আজ: রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪ইং, ২রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৮ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩, মঙ্গলবার |

kidarkar

আবারো ধানমন্ডি সিকিউরিটিজ পরিদর্শনের নির্দেশ বিএসইসি

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) সদস্য প্রতিষ্ঠান ধানমন্ডি সিকিউরিটিজকে আবারও পরিদর্শনের নির্দেশ দিয়েছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)।

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জকে (ডিএসই) আগামী এক মাসের মধ্যে এই পরিদর্শন সম্পন্ন করে হালনাগাদ অবস্থার প্রতিবেদন জমা দেয়ার নির্দেশ দিয়েছে বিএসইসি।

ডিএসইকে দেয়া বিএসইসির নির্দেশে বলা হয়েছে, ধানমন্ডি সিকিউরিটিজ লিমিটেডকে আবার পরিদর্শন কার্যক্রম পরিচালনা করে এর হালনাগাদ অবস্থা সম্পর্কে প্রতিবেদন আগামী এক মাসের মধ্যে কমিশনে দাখিল করতে হবে।

এর আগে সিকিউরিটিজ আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে ধানমন্ডি সিকিউরিটিজকে পাঁচ লাখ টাকা জরিমানা করে বিএসইসি।

একই সঙ্গে আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মো. আরিফ ইসলাম খানকে দুই লাখ টাকা এবং হেড অব ফাইন্যান্স অ্যান্ড অ্যাকাউন্ট্যান্স মো. কবিরুল ইসলাম ও আইটি ইনচার্জ মো. রুবেল হোসেন সজীবকে এক লাখ টাকা করে মোট দুই লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

এই নিয়ে ধানমন্ডি সিকিউরিটিজ এবং তাদের তিন কর্মকর্তাকে মোট ৯ লাখ টাকা জরিমানা করল কমিশন।

সম্প্রতি বিভিন্ন অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে বিএসইসি এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানা গেছে।

এই বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট বিভাগকে নির্দেশ দেয়া হয়।

জানা গেছে, ধানমন্ডি সিকিউরিটিজের বিরুদ্ধে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (অ্যাডমিনিস্ট্রেশন অব ট্রেডিং রাইট এনটাইটেলমেন্ট সার্টিফিকেট) প্রবিধানমালা, ২০২০-এর বিধি ৫(খ); সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ রুলস, ২০২০-এর রুলস ১৭(৪); সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ অর্ডিন্যান্স, ১৯৬৯-এর

সেকশন ১৮; মার্জিন রুলস, ১৯৯৯-এর রুলস ৩(১) ও ৩(২); সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ অর্ডিন্যান্স, ১৯৬৯-এর সেকশন ১৬(ক); সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ রুলস, ২০২০-এর রুলস ৬(১) ও ৬(৫); বিএসইসির ২০২২ সালের ২ ফেব্রুয়ারি জারি করা নির্দেশনা; সিকিউরিটিজ ও এক্সচেঞ্জ কমিশন (স্টক-ডিলার, স্টক ব্রোকার ও অনুমোদিত প্রতিনিধি) বিধিমালা, ২০০০-এর বিধি ১১ এবং সিকিউরিটিজ ও এক্সচেঞ্জ কমিশন (স্টক-ডিলার, স্টক ব্রোকার ও অনুমোদিত প্রতিনিধি) বিধিমালা, ২০০০-এর দ্বিতীয় তফসিলের আচরণ বিধি ১ লঙ্ঘন করার প্রমাণ মিলেছে।

তাই সার্বিক দিক বিবেচনা করে ধানমন্ডি সিকিউরিটিজকে ৫ লাখ টাকা অর্থদণ্ড দিয়েছে কমিশন। সেই সঙ্গে উপরোক্ত সিদ্ধান্ত পালনে ব্যর্থতা অব্যাহত থাকলে, অনুরূপ অব্যাহত থাকাকালীন প্রতিদিনের জন্য ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ডে দণ্ডিত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কমিশন।

এদিকে প্রতিষ্ঠানটির সিইও মো. আরিফ ইসলাম খানের বিরুদ্ধে একইভাবে মার্জিন রুলস, ১৯৯৯-এর রুলস ৩(১) ও ৩(২); সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ অর্ডিন্যান্স, ১৯৬৯-এর সেকশন ১৬(ক); সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ রুলস, ২০২০-এর রুলস ৬(১) ও ৬(৫); বিএসইসির ২০২২ সালের ২ ফেব্রুয়ারি জারি করা নির্দেশনা; সিকিউরিটিজ ও এক্সচেঞ্জ কমিশন (স্টক-ডিলার, স্টক ব্রোকার ও অনুমোদিত প্রতিনিধি) বিধিমালা, ২০০০-এর বিধি ১১ এবং সিকিউরিটিজ ও এক্সচেঞ্জ কমিশন (স্টক-ডিলার, স্টক ব্রোকার ও অনুমোদিত প্রতিনিধি) বিধিমালা, ২০০০-এর দ্বিতীয় তফসিলের আচরণ বিধি ১ লঙ্ঘন করার প্রমাণ মিলেছে।

তাই সার্বিক দিক বিবেচনা করে প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আরিফ ইসলাম খানকে দুই লাখ টাকা অর্থদণ্ড দিয়েছে কমিশন।

এছাড়া হেড অব ফাইন্যান্স অ্যান্ড অ্যাকাউন্টস মো. কবিরুল ইসলামকে ৯টি এবং আইটি ইনচার্জ মো. রুবেল হোসেন সজীবকে তিনটি সিকিউরিটিজ আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে এক লাখ টাকা করে দুই লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.