ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ায় হলুদ!

শেয়ারবাজার ডেস্ক: হলুদ একটি জাদুকরী ভেষজ উপাদান তাৎক্ষণিক এবং স্থায়ী সৌন্দর্যের মূলমন্ত্র হল হলুদ। প্রাচীনকাল থেকেই আমাদের দেশে হলুদের গুরুত্ব অপরিসীম। হলুদ শুধু রান্নায় ব্যবহার করা হয়না, সুন্দর নিখুঁত ত্বকের যত্নেও ব্যবহৃত হয়ে আসছে সৌন্দর্য সচেতন নারীদের রুপচর্চায়। এখনও অনেকেই রুপচর্চার আভিজাত্য হিসেবে হলুদকেই প্রাধান্য দেয়।

চলুন, হলুদের ব্যবহার এবং উপকারিতা সম্পর্কে জেনে নিই-

১) মধু ও হলুদের প্যাক- 
এক চা চামচ হলুদ আর আধ চা চামচ মধু মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করে নিন। ব্রণের উপর লাগিয়ে দশ মিনিট এর মত অপেক্ষা করে ধুয়ে ফেলুন। ব্রণ না শুকোনো পর্যন্ত দিনে একবার লাগাতে হবে। আপনি যদি ত্বকে আগে কখনও হলুদ না লাগিয়ে থাকেন, তবে প্যাচ টেস্ট করে নিবেন।

২) হলুদ ও টক দইয়ের মাস্ক- 
দু’ টেবিলচামচ টকদই আর আধ চা চামচ হলুদ একসঙ্গে ভালো করে মিশিয়ে নিন। ব্রণের জায়গাগুলোতে লাগিয়ে ১৫ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে তিন বার লাগালেই ব্রণ দূর হয়ে যাবে।

৩) নিম ও হলুদের প্যাক- 
ত্বক সুস্থ রাখতে নিমের ব্যবহার বহু প্রচলিত। দরকার ১০-১২টা টাটকা নিমপাতা আর সিকি চামচ হলুদগুঁড়ো। নিমপাতাগুলো জলে ফুটিয়ে বেটে নিন। এবার তাতে হলুদগুঁড়ো মিশিয়ে ভালো করে ব্লেন্ড করে নিন। এখন ব্রণের উপর লাগান। শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা জলের ঝাপটায় ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে দু’বার লাগাতে হবে।

৪) চন্দন ও হলুদের প্যাক- 
শুধু ত্বকই নয়, চন্দনের মনমাতানো গন্ধ আপনার মনকেও শীতল করে তোলে। দু’ টেবিলচামচ চন্দনগুঁড়ো নিন। তার সঙ্গে আধ চা চামচ হলুদগুঁড়ো আর পরিমাণমতো গোলাপজল দিয়ে ভালোভাবে মিশিয়ে পেস্ট করে নিন। ব্রণের উপর লাগিয়ে ১৫-২০ মিনিট রেখে হালকা গরমজলে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে দু’বার লাগাতে হবে।

৫) বেসন ও হলুদের প্যাক- 
এই ফেসপ্যাকটি শুধু ব্রণর উপরেই নয়, সারা মুখেও মাস্ক হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন। এক চা চামচ হলুদগুঁড়ো, দু’চা চামচ বেসন আর তিন চা চামচ গোলাপজল। তিনটি উপাদান একসঙ্গে মিশিয়ে পেস্ট বানিয়ে নিন। মুখ পরিষ্কার করে তারপর সারা মুখে লাগিয়ে নিন। ১৫-২০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলবেন। সপ্তাহে দু’বার করলে ব্রণ তো কমবেই, ত্বক ভরপুর জেল্লাদারও হয়ে উঠবে।

শেয়ারবাজারনিউজ/মু

আপনার মন্তব্য

*

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top