৯৮১ টাকা। যা আগের সপ্তাহে প্রতিদিন গড়ে লেনদেন হয় ৪২৭ কোটি ৬৯ লাখ ৭৯ হাজার ২৩১ টাকা। অর্থাৎ প্রতি কার্যদিবসে গড় লেনদেন বেড়েছে ৪৯ কোটি ৫৭ লাখ ৫০ হাজার ৭৫০ টাকা বা ১১.৭০ শতাংশ।

গত সপ্তাহে মোট লেনদেনের ৮৭.৬৭ শতাংশই ছিল ‘এ’ ক্যাটাগরিভুক্ত কোম্পানির শেয়ারের দখলে। এ ছাড়া বাকি ৩.১১ শতাংশ ছিল ‘বি’ ক্যাটাগরিভুক্ত, ৭.৪৬ শতাংশ ‘এন’ ক্যাটাগরিভুক্ত এবং ১.৭৬ শতাংশ ‘জেড’ ক্যাটাগরিভুক্ত কোম্পানির শেয়ারের।

এদিকে গত সপ্তাহে মূল্য সূচক ও গড় লেনদেন বাড়ার পাশাপাশি ডিএসইর বাজার মূলধনের পরিমাণও বেড়েছে। সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস শেষে ডিএসইর বাজার মূলধন দাঁড়িয়েছে ৪ লাখ ২২ হাজার ৮৯৪ কোটি ৫৪ লাখ ৫৬ হাজার ৪৬২ টাকা। যা তার আগের সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে ছিল ৪ লাখ ১৮ হাজার ৭ কোটি ৫১ লাখ ৮ হাজার ৯৪৫ টাকা। সে হিসেবে মূলধন বেড়েছে ১.১৭ শতাংশ।

অন্যদিকে বিদায়ী সপ্তাহে ডিএসইতে লেনদেন কমলেও সপ্তাহশেষে চট্টগ্রাম স্টক এক্সেচঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএসসিএক্স ০.৭৯ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১১৬৪৯ পয়েন্টে। আর সপ্তাহজুড়ে সিএসইতে হাত বদল হওয়ার ২৭৭টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দর বেড়েছে ৭৭টির, কমেছে ১৮২টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ১৮টির শেয়ার দর। এগুলোর ওপর ভর করে বিদায়ী সপ্তাহে ৩১৩ কোটি ১২ লাখ ৩৬ হাজার ৯২৫ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়। তার আগের সপ্তাহে সিএসইতে ১৩৭ কোটি ৯৪ লাখ ১২ হাজার ৯২৭ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়। অর্থাৎ সিএসইতে লেনদেনে বেড়েছে ১৭৫ কোটি ১৮ লাখ ২৩ হাজার ৯৯৮ টাকা বা ১২৬.৯৯ শতাংশ।

গত সপ্তাহে মোট লেনদেনের ৯১.৪২ শতাংশই ছিল ‘এ’ ক্যাটাগরিভুক্ত কোম্পানির শেয়ারের দখলে। এ ছাড়া বাকি ১.০৮ শতাংশ ছিল ‘বি’ ক্যাটাগরিভুক্ত, ৬.৮২ শতাংশ ‘এন’ ক্যাটাগরিভুক্ত এবং ০.৬৬ শতাংশ ‘জেড’ ক্যাটাগরিভুক্ত কোম্পানির শেয়ারের দখলে ছিল।

শেয়ারবাজারনিউজ/এম.আর


আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.