আজ: সোমবার, ২৭ মে ২০২৪ইং, ১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৭ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০৩ জানুয়ারী ২০২৩, মঙ্গলবার |

kidarkar

নতুন প্রেমে মজেছেন ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টার নেইমার !

স্পোর্টস ডেস্ক : বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে বিদায়ের পর দেশে ফিরে গিয়েই পার্টি দিয়েছিলেন ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমার। এবার নতুন খবর। নতুন প্রেমে মেজেছেন পিএসজির এই তারকা ফুটবলার। যার প্রেমে এখন তিনি হাবুডুবু খাচ্ছেন, তিনিও একজন ব্রাজিলিয়ান।

মডেল অভিনেত্রী, ডিজিটাল ইনফ্লুয়েন্সার। নাম জেসিকা তুরিনি। যনি ২০১৪ সালে ব্রাজিলের অন্যতম প্রদেশ এস্পিরিটো সান্তো-এর ‘মিস এসপিরিটো সান্তো’র একজন প্রতিযোগী ছিলেন। ব্রাজিলিয়ান সংবাদমাধ্যম জি শো.গ্লোবো পত্রিকার বরাত দিয়ে এ সংবাদ ছাপিয়েছে স্প্যানিশ ক্রীড়া দৈনিক মার্কা।

কাতার বিশ্বকাপ চলাকালেই জেসিকা তুরিনকে ব্রাজিলের খেলার সময় স্টেডিয়ামের গ্যালারিতে দেখা গেছে। ওই সময় নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করা বেশ কিছু ছবিও দৃষ্টি আকর্ষণ করে নেটিজেনদের। এছাড়া নেইমারের গোল করার পর তার স্বাক্ষর সম্বলিত ব্রাজিল জার্সিতে চুমু খেতেও দেখা যায় জেসিকা তুরিনিকে।

নতুন বছরের শুরুতে ফ্রান্সেও দেখা গেছে তুরিনিকে। নতুন বছরকে বরণ করে নেয়ার জন্য নেইমার যে অনুষ্ঠান আয়োজন করেন, সেখানে তিনি অনেককেই দাওয়াত করেন। দেখা গেছে সেই দাওয়াত পাওয়া অতিথিদের তালিকায় রয়েছেন তুরিনিও।

২৭ ডিসেম্বর ব্রাজিলিয়ান এই মডেল এসে হাজির হন ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে। এখান থেকেই নিজের আবেগভরা ছবি পোস্ট করেন সোশ্যাল মিডিয়ায়।

এক্সট্রা.গ্লোবো লিখেছে, ‘ব্রাজিলিয়ান সুন্দরী এই তরুণীকে এর আগে কাতার বিশ্বকাপেও ব্রাজিলের ম্যাচগুলোর দিন স্টেডিয়ামে দেখা গেছে।’

জেসিকা তুরিনির এখন বসবাস সাও পাওলোয়। সেখানে তিনি কার্ট রেসিংয়ে অংশ নেন। নতুন বছরে সার্ফিংয়েও নাম লেখাচ্ছেন। মডেলিং ছাড়াও তার লিঙ্কড ইন প্রোফাইলের মাধ্যমে জানা যায়, পারিবারিক ব্যবসার সঙ্গেও জড়িত তিনি। একটি অটোমেশন কোম্পানি গড়ে তুলেছে জেসিকার পরিবার। তিনি নিজে সেই কোম্পানির কন্ট্যাক্ট ম্যানেজার।

তবে ব্রাজিলিয়ান সংবাদ মাধ্যমে নেইমারের নতুন প্রেমের গুঞ্জন নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করা হলেও এ নিয়ে খোদ নেইমারের কোনো প্রতিক্রিয়ার কথা জানায়নি তারা।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.