আজ: শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ইং, ১১ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ১২ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

১১ জানুয়ারী ২০২৩, বুধবার |

kidarkar

ফুটবলকে বিদায় জানালেন ফ্রান্সের বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক

স্পোর্টস ডেস্ক : একদিন আগেই হঠাৎ বুট তুলে রাখার ঘোষণা দিয়েছিলেন বিশ্বের অন্যতম সেরা ফুটবলার গ্যারেথ বেল। তার অবসর ঘোষণার রেশ কাটতে না কাটতেই আন্তর্জাতিক ফুটবলকে বিদায় বলে দিয়েছেন ফ্রান্সের বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক হুগো লরিস। ২০১৮ সালে তার নেতৃত্বেই বিশ্বকাপ ট্রফি জিতেছিলো ফ্রান্স। ২০২২ সালেও তার নেতৃত্বে বিশ্বকাপের ফাইনাল খেলেছিলো ফরাসীরা।

সব মিলিযে ফ্রান্সের হয়ে প্রায় ১৪ বছর ফুটবল খেলছেন হুগো লরিস। দীর্ঘ যাত্রার পর এবার ইতি টানলেন আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে। আন্তর্জাতিক ফুটবলে অসাধারণ একটি ক্যারিয়ার পার করেছেন তিনি। তার নেতৃত্বে একটি ইউরোর ফাইনাল খেলেছে ফ্রান্স। দু’বার খেলেছে বিশ্বকাপ ফাইনাল। একবার বিশ্বকাপ ট্রফিটা উঁচিয়ে ধরার গৌরবও অর্জন করেছিলেন। শেষবার মেসির আর্জেন্টিনার কাছে হেরে যান পেনাল্টি শ্যুটআউটে।

ফ্রান্সের হয়ে ১৪৫টি ম্যাচ খেলেছেন লরিস। তিনিই ফ্রান্সের হয়ে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলা ফুটবলার। নিজের অবসরের সঙ্গে লরিস ফ্রান্সের পরবর্তী গোলরক্ষক কে হবেন, সেটাও জানিয়ে দিয়েছেন। লরিস বলেন, ‘একটা সময় আসে যখন পরের জনকে জায়গা ছেড়ে দিতে হয়। আমি বার বার বলেছি যে, ফ্রান্স দলটা কারও ব্যক্তিগত সম্পত্তি নয়। আমি জানি আমাকে ছাড়াও মাঠে নামার বাকি দল তৈরি। গোলরক্ষক হিসাবে তৈরি মাইক মেগনানও।’

৩৬ বছরের লরিস জানিয়েছেন, পরিবারের সঙ্গে সময় কাটানোর জন্যই আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার শেষ করলেন তিনি। লরিস বলেন, ‘নিজের সেরা সময় থাকতে থাকতেই অবসর নেওয়া ভাল। যে সময় আমার খেলার মান কমে যাবে, তখন অনেকে চলে আসবে আমার জায়গা নেওয়ার জন্য। তার চেয়ে নিজে ছেড়ে দেওয়া ভাল। সে সঙ্গে আমার মনে হয় পরিবারের সঙ্গে আরও বেশি সময় কাটানো উচিত। আমার স্ত্রী এবং সন্তানদের সময় দিতে চাই।’

২৪ মার্চ নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে খেলতে নামবে ফ্রান্স। ২০২৪ সালের ইউরোর বাছাই পর্বের ম্যাচে লরিসের জায়গায় অবশ্য ফ্রান্সের এক নম্বর গোলরক্ষক কে হবেন তা ঠিক করবেন কোচ দিদিয়ের দেশম।

লরিসের আগে অবসর নেন ফ্রান্সের করিম বেনজেমা। তাকে এ বারের বিশ্বকাপে পাওয়া যায়নি। চোটের কারণে খেলতে পারেননি তিনি। বিশ্বকাপ শেষ হওয়ার পরের দিনই আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে অবসরের ঘোষণা দেন বেনজেমা।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.