আজ: মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪ইং, ১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৮ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, বুধবার |

kidarkar

সাউথ এশিয়ান বিজনেস এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড ২০২২-এ পাঁচটি ট্রফি জিতেছে ব্র্যাক ব্যাংক

নিজস্ব প্রতিবেদক : ডিজিটাল ট্রান্সফর্মেশন অগ্রযাত্রা, সামাজিক এবং টেকসই উদ্যোগের স্বীকৃতি হিসেবে ‘বেস্ট ইন্টারনেট ব্যাংকিং সার্ভিস প্রোভাইডার বেস্ট ইউজ অব মোবাইল টেকনোলজি ইন ব্যাংকিং সেক্টর বেস্ট ইউজ অব আইটি অ্যান্ড টেকনোলজি  বেস্ট ইউজ অব সিএসআর প্র্যাকটিসেস ডিউরিং প্যান্ডেমিক এবং সাসটেইনেবল ব্যাংক অব দ্য ইয়ার পুরস্কার অর্জন করেছে ব্র্যাক ব্যাংক।

গ্রাহক, কর্মকর্তা, মানুষ ও সমাজের কল্যাণে ব্যবসা, উদ্ভাবন এবং সামাজিক দায়বদ্ধতায় ক্ষেত্রে দক্ষিণ এশীয় অঞ্চলে অগ্রণী ভূমিকা পালনের স্বীকৃতিস্বরূপ ব্র্যাক ব্যাংককে এই পুরস্কার প্রদান করা হয়েছে। পুরষ্কারগুলি ব্যাংকের ধারাবাহিক ব্যবসায়িক সাফল্য, গ্রাহকদের উৎকর্ষ ব্যাংকিং অভিজ্ঞতা প্রদানের জন্য অত্যাধুনিক প্রযুক্তি এবং মহামারীর প্রবল প্রকোপের সময়েও গৃহিত অসাধারণ সামাজিক উদ্যোগের প্রমাণ দেয়।

সাউথ এশিয়ান বিজনেস এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ডস ক্রমবর্ধমান প্রতিযোগিতামূলক বাজারে কর্পোরেট জগতের অসাধারণ উদ্যোগসমূহকে উদযাপন ও উৎসাহিত করে। দক্ষিণ এশিয়ায় ব্যবসায়িক খাতে উৎকর্ষতাকে স্বীকৃতি প্রদানের জন্য প্রতি বছর এই পুরস্কারের আয়োজন করা হয়। এই অনুষ্ঠানে ভারত, পাকিস্তান, নেপাল, বাংলাদেশ, ভুটান, আফগানিস্তান, শ্রীলঙ্কা এবং মালদ্বীপের আর্থিক ও কর্পোরেট সেক্টরের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত হন।

২২ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ঢাকার প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলে আয়োজিত পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী এম. এ. মান্নান এম.পি.’র কাছ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে পুরস্কার গ্রহণ করেন ব্র্যাক ব্যাংক-এর ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর অ্যান্ড হেড অব কর্পোরেট ব্যাংকিং তারেক রেফাত উল্লাহ খান।

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ব্র্যাক ব্যাংক-এর হেড অব রিটেইল ব্যাংকিং মো. মাহীয়ুল ইসলাম, হেড অব কমিউনিকেশনস ইকরাম কবীর, হেড অব ব্রাঞ্চেস শেখ মোহাম্মদ আশফাক, হেড অব ডিজিটাল বিজনেস অ্যান্ড পেমেন্টস মোঃ রাশেদুল হাসান স্ট্যালিন, হেড অব ডিজিটাল ব্যাংকিং শেখ সানজুর আহমেদ, এবং হেড অব প্রজেক্ট ম্যানেজমেন্ট এসএম পারভেজ ইসলাম।

ব্র্যাক ব্যাংক প্রধান প্রধান আর্থিক মানদন্ডে দেশের ব্যাংকিং খাতে শীর্ষস্থানে অবস্থান করছে। কর্পোরেট গভর্নেন্স ও মূল্যবোধ ভিত্তিক ব্যাংকিংয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। ব্যাংকের ডিজিটাল ট্রান্সফর্মেশন অগ্রযাত্রার প্রধান উদ্দেশ্য হচ্ছে বিশ্বসেরা প্রযুক্তি ব্যবহার করে গ্রাহকদের স্বাচ্ছন্দ্যময় ও আনন্দময় ব্যাংকিং অভিজ্ঞতা প্রদান, পরিচালনাগত কর্মদক্ষতা অর্জন এবং গ্রাহকদের সেবা প্রদানে দ্রুততা নিশ্চিত করা। ব্যাংকটি অত্যাধুনিক প্রযুক্তির সুফল পেতে এবং আগামী বছরগুলোতে তাৎপর্যপূর্ণ ব্যবসায়িক প্রবৃদ্ধি অর্জনের জন্য সচেষ্ট। মহামারি শুরুর পর থেকে কর্মচারী ও তাদের পরিবারের নিরাপত্তার জন্য ব্যাংকের সক্রিয় উদ্যোগ এবং গ্রাহকদের নিরবচ্ছিন্ন সেবা প্রদান অর্জন করেছে প্রশংসা।

পুরস্কার প্রাপ্তি সম্পর্কে ব্যাংকের ম্যানেজিং ডিরেক্টর অ্যান্ড সিইও সেলিম আর. এফ. হোসেন বলেন, “আর্থিক, উদ্ভাবনী ও কর্পোরেট সুশাসন মানদন্ডে ব্র্যাক ব্যাংক বাংলাদেশের ব্যাংকিং খাতে অগ্রগামী অবস্থানে আছে। আমরা এখন বিগত বছরগুলোতে প্রযুক্তি, মানবসম্পদ ও প্রসেস-এ করা বিনিয়োগের সুফল পাচ্ছি। এর ফলে আমাদের গ্রাহকবৃন্দ উপকৃত হচ্ছে। এই ডিজিটাল যুগে গ্রাহকদের ব্যাংকিং অভিজ্ঞতা আরও উন্নত করার লক্ষ্যে আমরা আমাদের প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখবো।”

তিনি আরও বলেন, “এই পুরস্কারটি ব্র্যাক ব্যাংক-কে দেশের সেরা ব্যাংক হওয়ার চূড়ান্ত লক্ষ্যের দিকে এগিয়ে যেতে আরও এক ধাপ এগিয়ে দেবে। ব্যাংকের উপর অবিচল আস্থা রাখার জন্য আমরা সম্মানিত গ্রাহক ও স্টেকহোল্ডারদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। তাঁদের আস্থা এ ধরনের আন্তর্জাতিক সম্মান অর্জনে আমাদের সহায়তা করে।”

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.