আজ: বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১ইং, ১০ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১২ই জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২৪ মে ২০২১, সোমবার |


kidarkar

অবশেষে দেখা গেল অং সান সু চিকে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: দীর্ঘ প্রায় চার মাস পর দেখা গেল মিয়ানমারে জান্তা সরকারের হাতে গ্রেফতার নোবেলজয়ী নেত্রী অং সান সু চি’র।

রয়টার্সের খবরে বলা হয়, সোমবার (২৪ মে) আদালতে মামলার শুনানির জন্য নেওয়া হয় সু চিকে।

গত ১ ফেব্রুয়ারি সেনা অভ্যুত্থানে ক্ষমতাচ্যুত হন সু চি। এরপর থেকেই তাঁকে আর জনসম্মুখে দেখা যায়নি। সু চির বিরুদ্ধে রাষ্ট্রের গোপন আইন ভঙ্গের অভিযোগ আনা হয়েছে।

আদালতে এই নোবেল জয়ী নেত্রী তার আইনজীবীকে বলেন, যতদিন জনগণ থাকবে, ততদিন তার দল ন্যাশনাল লীগ ফর ডেমোক্রেসিও (এনএলডি) থাকবে।

সম্প্রতি জান্তা সরকারের নিযুক্ত নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে, নির্বাচনে জালিয়াতির অভিযোগে এনএলডিকে বিলুপ্ত করা হবে।

সু চির আইনজীবী থায়ে মং মং বলেন, সু চি সুস্থ আছেন। শুনানির আগে আইনজীবীদের সঙ্গে তিনি প্রায় আধঘণ্টা বৈঠক করেন।

বৈঠকে সু চি মিয়ানমারের জনগণের সুস্বাস্থ্য কামনা করেন।

গত নভেম্বরে সু চির বিরুদ্ধে নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ এনে ক্ষমতা দখল করে সেনাবাহিনী। সেনা অভ্যুত্থানের পর আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমকে দেওয়া প্রথম সাক্ষাৎকারে জান্তা সরকারের প্রধান মিন অং হ্লাইং জানান, সুচি সুস্থ আছেন।

অভ্যুত্থানের পর থেকে চলা সেনা অভিযানে নিহত ব্যক্তিদের সংখ্যা নিয়েও ভিন্ন তথ্য দেন তিনি।

অ্যাসিসট্যান্স অ্যাসোসিয়েশন ফর পলিটিক্যাল প্রিজনার্স বলছে, সেনা অভিযানে মিয়ানমারে ৮০০ জনের বেশি মানুষ নিহত হয়েছেন। তবে ২০ মে এক সাক্ষাৎকারে মিন অং হ্লাইং বলেন, অভিযানে ৩০০ জন নিহত হয়েছেন।

এ ছাড়া ৪৭ পুলিশ নিহত হয়েছেন। মিয়ানমারে সু চির মুক্তি দাবিতে ও সেনা অভিযানের প্রতিবাদে বিক্ষোভ, সংঘর্ষ চলছে।

সু চির আইনজীবী থায়ে মং মং জানান, সু চির পরবর্তী শুনানি হবে ৭ জুন। তিনি বলেন, ক্ষমতাচ্যুত সাবেক প্রেসিডেন্ট উইন মিন্টের সঙ্গেও সোমবার তার সাক্ষাৎ হয়েছে।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.