আজ: মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪ইং, ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১১ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২১ জুন ২০২২, মঙ্গলবার |

kidarkar

ইয়ামাহা রাইডার্স ক্লাবের ব্যতিক্রমী আয়োজন “সেফ রোড ফর অল”

নিজস্ব প্রতিবেদক: মানুষকে স্বল্প সময়ে গন্তব্যে পৌঁছিয়ে দেওয়ার জন্য মোটরসাইকেল একটি অপরিহার্য ও গুরুত্বপূর্ণ যানবাহন। চাহিদার সাথে সঙ্গতি রেখে বিশ্বব্যাপী ব্যবসায়িকভাবে বড় হচ্ছে মোটরসাইকেলের বাণিজ্যিক বাজার। বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে এবং মানুষের আর্থিক সক্ষমতা বৃদ্ধির সাথে সাথে এই দুই চাকার যানবাহনের প্রসার আরও উল্লেখযোগ্য হারে বাড়ছে। বর্তমানে মোটরসাইকেল এতই গুরুত্বপূর্ণ বাহন যে, করোনার মধ্যে যখন মানুষ মহামারীতে দুর্বিষহ জীবন যাপন করছিল, তখন মোটরসাইকেল মানুষের জরুরী যাতায়াত এবং সেবায় সহায়ক ভুমিকা পালন করে। স্বল্প ভাষায় বলা যায়, মোটরসাইকেল একটি সময়োপযোগী ও সময় সাশ্রয়ী যানবাহন।

মোটরসাইকেলের বিভিন্ন উপকারিতা থাকলেও এর জন্য কিছু বিশেষ সাবধানতার প্রয়োজন রয়েছে। রাস্তায় দুর্ঘটনা কিভাবে কমিয়ে আনা যায়, কিভাবে যানবাহন ও রাস্তাকে আরও নিরাপদ করা যায়, তার উপায় খুঁজতে ২১ জুন ২০২২ তারিখে “বিশ্ব মোটরসাইকেল দিবস” উপলক্ষে ইয়ামাহা রাইডিং ক্লাবের আয়োজনে এবং ইয়ামাহা রাইডিং একাডেমীর সহযোগিতায় রাজধানীর মহাখালী বাস টার্মিনালে “সেফ রোড ফর অল” শিরোনামে একটি মতবিনিময় ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। এই আয়োজনে মোটরসাইকেল চালক ও বাসের ড্রাইভারগণ অংশগ্রহণ করেন। অনুষ্ঠানে ইয়ামাহা রাইডিং একাডেমীর প্রশিক্ষকগণ অংশগ্রহণ করেন এবং তাদের দক্ষতা ও অভিজ্ঞতা বিনিময় করেন।

মতবিনিময় শেষে, সবাই কিছু সুপারিশ বা দিক নির্দেশনার উল্লেখ করেন। যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো: যথাযথ ট্রাফিক আইন মেনে চলা ও ড্রাইভিং লাইসেন্স নিয়ে যানবাহন ড্রাইভিং করা, নির্দিষ্ট লেনে গাড়ি চালানো, রাস্তায় নির্দেশিত গতিবেগ ও অন্যান্য দিক নির্দেশনা মেনে চলা, মোটরসাইকেলে অবশ্যই হেলমেট ব্যবহার করা, নিয়মিত গাড়ির সার্ভিসিং ও মেইনটেনেন্স করা, দীর্ঘ যাত্রায় ড্রাইভিং এর মাঝে বিরতি নেওয়া, বিশেষ করে ঢাকা ও অন্যান্য বড় শহরে মোটরসাইকেল এর জন্য আলাদা লেন তৈরি করা সহ নানা বিষয়ে আলোকপাত করেন।

দেশের উদ্যেমী ও তারুণ্য নির্ভর সবচেয়ে বড় বাইকিং গ্রæপ ইয়ামাহা রাইডারস্ ক্লাব (ওয়াইআরসি) সার্বিক ও সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে বিভিন্ন সময়ে ব্যতিক্রমী মানবিক কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। এছাড়াও সারা দেশে দক্ষ মোটরসাইকেল রাইডার তৈরিতে নির্ভরতার সাথে কাজ করে চলেছে ইয়ামাহা রাইডিং একাডেমী (ওয়াইআরএ)। আর এরই ধারাবাহিকতায় নিরাপদ সড়ক নিশ্চিতে ইয়ামাহা রাইডিং একাডেমীর সহায়তায় বাস চালক এবং মোটরসাইকেল রাইডারদের সম্মিলনে এই প্রোগ্রামটি আয়োজন করে ইয়ামাহা রাইডারস্ ক্লাব।

১ টি মতামত “ইয়ামাহা রাইডার্স ক্লাবের ব্যতিক্রমী আয়োজন “সেফ রোড ফর অল””

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.