আজ: শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ইং, ১১ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ১২ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

৩০ অগাস্ট ২০২২, মঙ্গলবার |

kidarkar

কিংবদন্তি সংগীতশিল্পী আবদুল জব্বারের মৃত্যুবার্ষিকী আজ

বিনোদন ডেস্ক : আজ ৩০ আগস্ট, কিংবদন্তি সংগীতশিল্পী আবদুল জব্বারের পঞ্চম মৃত্যুবার্ষিকী। ২০১৭ সালের এই দিনে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

আব্দুল জব্বার ১৯৩৮ সালের ৭ নভেম্বর কুষ্টিয়া জেলায় জন্মগ্রহণ করেন।

১৯৫৮ সালে তৎকালীন পাকিস্তান বেতারে গান গাওয়া শুরু করেছিলেন আব্দুল জব্বার। ১৯৬২ সালে চলচ্চিত্রে প্রথম গান গেয়েছিলেন। পরে ১৯৬৪ সাল থেকে বিটিভির তালিকাভুক্ত শিল্পী ছিলেন তিনি।

মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে স্বাধীন বাংলা বেতারকেন্দ্র থেকে প্রচারিত ‘সালাম সালাম হাজার সালাম’, ‘জয় বাংলা বাংলার জয়’ সহ অনেক দেশাত্মবোধক গানে কণ্ঠ দিয়েছেন আব্দুল জব্বার।

‘তুমি কি দেখেছ কভু জীবনের পরাজয়’, ‘সালাম সালাম হাজার সালাম’ এবং ‘জয় বাংলা বাংলার জয়’ গান ৩টি ২০০৬ সালের মার্চ মাসজুড়ে বিবিসি বাংলার আয়োজনে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাংলা ২০ গানের মধ্যে স্থান করে নেয়।

১৯৬৮ সালে ‘পিচ ঢালা পথ’ সিনেমায় রবীন ঘোষের সুরে ‘পিচ ঢালা এই পথটারে ভালোবেসেছি’ ও ‘ঢেউয়ের পর ঢেউ’ সিনেমায় রাজা হোসেন খানের সুরে ‘সুচরিতা যেও নাকো, আর কিছুক্ষণ থাকো’ গানে কণ্ঠ দেন তিনি।

১৯৬৪ সালে জহির রায়হান পরিচালিত ‘সংগম’ সিনেমার গানে কণ্ঠ দেন  আব্দুল জব্বার। ১৯৬৮ সালে ‘এতটুকু আশা’ ছবিতে সত্য সাহার সুরে তার গাওয়া ‘তুমি কি দেখেছ কভু’ গানটি খুবই জনপ্রিয় হয়।

১৯৭৮ সালে ‘সারেং বৌ’ সিনেমায় আলম খানের সুরে আব্দুল জব্বারের কণ্ঠে ‘ও রে নীল দরিয়া’ গানটি বাংলা গানের একটি মাইলফলক।

সংগীতে অসামান্য অবদানের জন্য আব্দুল জব্বার ১৯৭৩ সালে বঙ্গবন্ধু স্বর্ণপদক, ১৯৮০ সালে একুশে পদক, ১৯৯৬ সালে স্বাধীনতা পুরস্কার পেয়েছেন।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.