আজ: সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ইং, ১৩ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৯শে সফর, ১৪৪৩ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২২ মার্চ ২০১৮, বৃহস্পতিবার |



kidarkar

ডিএসই’র এজিএম অনুষ্ঠিত : একযোগে কাজ করবে সবাই

শেয়ারবাজার রি‌পোর্ট: আজ ২২ মার্চ ২০১৮ তারিখে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের ৫৬তম বার্ষিক সাধারণ সভা মাল্টিপারপাস হল, ডিএসই টাওয়ার, নিকুঞ্জ ঢাকায় অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন ডিএসই’র চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. আবুল হাশেম।

ডিএসই’র ৫৬ তম বার্ষিক সাধারণ সভায় তি‌নি সকলকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, অর্থনৈতিক উন্নয়নের মধ্য দিয়ে সামাজিক সূচক উন্নয়নে পুঁজিবাজারকে আরও সম্পৃক্ত করার লক্ষ্যে ডিএসই কাজ করে যাচ্ছে। বর্তমানে বাংলাদেশ এলডিসি থেকে উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে স্বীকৃত হতে যাচ্ছে যেখানে পুঁজিবাজারের অবদান অনস্বীকার্য্য। প্রযুক্তিগত উৎকর্ষতা, পণ্যের বৈচিত্রতা, বিনিয়োগকারী সচেতনতা ও আস্থা বৃদ্ধিসহ সকল ক্ষেত্রে উন্নয়নের মধ্য দিয়ে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জকে বিশ্বের উন্নত এক্সচেঞ্জগুলোর সাথে এক কাতারে দাড় করানোই ডিএসই’র লক্ষ্য।

গত ৫৫তম বার্ষিক সাধারণ সভায় আমি বলেছিলাম পরিচালনা পর্ষদের পক্ষ থেকে পুঁজিবাজার উন্নয়নের লক্ষ্যে একগুচ্ছ প্রস্তাবনা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনে জমা দেয়া হয়েছে। প্রস্তাবনার মধ্যে কর অবকাশ, ক্লিয়ারিং কোম্পানি গঠন, এসএমই বোর্ড, ট্রেডিং সময় বর্ধিতকরণসহ কৌশলগত বিনিয়োগকারী নিয়োগ ছিল অন্যতম। এই সমস্ত উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডে বিএসইসি এর মনোভাব অত্যন্ত ইতিবাচক ও সহযোগিতাপূর্ণ। আশা করা যাচ্ছে আমাদের অব্যহত প্রচেষ্টা ও কমিশনের সহযোগিতায় এই উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডগুলো খুব শীঘ্রই বাস্তব রূপ লাভ করবে।

