আজ: শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ইং, ১১ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ১২ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

১১ মার্চ ২০২৩, শনিবার |

kidarkar

এসিআই লিমিটেড বাংলাদেশে নিয়ে এলো মিতসুবিশি মেরিন ইঞ্জিন

নিজস্ব প্রতিবেদক : দেশের অন্যতম বৃহৎ শিল্পগোষ্ঠী এসিআই লিমিটেড বাংলাদেশে নিয়ে এলো বিশ্ববিখ্যাত মিতসুবিশি মেরিন ইঞ্জিন।

শুক্রবার (১০ মার্চ) রাজধানীর ইন্টারকন্টিনেন্টাল ঢাকায় বাংলাদেশে মিতসুবিশি মেরিন ইঞ্জিনের উদ্বোধন উপলক্ষ্যে একটি বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

বাংলাদেশ একটি নদীমাতৃক দেশ যার ২৪ হাজার কিলোমিটার নৌপথ রয়েছে। এর নৌপথ শুধুমাত্র মালবাহী এবং যাত্রীদের অভ্যন্তরীণ চলাচলের জন্যই নয়- চট্টগ্রাম, পায়রা এবং মংলা বন্দর দিয়ে আমদানি, রপ্তানি ও পণ্য পরিবহনের ক্ষেত্রেও একটি গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম হিসেবে চলমান রয়েছে। আই.টি.এল.ও.এস  ট্রাইব্যুনাল থেকে সামুদ্রিক এলাকায় ২০০ নটিক্যাল মাইল প্রবেশাধিকার পাওয়ার পর বাংলাদেশ ব্লু ইকোনোমির সম্ভাবনার সুযোগ পেয়েছে। বিশ্বের বৃহত্তম ব-দ্বীপ হওয়ায় এটি বঙ্গোপসাগরে সামুদ্রিক কার্যকলাপের অবারিত প্রবেশাধিকার পেয়েছে। সেই সুযোগকে কাজে লাগাতে সরকার বাংলাদেশ ডেল্টা প্ল্যান ২১০০, মাতারবাড়ি গভীর সমুদ্র বন্দর স্থাপন এবং অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য সামুদ্রিক খাতকে ‘থ্রাস্ট সেক্টর’ হিসেবে ঘোষণার মতো বিভিন্ন কৌশলও গ্রহণ করেছে।

সামুদ্রিক সেক্টরের সম্ভাবনা অনুধাবন করে, এসিআই মেরিন অ্যান্ড রিভেরাইন টেকনোলজিস লিমিটেড ২০১৯ সালে ‌‘মেরিন এবং রিভেরাইন অপারেশনের মাধ্যমে প্রযুক্তি এবং পরিষেবাগুলোর দায়িত্বশীল প্রয়োগের মাধ্যমে জীবনের মান উন্নত করার দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে যাত্রা শুরু করে। এসিআই বর্তমানে বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় প্রযুক্তি পণ্যগুলোর সহযোগিতায় মেরিন মেশিনারিজ এবং সরঞ্জামের ব্যবসার মাধ্যমে সামুদ্রিক ব্যবসা পরিচালনা করছে। এসিআই ভবিষ্যতে ড্রেজিং, পরিবহন, নদী ব্যবস্থাপনা এবং উচ্চ-প্রযুক্তিগত নেভিগেশনাল সরঞ্জামের ব্যবসায় তার সামুদ্রিক ব্যবসা সম্প্রসারণের পরিকল্পনা করছে।

এরই ধারাবাহিকতায়, এসিআই মেরিন অ্যান্ড রিভেরাইন টেকনোলজিস লিমিটেড মিতসুবিশি মেরিন ইঞ্জিন বাজারজাত শুরু করেছে। ‘মিতসুবিশি হেভি ইন্ডাস্ট্রিজ’, যারা বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় শিল্প গ্রুপগুলোর মধ্যে স্প্যানিং এনার্জি, লজিস্টিকস এবং অবকাঠামো, শিল্প যন্ত্রপাতি, সামুদ্রিক যন্ত্রপাতি, অ্যারোস্পেস এবং প্রতিরক্ষাবিষয়ক ব্যবসা পরিচালনা করছে।

এসিআই ৩৭৮ কিলোওয়াট থেকে ২০০০ কিলোওয়াট রেঞ্জের মধ্যে মিতসুবিশি মেরিন ইঞ্জিন বাজারজাত করবে যা দেশের অভ্যন্তরীণ ও সমুদ্রগামী জাহাজ, ড্রেজার, গভীর সমুদ্রে মাছ ধরার জাহাজ, বৈদ্যুতিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র, নির্মাণ, শিল্প যন্ত্রপাতি, পাম্প স্টেশন ইত্যাদিতে ব্যবহার করা যেতে পারে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশে নিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূত কিমিনোরি ইয়ামা। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পায়রা বন্দরের চেয়ারম্যান রিয়ার অ্যাডমিরাল মোহাম্মদ সোহেল, ও.এস.পি, এন.ইউ.পি, পি.পি.এম, পি.এস.সি, বি.এন এবং যুগ্ম সচিব ও বি.আই.ডব্লিউ.টি.এ (প্রকৌশল) সদস্য ড. এ.কে.এম মতিউর রহমান।

অনুষ্ঠানে উদ্বোধনী বক্তব্য দেন এসিআই মেরিন অ্যান্ড রিভেরাইন টেকনোলজিস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. এফ.এইচ আনসারী। বক্তব্য রাখেন যথাক্রমে এসিআই লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. আরিফ দৌলা ও এসিআই মটরস লিমিটেডের নির্বাহী পরিচালক সুব্রত রঞ্জন দাস।

এ সময় উপস্থিত থেকে বক্তব্য প্রদান করেন মিতসুবিশি হেভি ইন্ডাস্ট্রিজ ইঞ্জিন অ্যান্ড টার্বোচার্জার লিমিটেডের (এম.এইচ.আই.ই.টি) পরিচালক ইওশিহিরো কোয়ামা এবং মিৎসুবিশি হেভি ইন্ডাস্ট্রিজ ইঞ্জিন সিস্টেম-এশিয়া (এম.এইচ.আইইএস-এ) এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক নোরিও মুরাকামীসহ এসিআই লিমিটেডের অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.