আজ: মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪ইং, ১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৮ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, রবিবার |

kidarkar

বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটিতে নবাগত ছাত্রছাত্রীদের নবীন বরণ অনুষ্ঠিত।

নিজস্ব প্রতিবেদক: জ্ঞান আহরণের জন্য শুধুমাত্র পাঠ্য বইয়ের শিক্ষাই যথেষ্ঠ নয়। ত্যাগ ছাড়া মহৎ কোনো সৃষ্টি সম্ভব নয়। দেশ তোমাদের কি দিলো, তার চেয়ে তোমরা দেশের জন্য কি দিতে পারলে সেটাই বড় বিষয়।

দেশের অন্যতম বেসরকারি বিশ^বিদ্যালয় বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটির নবাগত ছাত্রছাত্রীদের নবীন বরণ অনুষ্ঠানে বক্তারা এসব কথা বলেন। আজ রোববার (৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩) সকালে মোহাম্মদপুরের আদাবরস্থ ইউনিভার্সিটির স্থায়ী ক্যাম্পাসে বিশ^বিদ্যালয়ের স্প্রিং সেমিস্টারে ভর্তিকৃত নবীন শিক্ষার্থীদের ফুল দিয়ে বরণ করে নেওয়া হয়।

নবীন শিক্ষার্র্থীদের বরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য, সাবেক প্রতিমন্ত্রী এডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের সদস্য প্রফেসর ড. মোঃ সাজ্জাদ হোসেন। সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রেনেসাঁ গ্রুপের পরিচালক আয়েশা আক্তার ডালিয়া। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. মো: জাহাঙ্গীর আলম।

অনুষ্ঠানে নবীন শিক্ষার্থীদের স্বাগত জানিয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, সুন্দর শিক্ষার পরিবেশ ও অভিজ্ঞ শিক্ষকবৃন্দ দ্বারা পরিচালিত বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। দেশের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত এ ইউনিভার্সিটির গ্র্যাজুয়েটগন দেশে ও বিদেশে নিজ যোগ্যতায় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে চাকরি পাচ্ছে এবং তারাই এ বিশ্ববিদ্যালয়ের সুনাম পৃথিবীর নানা প্রান্তে ছড়িয়ে দিচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, আমি যেনে আনন্দিত হয়েছি যে, কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতেও এ বিশ্ববিদ্যালয় অত্যন্ত দক্ষতার সাথে তার শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করেছে। তিনি শিক্ষার্থীদের পাঠ্যপুস্তক ছাড়াও বিভিন্ন ধরণের বই পড়ার উপর গুরুত্বারোপ করেন। একইসাথে তিনি বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটির চলমান শিক্ষার পরিবেশ উন্নয়নে তাঁর সর্বাত্মক সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ছাত্রছাত্রীদের উদ্দেশে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের সদস্য প্রফেসর ড. মোঃ সাজ্জাদ হোসেন বলেন, শিক্ষা জীবনে আজকের এ অনুষ্ঠান তোমাদের কাছে স্মরণীয় হয়ে থাকবে। এখন থেকে পরিবার এবং সমাজের জন্য তোমাদের নিজেদেরকে প্রতিষ্ঠিত করার সংগ্রামে মনোনিবেশ করতে হবে। বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি সরকারি রূপকল্প বাস্তবায়নে ইউজিসি’র নির্দেশনা অনুসরণ করে একধাপ অগ্রসর হয়েছে। দৃষ্টিনন্দন নতুন স্থায়ী ক্যাম্পাসে তারা পাঠদান কার্যক্রম শুরু করেছে। নতুন পাঠ্যক্রম প্রস্তুত করেছে। আমি আশা করবো, ইউজিসি’র অন্যান্য অনুশাসন ও পরামর্শ তারা অনুসরণ করে দেশে উন্নত মানব সম্পদ সৃষ্টিতে শতভাগ স্বার্থকতার প্রমাণ রাখবে।

জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে শুরু হওয়া অনুষ্ঠানে নবীনদের উদ্দেশ্যে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন বিশ^বিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মাহাবুবুল হক (অব.)। অনুষ্ঠানে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন বিইউ’র পরিচালক ইঞ্জিঃ কাজী তাইফ সাদাত। এছাড়া বিভাগীয় চেয়ারম্যানদের পক্ষ থেকে নবাগত ছাত্রছাত্রীদের শুভেচ্ছা জানান বিজনেস অনুষদের ডীন প্রফেসর ড. মোঃ তাজুল ইসলাম।

অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে বিকেলে বিইউ’র ছাত্রছত্রীদের নিজস্ব পরিবেশনার পাশাপাশি জনপ্রিয় ব্যান্ড দল ওয়ারফেজ এর পরিবেশনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। বিপুল সংখ্যক ছাত্রছাত্রী, শিক্ষক-কর্মকর্তা ও কর্মচারি ছাড়াও ছাত্রছাত্রীদের অভিভাগগন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.