তিনি আরও বলেন, ডিএসই’র পরিচালনা পর্ষদ ও ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ গত এক বছর কৌশলগত বিনিয়োগকারী আনার ব্যাপারে অত্যন্ত ব্যস্ত সময় পার করেছে। নিরলস পরিশ্রম ও দীর্ঘ কর্মযজ্ঞের পর বিশ্বের খ্যাতিমান এক্সচেঞ্জ সাংহাই স্টক এক্সচেঞ্জ ও শেনজেন স্টক এক্সচেঞ্জ থেকে ডিএসই’র কৌশলগত বিনিয়োগকারী হওয়ার প্রস্তাব আনতে সক্ষম হয়েছে। এই প্রস্তাব বর্তমানে বিএসইসিতে বিবেচনাধীন আছে।
এছাড়াও অন্যান্য উন্নয়নমূলক কাজ যেমন পাঁচ বছরের কর অবকাশ, ওটিসি মার্কেট উন্নয়ন, স্মল ক্যাপিটাল প্লাটফর্ম, ট্রেডিং সময় বর্ধিতকরণ, মার্কেট মেকার, ইটিএফ ইত্যাদি বিষয়ে অনেক অগ্রগতি হয়েছে। পরিশেষে সকলের অব্যাহত সমর্থন, গঠনমূলক পরামর্শ নিয়েই সামনের চ্যালেঞ্জগুলো মোকাবেলা করার আশাবাদ ব্যক্ত করে সকলের সুসাস্থ্য কামনা করেন।
সভায় বক্তব্য রাখেন বিএলআই সিকিউরিটিজ লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মিনহাজ মান্নান ইমন, ডিএসই ব্রোকার্স এসোসিয়েশন অব বাংলাােদশ (ডিবিএ) এর ভাইস-প্রেসিডেন্ট ও প্রাইলিংক সিকিউরিটিজ লিঃ এর চেয়ারম্যান ডাঃ মোঃ জহিরুল ইসলাম, লঙ্কাবাংলা সিকিউরিটিজ লিঃ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ নাসির উদ্দিন চৌধুরী, শ্যামল ইক্যুইটিজ লিঃ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ সাজেদুল ইসলাম, গ্লোবাল সিকিউরিটিজ লিঃ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক রিচার্ড ডি রোজারিও, মডার্ন সিকিউরিটিজ লিঃ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক খুজস্তা নূর-ই নাহরিন, ডেল্টা ক্যাপিটাল লিঃ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক জিয়েদ রহমান, অলোকো সিকিউরিটিজ লিঃ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক এন. এম. সফিউল কবীর চৌধুরী, কাইয়ূম সিকিউরিটিজ লিঃ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক নাঈম মোঃ কাইয়ূম, গ্রীনল্যান্ড ইক্যুইটিজ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক রাজিব এহসান, ইমিনেন্ট সিকিউরিটিজ লিঃ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক উমর হায়দার খান, ডিএসইর সাবেক প্রেসিডেন্ট এবং মোনা ফাইন্যান্সিয়াল অ্যান্ড সিকিউরিটিজ লিঃ এর চেয়ারম্যান আহসানুল ইসলাম টিটু, এ্যাংকর সিকিউরিটিজ লিঃ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক এ জেড এম নাজিম উদ্দিন, কাজী ফিরোজ রশিদ সিকিউরিটিজ লিঃ এর চেয়ারম্যান কাজী ফিরোজ রশিদ, এমপি, ডিএসই ব্রোকার্স এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ডিবিএ) এর প্রেসিডেন্ট ও ইনভেস্টমেন্ট প্রমোশন সার্ভিসেস লিঃ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোশতাক আহমেদ সাদেক, আইল্যান্ড সিকিউরিটিজ লিঃ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ মহিউদ্দিন, বুলবুল সিকিউরিটিজ লিঃ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক এ এস শাহুদুল হক বুলবুল, আলী সিকিউরিটিজ লিঃ এর চেয়ারম্যান এম. আকবর আলী এবং আনোয়ার সিকিউরিটিজ লিঃ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক আনোয়ার হোসেন।
সভায় সকলেই কৌশলগত বিনিয়োগকারী হিসাবে চীনের কনসোর্টিয়াম সেনজেন স্টক এক্সচেঞ্জ ও সাংহাই স্টক এক্সচেঞ্জকে কৌশলগত বিনিয়োগকারী হিসাবে পাওয়ার আশাবাদ ব্যক্ত করে এবং তা দ্রুততম সময়ের মধ্যে সমাধানের দাবী জানান। সভায় সকলে পুজিবাজারের উন্নয়নে একযোগে কাজ করার আগ্রহ প্রকাশ করেন।
পরে বিপুল সংখ্যক শেয়ারহোল্ডারদের উপস্থিতিতে বার্ষিক সাধারণ সভায় ২০১৭ সালের ৩০শে জুন তারিখে সমাপ্ত অর্থবছরের কোম্পানির পরিচালকমন্ডলীর প্রতিবেদন, নিরীক্ষকবৃন্দের প্রতিবেদন, নিরীক্ষিত আর্থিক বিবরণী গ্রহণ, বিবেচনা ও সর্বসম্মতিভাবে অনুমোদিত হয়। এছাড়াও ৩০ জুন ২০১৭ তারিখে সমাপ্ত অর্থবছর পরিচালনা পর্ষদের সুপারিশকৃত ১০ শতাংশ লভ্যাংশ ঘোষণা সর্বসম্মতিক্রমে অনুমোদিত হয় এবং পরবর্তী অর্থবছরের জন্য নিরীক্ষক নিয়োগ ও তাঁদের পারিতোষিক নির্ধারণ করা হয়।

২০ মার্চ ২০১৮ তারিখে অনুষ্ঠিত পরিচালনা পর্ষদ নির্বাচন ২০১৮ এর আনুষ্ঠানিক ফলাফল ঘোষণা করেন নির্বাচন কমিশনের কমিশনার মঞ্জুর উদ্দিন আহমেদ এবং এর মাধ্যমে বোর্ডে নতুন পরিচালক অন্তর্ভুক্ত করা হয়। উল্লেখ্য যে, ৫৬ তম বার্ষিক সাধারণ সভায় ডিএসইর পরিচালনা পর্ষদ থেকে এ বছর অবসর প্রাপ্ত ১ (এক) জন পরিচালক মোঃ শাকিল রিজভীর স্থলাভিষিক্ত হন মিনহাজ মান্নান ইমন, ব্যবস্থাপনা পরিচালক, বিএলআই সিকিউরিটিজ লিমিটেড।
পরে সভায় বিভিন্ন উন্নয়ন পরিকল্পনা ও বিগত বছরের সাফল্য নিয়ে শেয়ারহোরল্ডারদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন ডিএসইর ব্যবস্থাপনা পরিচালক কে. এ. এম. মাজেদুর রহমান।

 

শেয়ারবাজার‌নিউজ/ম.সা

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.