আজ: বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ইং, ১৬ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ১৭ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০৭ মার্চ ২০২৩, মঙ্গলবার |

kidarkar

বাংলাদেশের জনসংখ্যা পরিকল্পনার প্রশংসা পাকিস্তানের সাবেক অর্থমন্ত্রীর

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : বাংলাদেশের সফল পরিবার পরিকল্পনা কর্মসূচির প্রশংসা করেছেন পাকিস্তানের সাবেক অর্থমন্ত্রী মিফতাহ ইসমাইল। তিনি বলেছেন, গত ১০ বছরে বাংলাদেশের মতো জন্মহার নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারলে তার দেশের জিডিপি প্রবৃদ্ধি ১৫ শতাংশের বেশি থাকতো। খবর দ্য ডনের

জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণে দক্ষিণ এশিয়ার আরেকটি দেশ শ্রীলঙ্কার কথাও উল্লেখ করেন তিনি। বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কা ‘যথাযথ পরিকল্পনার’ মাধ্যমে জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণে সাফল্য পেয়েছে বলে মন্তব্য করেন।

শনিবার (৪ মার্চ) করাচিতে একটি অনুষ্ঠানে দেওয়া বক্তৃতায় এসব কথা বলেন মিফতাহ।

পাকিস্তানের অর্থনীতির শোচনীয় অবস্থার কথা উল্লেখ করে মিফতাহ ইসমাইল বলেন, ‘এই বিপর্যয় এড়ানোর জন্য জনসংখ্যা পরিকল্পনায় মনোযোগ দেওয়া দরকার ছিল’।

‘আজ আমরা এরমধ্যে আটকা পড়েছি, কীভাবে এই বিপর্যয় কাটিয়ে উঠব? এর অন্যতম কারণ হয়তো এটাই যে প্রতিবছর পাকিস্তানে রেকর্ড ৫৫ লাখ শিশু ভূমিষ্ঠ হচ্ছে’।

তিনি প্রশ্ন রাখেন, ‘আমাদের বার্ষিক জন্মহার এত ব্যাপক হওয়ার পরও, যদি এখনই জনসংখ্যা পরিকল্পনায় মনোযোগ না দেওয়া হয়, তবে আর কবে সে উদ্যোগ নেওয়া হবে’। এনিয়ে কথা তুললেই বিশেষ কিছু গোষ্ঠীর পক্ষ থেকে প্রবল বিরোধিতা ও সমালোচনার ঝড় বয়ে যায় বলে উল্লেখ করেন তিনি।

তিনি বলেন, অথচ পাকিস্তানের মতো বাংলাদেশ, মিশর ও তিউনিসিয়া-ও মুসলমান সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশ। ‘তারা সবাই জনসংখ্যা পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করেছে, অথচ আমরা করিনি’।

জন্মহার নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থতার পাশাপাশি দেশের বর্তমান অর্থনৈতিক দূরবস্থার জন্য জবাবদিহির অভাবকেও দায়ী করেন সাবেক এ অর্থমন্ত্রী।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.