আজ: শনিবার, ২২ জুন ২০২৪ইং, ৮ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৪ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

১২ মে ২০১৫, মঙ্গলবার |

kidarkar

বাজেটে কালো টাকা বিনিয়োগের সুযোগ থাকছে এবারও

muhitশেয়ারবাজার রিপোর্ট: আগামী ২০১৫-১৬ অর্থবছরের বাজেটেও কালো টাকা বিনিয়োগের সুযোগ থাকছে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। তবে সব খাতে বিনিযোগ করা যাবেনা। চলতি বছরের বাজেটের মতো আবাসন ও শিল্পবাণিজ্যের নির্দিষ্ট কিছু খাতে কালো টাকা বিনিয়োগের যাবে। ১১ মে, সোমবার রাতে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় সংসদীয় স্থায়ী কমিটির প্রধানদের সঙ্গে প্রাক-বাজেট আলোচনার পর সাংবাদিকদের এ কথা জানিয়েছেন তিনি।

মুহিত বলেন, ‘আমি পছন্দ করি না করলেও সংসদ সদস্যরা কালো টাকা (অপ্রদর্শিত অর্থ) বিনিয়োগের সুযোগ বহাল রাখার পরামর্শ দিয়েছেন। এখন আইনে যে রকম বিধান আছে সে রকমই রাখতে চাই।

চলতি অর্থবছরে নির্ধারিত করের অতিরিক্ত ১০ শতাংশ কর দিতে কালো টাকা বিনিয়োগের সুযোগ রয়েছে। আর গাড়ি-বাড়ি করের আওতায় আসছে। অর্থমন্ত্রী আরো বলেন, ‘আমাদের দেশে ইন্সটিটিউশনের (ব্যবসা প্রতিষ্ঠান) প্রচুর গাড়ি আছে। এগুলোকে আয়করের আওতায় আনা হবে। এবার আমরা চেষ্টা করছি এনবিআর থেকে জরিপের মাধ্যমে যেসব বাড়ির তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে সে সব বাড়ির ওপর ট্যাক্স লাগিয়ে দেওয়া হবে। তবে কী হারে ট্যাক্স আরোপ করা হবে সে বিষয়ে কিছুই জানাননি তিনি। ব্যক্তিগত গাড়ির রেজিস্ট্রেশন ও নবায়নকালে সিসিভেদে অগ্রিম আয়কর দিতে হয়। একাধিক গাড়ির ক্ষেত্রে নির্ধারিত করের অতিরিক্ত ৫০ শতাংশ দিতে হয়।

কর্পোরেট করের বিষয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, বর্তমানে কর্পোরেট ট্যাক্সের অনেকগুলো স্তর রয়েছে। আগামী বাজেটে এগুলো রেশনালাইজড করা হবে। এছাড়া সিম ট্যাক্স উঠিয়ে দেওয়া হবে বলে জানান তিনি। আর বর্তমানে মাত্র ১১ লাখ লোক ট্যাক্স দেয়। কিন্তু ঢাকায় এর দ্বিগুণ ট্যাক্সপেয়ার উপযুক্ত মানুষ রয়েছে বলে সংসদ সদস্যরা জানিয়েছেন। এনবিআর থেকে পরিচালিত জরিপে যাদের নাম এসেছে এবার তাদের প্রত্যেকের ওপর ট্যাক্স আরোপ করা হবে। ভ্যাট আইন জটিল হলেও ভাল বলে আমার কাছে মনে হয়েছে। সঠিকভাবে হিসাব রাখতে পারলে ভ্যাটের বোঝা কমে যাবে।

উক্ত আলোচনায় এবিএম তাজুল ইসলাম, মুন্নুজান সুফিয়ান, দীপু মনি, রহমতউল্লাহ, সুরঞ্জিত সেনগুপ্তসহ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ারবাজারনিউজ/মু

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.