আজ: সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪ইং, ৩১শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৮ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০৫ মার্চ ২০২৩, রবিবার |

kidarkar

ভূমিকম্পে বাবা হারানো ক্ষুদে ভক্তের দায়িত্ব নিলেন রোনালদো

স্পোর্টস ডেস্ক : তুরস্কের ভূমিকম্পে প্রায় সবই হারিয়ে ফেলেছিল ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর ভক্ত নাবিল সাঈদ। যদিও তার ইচ্ছে ছিল, জীবনে একবার হলেও প্রিয় তারকার সঙ্গে দেখা করবে সে। অবশেষে তার সেই স্বপ্ন পূরণ হয়েছে। নাবিলের সঙ্গে দেখা করেছেন পর্তুগিজ সুপারস্টার।

গতকাল শনিবার (৪ মার্চ) ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ১০ বছর বয়সী নাবিল তুরস্কে ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তার জন্য উদ্ধারকারী দলের কাছে রোনালদোর সঙ্গে দেখা করার ইচ্ছা প্রকাশ করেছিল। সেই ভিডিও ক্লিপটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে মুহুর্তেই ছড়িয়ে পড়ে এবং তা সৌদি কর্তৃপক্ষের নজড়ে আসে।

জেনারেল এন্টারটেইনমেন্ট অথরিটির পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান তুর্কি আলালশিখ টুইটারে ক্লিপটি শেয়ার করেছেন এবং নাবিলের পরিচয় জানতে চেয়েছেন। এমনকি তিনি নাবিল ও তার মাকে সৌদি আরবে স্বাগত জানান।

ভাইরাল হওয়া সেই ভিডিওতে দেখা যায়, যখন নাবিলকে জিজ্ঞাসা করা হয়েছিল যে, সে কার সঙ্গে সৌদি ভ্রমণ করতে চায়? নাবিল উত্তরে বলেছিল, ‘আমার বাবা এবং মা, কিন্তু দ্রুতই নিজেকে সংশোধন করে বলেছিল—তার বাবা আর নেই। গত ৬ ফেব্রুয়ারি তুরস্ক ও সিরিয়ায় ভয়াবহ ভূমিকম্পে নাবিলের বাবা প্রাণ হারান।’

রোনালদোর খেলা দেখার পাশাপশি তার সঙ্গে দেখার করার ইচ্ছেও পূরণ হয়েছে নাবিলের। রোনালদোকে দেখার সঙ্গে ‘আমি তোমাকে ভালবাসি’ বলে হাত মেলাতে যায় নাবিল। আর সেসময় নাবিলকে জড়িয়ে তার খোঁজখবর নেন রোনালদো।

রোনালদোর সঙ্গে দেখা করতে পেরে নাবিল জানায়, ‘আমি যখন রোনালদোকে দেখি, আমার কাছে মনে হচ্ছিল, এটা হয়তো একটা স্বপ্ন। আমি নিজেকে বিশ্বাস করতে পারছি না। আমি জানি না, কখন এই স্বপ্নের শেষ হবে। আমি আশা করি, এটা স্বপ্ন নয় সত্য।’

গণমাধ্যমের খবরে জানা গেছে, নাবিলের পড়াশোনার দায়িত্ব নিয়েছেন রোনালদো। শুধু নাবিল নয়, এর আগেও বহু পিছিয়ে পড়া শিশুর দায়িত্ব নিয়েছিলেন রোনালদো।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.