আজ: বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ইং, ১৬ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ১৭ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০৭ মার্চ ২০২৩, মঙ্গলবার |

kidarkar

ছাত্রীদের ৬ মাসের মাতৃত্বকালীন ছুটি দেবে এই বিশ্ববিদ্যালয়

নিজস্ব প্রতিবেদক : কর্মজীবী নারীদের জন্য মাতৃত্বকালীন ছুটি এখন অনেকটা সাধারণ বিষয়। সরকারি-বেসরকারিসহ এখন অনেক প্রতিষ্ঠানই নারী কর্মীদের এই ছুটি দিয়ে থাকে। এ ক্ষেত্রে অসুবিধায় পড়তেন পশোনা চলার মধ্যেড়াই সংসার জীবনে পা দেওয়া নারী শিক্ষার্থীরা।

তবে এবার মেয়ে শিক্ষার্থীদের মাতৃত্বকালীন ছুটি দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে ভারতের কেরালা বিশ্ববিদ্যালয়। সেটিও আবার ছয় মাস পর্যন্ত। মঙ্গলবার (৭ মার্চ) এক প্রতিবেদনে এই এই তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সোমবার ১৮ বছরের বেশি বয়সী ছাত্রীদের জন্য ছয় মাস পর্যন্ত মাতৃত্বকালীন ছুটি ঘোষণা করেছে ভারতের কেরালার রাজ্য-চালিত কেরালা বিশ্ববিদ্যালয়। ঋতুস্রাবের কারণে ক্লাসে মেয়ে শিক্ষার্থীদের বার্ষিক হাজিরা কমিয়ে ৭৩ শতাংশ করার বিষয়ে রাজ্য সরকার উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোকে নির্দেশনা দেওয়ার কয়েক সপ্তাহ পর এই সিদ্ধান্ত নিলো বিশ্ববিদ্যালয়টি।

টাইমস অব ইন্ডিয়া বলছে, মেয়ে শিক্ষার্থীরা এখন থেকে ছয় মাস পর্যন্ত মাতৃত্বকালীন ছুটির সুবিধা পাবেন এবং কোনও শিক্ষার্থী ছুটিতে গেলে (ছুটি শেষে) আবার ভর্তি না হয়েই তারা তাদের ক্লাস শুরু করতে পারবে বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট।

কেরালার রাজ্য-চালিত এই বিশ্ববিদ্যালয়টির সিন্ডিকেট আরও বলেছে, কোনো শিক্ষার্থী মাতৃত্বকালীন ছুটিতে যেতে চাইলে আবেদনকারীর মেডিকেল রেকর্ড যাচাই করার দায়িত্ব থাকবে কলেজের অধ্যক্ষদের ওপর এবং ছুটি শেষ হলে বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুমোদন ছাড়াই তাদের ফের ক্লাসে যোগদানের অনুমতি দেওয়া যাবে।

এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়টি ইতোমধ্যেই মেয়ে শিক্ষার্থীদের জন্য ক্লাসে ন্যূনতম প্রয়োজনীয় উপস্থিতি (অ্যাটেনডেন্স) ৭৫ শতাংশ থেকে কমিয়ে ৭৩ শতাংশ করেছে।

এর আগে কেরালার রাজ্য সরকার উচ্চ শিক্ষায় নিয়োজিত ছাত্রীদের জন্য বাড়তি ২ শতাংশ ছুটি ঘোষণার বিষয়ে অনুমতি দেয়। মূলত মাসিক ঋতুস্রাবের সময় এই ছুটি কাজে লাগাতে পারবেন তারা।

ভারতের দক্ষিণাঞ্চলীয় এই রাজ্যের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর নিয়ম অনুযায়ী, পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার জন্য শিক্ষার্থীদের প্রতি সেমিস্টারে অন্তত ৭৫ শতাংশ হাজিরা (ক্লাস অ্যাটেনডেন্স) থাকা বাধ্যতামূলক। তবে কয়েক সপ্তাহ আগে ছাত্রীদের জন্য সেই হাজিরার হার কমিয়ে ৭৩ শতাংশ করা হয়। মূলত ঋতুস্রাবের কারণ দেখিয়ে সেই বাড়তি ২ শতাংশ অনুপস্থিতির সুবিধা পাবেন মেয়ে শিক্ষার্থীরা।

এর আগে গত বছরের ডিসেম্বরে গর্ভকালীন পরিস্থিতিতে মেয়ে শিক্ষার্থীদের তিন মাস মাতৃত্বকালীন ছুটি কাটানোর অনুমোদন দেয় কেরালার মহাত্মা গান্ধী বিশ্ববিদ্যালয় (এমজেইউ)। সেসময় দেওয়া ঘোষণায় বলা হয়, বিশ্ববিদ্যালয় সম্মান (অনার্স) ও পোস্ট গ্র্যাজুয়েট বিভাগের আঠারো বছর এবং তার অধিক বয়সী সব শিক্ষার্থীই এ সুবিধা ভোগ করতে পারবেন।

সেসময় আরও বলা হয়, মাতৃত্বকালীন ছুটির কারণে শিক্ষার্থী যদি কোনো সেমিস্টার পরীক্ষা মিস করেন, সেক্ষেত্রে পরবর্তী সেমিস্টারের সঙ্গে তা সমন্বয় করা হবে। এক্ষেত্রে ওই শিক্ষার্থী যে বিভাগের, সেটি সংশ্লিষ্ট সেই বিভাগের প্রধান বা চেয়ারম্যান সমন্বয় করবেন।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.