আজ: শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪ইং, ১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৪ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০২ জানুয়ারী ২০২৩, সোমবার |

kidarkar

বছরের ব্যবধানে বিও হিসাব কমেছে দেড় লাখের বেশি

নিজস্ব প্রতিবেদক : সদ্য সমাপ্ত ২০২২ সালে বেশিরভাগ সময় মন্দাবস্থায় পার করেছে দেশের পুঁজিবাজার। এতে পুঁজিবাজার থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে বিনিয়োগকারীরা। এর ফলে দেশের পুঁজিবাজারে কমেছে বিও হিসাবের সংখ্যা। গত এক বছরে দেড় লাখেরও বেশি বিও হিসাব কমেছে।

সেন্ট্রাল ডিপজিটরি বাংলাদেশ লিমিটেডের (সিডিবিএল) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা গেছে, ২০২১ সালের শেষ কার্যদিবস পুঁজিবাজারে বিও হিসাব ছিল ২০ লাখ ৩৪ হাজার ৩৯৯টি। আর বিদায়ী বছরে অর্থাৎ ২০২২ সালের শেষ কার্যদিবস বিও হিসাব দাঁড়ায় ১৮ লাখ ৬১ হাজার ৩০১টিতে। অর্থাৎ বছরের ব্যবধানে এক লাখ ৭০ হাজার ০৯৮টি বিও হিসাব কমেছে।

২০২১ সালের শেষ কার্যদিবস পুরুষদের বিও হিসাব ছিল ১৫ লাখ ১১ হাজার ৭৩৪টি। ২০২২ সালের শেষ কার্যদিবস পুরুষদের বিও হিসাব দাঁড়ায় ১৩ লাখ ৮৯ হাজার ৮৯০টিতে। অর্থাৎ বছরের ব্যবধানে পুঁজিবাজার থেকে ১ লাখ ২১ হাজার ৮৪৪ পুরুষ বিও হিসাব কমেছে।

২০২২ সালের শেষ কার্যদিবস নারীদের বিও হিসাব দাঁড়ায় ৪ লাখ ৫৫ হাজার ০২৪টিতে। ২০২১ সালের শেষ কার্যদিবস নারীদের বিও হিসাব ছিল ৫ লাখ ০৭ হাজার ৩১৫টিতে। অর্থাৎ বছরের ব্যবধানে পুঁজিবাজার থেকে ৫২ হাজার ২৯১ নারী বিও হিসাব কমেছে।

২০২১ সালের শেষ কার্যদিবস কোম্পানি বিও হিসাব ছিল ১৫ হাজার ৩৫০টি। আর ২০২২ সালের শেষ কার্যদিবস কোম্পানি বিও হিসাব দাঁড়ায় ১৬ হাজার ৩৮৭টিতে। অর্থাৎ বছরের ব্যবধানে কোম্পানি বিও হিসাব এক হাজার ৩৭টি বেড়েছে।

বিদায়ী বছর অর্থাৎ ২০২২ সালের শেষ কার্যদিবস দেশে অবস্থানকারী বিনিয়োগকারীদের এক লাখ ৫০ হাজার ৮৯১টি কমে দাঁড়ায় ১৭ লাখ ৮১ হাজার ৭৯৭টিতে। ২০২১ সালের শেষ কার্যদিবস দেশি বিনিয়োগকারীদের বিও হিসাব ছিল ১৯ লাখ ৩২ হাজার ৬৮৮টিতে।

২০২১ সালের শেষ কার্যদিবস বিদেশে অবস্থানকারী বিনিয়োগকারীদের বিও হিসাব ছিল ৮৬ হাজার ৩৬১টিতে। বিদায়ী বছর অর্থাৎ ২০২২ সালে বিদেশে অবস্থানকারী বিনিয়োগকারীদের বিও হিসাব ২৩ হাজার ২৪৪টি কমে দাঁড়ায় ৬৩ হাজার ১১৭টিতে।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.