আজ: রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪ইং, ১৯শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ২১শে শাবান, ১৪৪৫ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২২ ডিসেম্বর ২০২১, বুধবার |

kidarkar

ইউরোপকে- ডব্লিউএইচওর সতর্কতা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইউরোপে ওমিক্রন ধরন ছড়িয়ে পড়ায় করোনা’র সংক্রমণ ‘উল্লেখযোগ্য হারে’ বেড়েছে বলে সতর্ক করেছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডাব্লিউএইচও) ইউরোপীয় অঞ্চলের প্রধান হ্যান্স ক্লুগ। তিনি বলেন, আমরা দেখতে পাচ্ছি আরেকটি ঝড় আসছে। সুরক্ষার জন্য ব্যাপকভাবে বুস্টার ডোজ প্রদানেরও পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

মঙ্গলবার (২১ ডিসেম্বর) ভিয়েনায় এক সংবাদ সম্মেলনে হ্যান্স ক্লুগ বলেন, নভেম্বরের শেষের দিকে এটি দেখা দেওয়ার পর, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ইউরোপীয় অঞ্চলের ৫৩টি দেশের মধ্যে ৩৮ট দেশে ওমিক্রন শনাক্ত হয়েছে। এরমধ্যে ডেনমার্ক, পর্তুগাল ও যুক্তরাজ্যসহ কয়েকটি দেশে প্রভাব বিস্তার করেছে।

ক্লুগ বলেন, কয়েক সপ্তাহের মধ্যে ইউরোপীয় অঞ্চলের আরও কয়েকটি দেশে ওমিক্রন দাপট দেখাবে। ইতিমধ্যে দুর্বল হয়ে পড়া স্বাস্থ্য ব্যবস্থাকে আরও কিনারায় ঠেলে দেবে।

হ্যান্স ক্লুগ বলেন, করোনা’র নতুন এই ভ্যারিয়েন্টের সংক্রমণের কারণে হাসপাতালগুলো ভরে উঠতে পারে। স্বাস্থ্যব্যবস্থা ও অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ সেবাগুলো হুমকির সম্মুখীন হতে পারে। ইউরোপের দেশগুলোর সরকার ও কর্তৃপক্ষকে এখনই এই ব্যাপারে দ্রুত পদক্ষেপ নিতে হবে।

ইউরোপে এরই মধ্যে কয়েকটি দেশ নতুন ধরন নিয়ে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিয়েছে। জার্মানি অনুষ্ঠান সংক্ষেপ করাসহ বড়দিন পরবর্তী নতুন বিধি-নিষেধ আরোপ করেছে। এদিকে, পর্তুগাল ২৬ ডিসেম্বর থেকে পানশালা ও নাইটক্লাবগুলো বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে এবং ২৬ ডিসেম্বর থেকে ৯ জানুয়ারি পর্যন্ত হোম অফিস বাধ্যতামূলক করেছে। একই সংগে ১০ জনের বেশি জনসমাগম নিষিদ্ধ করেছে দেশটি।

উল্লেখ্য, দক্ষিণ আফ্রিকায় শনাক্ত ওমিক্রন (বি.১.১৫২৯) ডেলটার চেয়েও বেশি সংক্রামক বলে বিশেষজ্ঞরা মতামত প্রকাশ করেছেন। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এই ধরন সম্পর্কে সতর্ক করেছে। যুক্তরাজ্যসহ অনেক দেশ দক্ষিণ আফ্রিকা, নামিবিয়া, জিম্বাবুয়ে, বতসোয়ানা এবং লেসোথোর সংগে যোগাযোগ বন্ধ করেছে।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.