আজ: শনিবার, ১৯ জুন ২০২১ইং, ৫ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৭ই জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২৫ এপ্রিল ২০২১, রবিবার |


kidarkar

অক্সিজেন সংকট মোকাবিলায় ভারতের পাশে দাঁড়ালো সৌদি আরব

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতে চলছে নভেল করোনাভাইরাসের প্রকোপ। একইসঙ্গে দেশটির একাধিক রাজ্যে দেখা দিয়েছে অক্সিজেনের তীব্র সংকট। এমন পরিস্থিতিতে ভারতকে সহযোগিতা করতে এগিয়ে এসেছে বিভিন্ন দেশ। ভারতকে ৮০ মেট্রিক টন তরল অক্সিজেন সরবরাহ করেছেন মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সৌদি আরব। ভারতীয় দূতাবাসের বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যম সৌদি গেজেট এ খবর জানিয়েছে।

রিয়াদে ভারতীয় দূতাবাসের বরাত দিয়ে সৌদি গেজেট আজ রোববার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে জানিয়েছে, কোভিড-১৯ রোগীদের জন্য প্রয়োজনীয় অক্সিজেনের সংকট মোকাবিলায় সহায়তা করতে ভারতে ৮০ মেট্রিক টন তরল অক্সিজেন পাঠিয়েছে সৌদি আরব।

সৌদি আরবে ভারতীয় দূতাবাস তাদের টুইটারে লিখেছে, ‘ভারতে অতিপ্রয়োজনীয় ৮০ মেট্রিক টন তরল অক্সিজেন পাঠাতে আদানি গ্রুপ ও মেসার্স লিনডের সঙ্গে অংশীদার হতে পেরে ভারতীয় দূতাবাস গর্বিত। সৌদি আরবের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়কে তাদের সাহায্য, সমর্থন ও সহযোহিতার জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ।’

নভেল করোনাভাইরাসের প্রকোপে ভয়াবহ পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যাচ্ছে ভারত। একদিনে শনাক্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা ছাড়িয়ে যাচ্ছে আগের দিনের সংখ্যাকে। ফলে ভঙ্গুর হয়ে পড়ছে ভারতের চিকিৎসাব্যবস্থা। দেখা দিয়েছে তীব্র মাত্রায় অক্সিজেন সংকট। অক্সিজেন সংকটে দেশটিতে অনেক রোগীর মৃত্যু হচ্ছে বলেও উঠে এসেছে বিভিন্ন গণমাধ্যমে। এমন পরিস্থিতিতে ভারতের পাশে দাঁড়াতে চাইছে প্রতিবেশী দেশ পাকিস্তানও।

বর্তমান পরিস্থিতি মোকাবিলায় ভারতকে ভেন্টিলেটর, বাইপ্যাপ, ডিজিটাল এক্স-রে মেশিন, ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জামসহ (পিপিই) বিভিন্ন সামগ্রী পাঠানোর প্রস্তাব দিয়েছে পাকিস্তান। পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে গতকাল শনিবার এক টুইটবার্তায় এ সহযোগিতার কথা উল্লেখ করা হয়। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমসের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

গত তিন দিনে ভারতে ১০ লাখের বেশি মানুষের করোনা ধরা পড়েছে এবং সাড়ে সাত হাজারের বেশি মানুষ প্রাণ হারিয়েছে। টাইমস অব ইন্ডিয়ার খবরে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, শনিবার দেশজুড়ে তিন লাখ ৪৯ হাজারের বেশি মানুষের করোনা শনাক্ত হয় এবং এদিন করোনায় মৃত্যু হয়েছে দুই হাজার ৭৬০ জনের।

এর মধ্য দিয়ে টানা চতুর্থ দিন ভারতে তিন লাখের বেশি মানুষের করোনা শনাক্ত হলো আর মৃতের সংখ্যা দুই হাজারের বেশি রয়েছে টানা পাঁচদিনের মতো।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.