আজ: মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪ইং, ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১১ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

১১ সেপ্টেম্বর ২০২৩, সোমবার |

kidarkar

এসএমইতে সর্বনিম্ন বিনিয়োগ সীমা ৩০ লাখ টাকাই নির্ধারণ

নিজস্ব প্রতিবেদক : পুঁজিবাজারের এসএমই প্ল্যাটফর্মে লেনদেনে যোগ্য হতে কোয়ালিফাইড ইনভেস্টরদের বিনিয়োগের সর্বনিম্ন সীমা আবারও ৩০ লাখ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

ডিএসইর তথ্য মতে, এসএমইতে বিনিয়োগের জন্য ৩০ লাখ টাকার বিপরীতে করা রিট খারিজ করা হয়েছে। যার ফলে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের ২০২২ সালের ২১ সেপ্টেম্বরের ৩০ লাখ টাকার নির্দেশনাকে বৈধতা দেওয়া হয়েছে।

এখন থেকে এসএমই প্ল্যাটফর্মে বিনিয়োগকারীদের লেনদেনযোগ্য হওয়ার জন্য ৩০ লাখ টাকার বিনিয়োগ থাকার কথা বলেছে ডিএসই কর্তৃপক্ষ।

এর আগে গত ৪ এপ্রিল ডিএসই সব ট্রেকহোল্ডারদেরকে গত ৩০ মার্চ ২০ লাখ টাকা বা তার বেশি বিনিয়োগ থাকা বিনিয়োগকারীদের তথ্য আগামি ১০ এপ্রিলের মধ্যে দিতে বলা হয়। যারা পরবর্তী ৩ মাস এসএমইতে লেনদেনের যোগ্য হবে।

গত বছরের ২১ সেপ্টেম্বর এসএমই খাতে লেনদেনে যোগ্য হতে কোয়ালিফাইড ইনভেস্টরদের পুঁজিবাজারে বিনিয়োগের সর্বনিম্ন সীমা ২০ লাখ থেকে বাড়িয়ে ৩০ লাখ টাকা নির্ধারণ করে আদেশ জারি করেছিল নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)।

এখন এসএমইতে লেনদেন করতে যোগ্য হতে পুঁজিবাজারে যেকোন প্লাটফর্মে (মূল, এটিবি বা এসএমই মার্কেট) ৩০ লাখ টাকা বিনিয়োগ করতে হবে।

বিনিয়োগকারীদেরকে ৩০ লাখ টাকা বিনিয়োগের ভিত্তিতে প্রতি প্রান্তিকে এসএমইতে লেনদেনের যোগ্য করতে স্বয়ংক্রিয়ভাবে বিনা খরচে রেজিস্ট্রেশন করা হবে। এজন্য প্রতি প্রান্তিকে সিডিবিএল বা ডিপি বিনিয়োগকারীর বিস্তারিত তথ্য স্টক এক্সচেঞ্জে জমা দেবে।

এর আগে গত বছরের ১৭ ফেব্রুয়ারি এসএমই মার্কেটে বিনিয়োগকারীদের অংশগ্রহন বাড়াতে কোয়ালিফাইড ইনভেস্টর হওয়ার জন্য শেয়ারবাজারে ৫০ লাখ টাকা থেকে কমিয়ে ২০ লাখ টাকায় বিনিয়োগ নামিয়ে আনে বিএসইসি।

 

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.