আজ: মঙ্গলবার, ০৩ অক্টোবর ২০২৩ইং, ১৮ই আশ্বিন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ১৬ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

১০ সেপ্টেম্বর ২০২৩, রবিবার |


kidarkar

ভারত-পাকিস্তান মহারণ আজ


স্পোর্টস ডেস্ক : আবারও মুখোমুখি ভারত এবং পাকিস্তান। চলতি এশিয়া কাপে দ্বিতীয়বারের মতো মুখোমুখি হতে যাচ্ছে এই দুই দল। গ্রুপ পর্বের ম্যাচে শ্রীলঙ্কার পাল্লেকেলে স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হয়েছিল ভারত এবং পাকিস্তান। ওই ম্যাচে জয় হয়েছিল বৃষ্টির। প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ভারত সংগ্রহ করেছিল ২৬২ রান। জবাব দিতে নামারই সুযোগ পায়নি পাকিস্তান। বৃষ্টিতে ভেসে যায় পুরো ম্যাচ। ফলে ম্যাচ টাই।

এবার সুপার ফোরের ম্যাচে তারা মুখোমুখি হচ্ছে কলম্বোর আর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে। এই ম্যাচে কী হবে আজ? বৃষ্টির চোখ রাঙানি রয়েছে। যে কারণে একটি রিজার্ভ ডে রাখা হয়েছে শুধু এই একটি ম্যাচের জন্য। তাহলে কি শেষ পর্যন্ত বৃষ্টিরই জয় হবে?

সুপার ফোরের প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশের বিপক্ষে বড় ব্যবধানে জয় পেয়েছে পাকিস্তান। বাংলাদেশকে ১৯৩ রানে অলআউট করে দিয়ে ম্যাচ জিতেছে তারা ৭ উইকেটের ব্যবধানে। এবার ভারতকে হারাতে পারলেই নিশ্চিত হয়ে যাবে ফাইনাল খেলা। সে লক্ষ্যেই মাঠে নামবে পাকিস্তান।

ম্যাচের আগে পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর আজম স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন, ভারতের বিরুদ্ধে তারা এগিয়ে থেকেই নামছেন। কেন এগিয়ে, সেই কারণও ব্যাখ্যা করেছেন তিনি।

দীর্ঘদিন ধরেই শ্রীলঙ্কায় খেলছে পাকিস্তান। টেস্ট সিরিজ খেলেছে। লঙ্কা প্রিমিয়ার লিগে (এলপিএল) বাবরসহ অনেক পাকিস্তানি ক্রিকেটার খেলেছেন। সে প্রসঙ্গ তুলে বাবর বলেছেন, ‘যেভাবে পাকিস্তান এবং শ্রীলঙ্কায় একটানা ক্রিকেট খেলে চলেছি তাতে বলতেই পারেন ভারতের বিরুদ্ধে এগিয়ে থেকে নামব। আমরা গত দু’মাস ধরে শ্রীলঙ্কায় খেলছি। টেস্ট, আফগানিস্তান সিরিজ, এলপিএল খেলেছি। তাই বাড়তি সুবিধা আমাদেরই।’

তবে ম্যাচ হবে কি না, তা পুরোটাই নির্ভর করছে বৃষ্টির ওপর। রোববার ভালোই বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। বাবর বলেছেন, ‘আমরা এমন কিছু নিয়ে ভাবছি না যা আমাদের নিয়ন্ত্রণে নেই। গতকাল (শনিবার) যেভাবে সূর্যের আলো দেখলাম, তাতে মনে হয় না রোববার খুব বেশি বৃষ্টি হবে। তাই আমরা যতটা সম্ভব অনুশীলন করার চেষ্টা করছি।’

ভারত প্রস্তুতি নিচ্ছে পাকিস্তানের পেসারদের সামলানোর লক্ষ্যে। কিন্তু বাবর জানালেন, তারা স্পিনারদেরও তৈরি রাখছেন যাতে মাঝের ওভারগুলোতে ভারতকে চাপে ফেলতে পারেন। বাবরের কথায়, ‘বল হাতে ভালো শুরু করাটাই লক্ষ্য। কিন্তু মাঝের ওভারের জন্যে আলাদা পরিকল্পনা থাকে। দু’জায়গাতেই যাতে ভারসাম্য রাখতে পারি, এমন একটা দলই খেলাব। মাঝের ওভারে আরও উইকেট নিতে হবে আমাদের, যেটা এখন হচ্ছে না। কিন্তু প্রথম বা শেষের দিকে অনেক সাফল্য পাচ্ছি আমরা। দলগত পারফরম্যান্স খুবই ভালো।’

ম্যাচের আগে সংবাদ সম্মেলনে উঠে আসে অত্যধিক যাতায়াতের প্রসঙ্গ। লাহোরে আগের ম্যাচ খেলে আবার শ্রীলঙ্কায় ফিরেছে পাকিস্তান। কিন্তু বাবর এ নিয়ে কোনো বিতর্কে যেতে চাইলেন না। বলেছেন, ‘আমরা সূচি আগে থেকেই জানতাম। কতটা যাতায়াত করতে হবে সেই হিসাবও সাড়া ছিল। তাই অসুবিধা হয়নি। সব ক্রিকেটারের প্রতি সমান খেয়াল রাখা হয়েছে। এখনও পর্যন্ত কোনো অসুবিধা হয়নি।’

ভারত দল: রোহিত শর্মা (অধিনায়ক), শুভমান গিল, বিরাট কোহলি, শ্রেয়স আইয়ার, লোকেশ রাহুল, সূর্যকুমার যাদব, তিলক ভার্মা, ঈশান কিষাণ, হার্দিক পান্ডিয়া, রবীন্দ্র জাদেজা, আক্সার প্যাটেল, শার্দুল ঠাকুর, জাসপ্রিত বুমরাহ, মোহাম্মদ শামি, মোহাম্মদ সিরাজ, কুলদীপ যাদব ও প্রসিদ্ধ কৃষ্ণ।

পাকিস্তান দল: বাবর আজম (অধিনায়ক), শাদাব খান, মোহাম্মদ রিজওয়ান, সাউদ শাকিল, ফখর জামান, আবদুল্লাহ শফিক, ইমাম-উল-হক, সালমান আলি আঘা, ইফতিখার আহমেদ, মোহাম্মদ নওয়াজ, উসামা মীর, হারিস রউফ, নাসিম শাহ, শাহিন শাহ আফ্রিদি, মোহাম্মদ হারিস, ফাহিম আশরাফ, মোহাম্মদ ওয়াসিম।


আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.