আজ: বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪ইং, ৫ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৭ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০৯ মে ২০২৩, মঙ্গলবার |

kidarkar

সৌদিতেই যাচ্ছেন মেসি, ‘বিশাল অংকের চুক্তি’ সই!

স্পোর্টস ডেস্ক : ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর পর এবার সৌদি আরবে পাড়ি জমানো প্রায় নিশ্চিত করে ফেলেছেন আর্জেন্টাইন তারকা লিওনেল মেসি। সৌদি প্রো লিগের ক্লাব আল হিলালের সঙ্গে চুক্তি চূড়ান্ত করে ফেলেছেন বলে জানিয়েছে সংবাদ সংস্থা এএফপি, বৃটিশ মিডিয়া ডেইলি মেইল।

শুধু তাই নয়, ক্রীড়া ইতিহাসে সবচেয়ে বড় চুক্তিটি করে ফেলেছেন মেসি। সৌদি ক্লাব আল হিলালের সঙ্গে প্রায় ৭ হাজার কোটি টাকার চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছেন মেসি।

তবে ফোর্বস.কম তাদের ওয়েবসাইটে গতকাল রাতেই প্রকাশ করেছিলো, শুধু লিওনেল মেসিই নন, বার্সেলোনার স্প্যানিশ মিডফিল্ডার সার্জিও বস্কুয়েটসকেও আগামী মৌসুমে দলে নেয়ার ব্যাপারে চুক্তি নিশ্চিত করে ফেলেছে আল হিলাল। এই দুই ফুটবলারের পেছনে সৌদি ক্লাবটির খরচ হবে ৬৬০ মিলিয়ন ডলার (প্রায় ৭ হাজার কোটি টাকা)।

কিন্তু ব্রিটিশ মিডিয়া ডেইলি দাবি করছে, এরই মধ্যে আল হিলালের সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষর হয়ে গেছে। এবং শুধুমাত্র মেসির জন্যই সৌদি ক্লাবটি খরচ করবে ৫২২ মিলিয়ন বৃটিশ পাউন্ড (প্রায় সাত হাজার কোটি টাকা)।

পিএসজির সঙ্গে আগামী মাসের (জুনে) ৩০ তারিখ চুক্তির মেয়াদ শেষ হতে যাচ্ছে মেসির। এরপর প্যারিসের ক্লাবটিতে যে মেসি থাকছেন না তা প্রায় নিশ্চিত। বিশেষ করে, অনুমতি না নিয়ে সৌদি আরব সফর করতে যাওয়ার কারণে মেসিকে নিষিদ্ধ করে পিএসজি। যদিও সেই নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়েছে প্যারিসের ক্লাবটি। তবুও, মেসির সঙ্গে যে তিক্ততা তৈরি হয়েছে, তা সহজে নিরসন হওয়ার মত নয়।

মেসির মত সার্জিও বস্কুয়েটসও জুনের ৩০ তারিখ ফ্রি এজেন্ট হয়ে যাবেন। বার্সেলোনা তার সঙ্গে আর চুক্তি নবায়ন করছে না। যে কারণে ভিন্ন কোনো ঠিকানা খুঁজে নিতে হচ্ছে বস্কুয়েটসকে। স্প্যানিশ মিডিয়া এল চিরিঙিতো এ নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করেছে। এর আগেও প্রমাণ হয়েছে, এল চিরিঙিতোর সংবাদ মিথ্যা হয় না। শুধু তাই নয়, তারা রিপোর্ট করেছে বার্সার আরেক ফুটবলার জর্দি আলবাকেও নিতে চায় আল হিলাল।

মেসির চুক্তির বিষয়ে সংবাদ সংস্থা এএফপি কয়েকটি সূত্রের বরাতে বলছে যে, সৌদি ক্লাব আল হিলালের সঙ্গে চুক্তি সেরে ফেলেছেন মেসি। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একটি সূত্র এএফপিকে বলেন, ‘মেসির চুক্তি হয়ে গেছে। তিনি সৌদি আরবে আগামী মৌসুমে খেলবেন।’ এএফপি আরও জানিয়েছে, মেসির স্ত্রী আনতোনেল্লা রোকুজ্জোর নিষেধ সত্ত্বেও সৌদি ক্লাবের সঙ্গে চুক্তি করলেন মেসি।

আনতোনেল্লা রোকুজ্জো তার সন্তানদের নিয়ে সৌদিতে গিয়ে থাকতে রাজি নন। তিনি থাকতে চান ইউরোপেই। এ কারণেই তিনি এই চুক্তিতে খুব একটা রাজি নন। বলা হচ্ছে, তার কারণেই চুক্তির অর্থের পরিমাণ এত বিশাল অংকে উপনীত হয়েছে।

সবচেয়ে বড় কথা, আগামী মৌসুমে লিওনেল মেসি আল হিলালে যোগ দিলে আবারও দেখা যাবে মেসি রোনালদো দ্বৈরথ। ফুটবলপ্রেমীদের জন্য এরচেয়ে বড় খবর আর কি হতে পারে!

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.