আজ: শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪ইং, ৭ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৯ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, রবিবার |

kidarkar

আইসিএসবি কর্তৃক হাইব্রিড প্ল্যাটফর্মে শেয়ারহোল্ডারদের সভার পদ্ধতিসংক্রান্ত বিষয়ক কর্মশালা আয়োজিত

নিজের প্রতিবেদক: ইনস্টিটিউট অব চার্টার্ড সেক্রেটারীজ অব বাংলাদেশ (আইসিএসবি) শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪-এ “হাইব্রিড প্ল্যাটফর্মে শেয়ারহোল্ডারদের সভার পদ্ধতি”-এর উপর একটি কর্মশালা সফলভাবে আয়োজন করে। আইসিএসবি প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত এই কর্মশালায় প্র্যাকটিসিং চার্টার্ড সেক্রেটারীজ, ইন্ডিপেন্ডেন্ট স্ক্রুটিনাইজার, ইন্ডিপেন্ডেন্ট সার্ভিস প্রোভাইডার, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কোম্পানি সেক্রেটারি এবং আইসিএসবি-এর সদস্যসহ বিভিন্ন সেক্টরের মূল স্টেকহোল্ডারদের একত্রিত করা হয়।

এই কর্মশালাটি ছিল হাইব্রিড প্ল্যাটফর্মে শেয়ারহোল্ডারদের বৈঠকের বিভিন্ন পদ্ধতি সম্পর্কে স্টেকহোল্ডারদের মধ্যে সচেতনতা বাড়ানোর জন্য ইনস্টিটিউট অব চার্টার্ড সেক্রেটারীজ অব বাংলাদেশ (আইসিএসবি), বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) এবং ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ পিএলসি-এর যৌথ উদ্যোগ।

হাফেজ মোহাম্মদ নুরুল ইসলামের পবিত্র কোরআনের আয়াত তেলাওয়াতের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সূচনা হয়। আইসিএসবি-এর সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট জনাব এম নুরুল আলম এফসিএস কর্মশালায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন এবং উপস্থিত সকল অংশগ্রহণকারীদের কর্মশালায় উপস্থিত হওয়ার জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

জনাব মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মামুন এফসিএস, কোষাধ্যক্ষ এবং আইসিএসবি-এর সেক্রেটারিয়াল প্র্যাকটিস এসুরেন্স কমিটির চেয়ারম্যান, কর্মশালার সভাপতিত্ব ও পরিচালনা করেন।

কর্মশালায় বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) কমিশনার ড. শেখ শামসুদ্দিন আহমেদ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়াও, বিএসইসি-এর নির্বাহী পরিচালক জনাব মোঃ সাইফুর রহমান এবং ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ পিএলসি-এর চিফ রেগুলেটরি অফিসার জনাব খায়রুল বাশার আবু তাহের মোহাম্মদ বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এবং তাদের তথ্যবহুল আলোচনার মাধ্যমে কর্মশালাকে আরও সমৃদ্ধ করেন।

বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) অতিরিক্ত পরিচালক জনাব মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন, যিনি হাইব্রিড প্ল্যাটফর্মে শেয়ারহোল্ডারদের বৈঠকের বিভিন্ন দিক সম্পর্কে বিস্তারিত তুলে ধরেন। মূল প্রবন্ধে- উদ্দেশ্য, কর্পোরেট গভর্নেন্সের একটি নতুন মাত্রা হিসাবে ই-গভর্নেন্স, আইনি কাঠামো, কমিশনের সর্বশেষ সার্কুলার ও নির্দেশাবলী এবং হাইব্রিড প্ল্যাটফর্মে এসব বিষয়ে প্রদত্ত নির্দেশাবলী প্রতিপালনে সৃষ্ট চ্যালেঞ্জ সমূহের সম্মুখীন হওয়া সহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হয়।

ড. শেখ শামসুদ্দিন আহমেদ তার বক্তব্যে এমন একটি প্রয়োজনীয় কর্মশালা আয়োজনের জন্য আইসিএসবি-এর প্রশংসা করেন এবং সদ্য প্রণয়ন করা নিয়ম ও প্রবিধান সম্পর্কে স্টেকহোল্ডারদের সচেতনতা বাড়াতে এই ধরনের উদ্যোগের উপর গুরুত্বারোপ করেন। তিনি এই ধরনের উদ্যোগে বিএসইসি থেকে অব্যাহত সমর্থনের প্রতিশ্রুতি দেন।

জনাব মোঃ সাইফুর রহমান আইসিএসবি-এর উদ্যোগের প্রশংসা করেন এবং উল্লেখ করেন যে কর্মশালাটি স্টেকহোল্ডারদের মধ্যে প্রাসঙ্গিক প্রশ্নগুলির সমাধান করবে। তিনি ভবিষ্যতে আইসিএসবি-কে বিভিন্ন ভাবে সহযোগিতা করার ব্যাপারে বিএসইসি-এর প্রতিশ্রুতি পুনর্ব্যক্ত করেন।

জনাব খায়রুল বাশার আবু তাহের মোহাম্মদ ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ পিএলসি-এর চিফ রেগুলেটরি অফিসার শেয়ারহোল্ডারদের অধিকার রক্ষায় প্রযুক্তিগত অগ্রগতির গুরুত্ব উল্লেখ করেন এবং এই পরিবর্তনগুলির সাথে খাপ খাইয়ে নেওয়ার জন্য আন্তরিকতা এবং দক্ষতার প্রয়োজনীয়তার উপর জোর দিয়ে কর্মশালাটি আয়োজন করার জন্য আইসিএসবি-এর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

আলোচনা অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারীদের বিশেষজ্ঞদের সাথে যুক্ত হওয়ার, হাইব্রিড অংশগ্রহণ থেকে উদ্ভূত চ্যালেঞ্জ এবং সুযোগ অন্বেষণ, ইস্যুকারীদের জন্য সর্বোত্তম অনুশীলন, ইন্ডিপেন্ডেন্ট স্ক্রুটিনাইজারদের ভূমিকা এবং শেয়ারহোল্ডার মিটিং সহজতর করার জন্য আইএসপিদের সুযোগ প্রদান করে।

জনাব মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মামুন এফসিএস, অধিবেশনের সভাপতি হিসাবে, আলোচনার সংক্ষিপ্তসার তুলে ধরেন এবং স্বচ্ছতা, সততা এবং নিয়ন্ত্রক প্রয়োজনীয়তার সাথে সম্মতির গুরুত্বের উপর জোর দেন। এছাড়াও তিনি ইন্ডিপেন্ডেন্ট স্ক্রুটিনাইজারদের তালিকাভুক্তির জন্য বিএসইসি দ্বারা জারি করা সাম্প্রতিক বিজ্ঞপ্তিতে সকল অংশীদার সংস্থাগুলিকে অন্তর্ভুক্ত করার গুরুত্বের উপর জোর দিয়েছিলেন।

পরিশেষে আইসিএসবি-এর ভাইস প্রেসিডেন্ট জনাব এ.কে.এম. মুশফিকুর রহমান এফসিএস-এর ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। কর্পোরেট গভর্নেন্স প্র্যাকটিসকে উন্নত করার ক্ষেত্রে সকলের অবদান এবং অঙ্গীকারের জন্য সকল অংশগ্রহণকারী, সংগঠক এবং স্টেকহোল্ডারদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

ইনস্টিটিউট অব চার্টার্ড সেক্রেটারীজ অব বাংলাদেশ (আইসিএসবি) সুশাসনের উৎকর্ষতা প্রসারের জন্য বাংলাদেশে কর্পোরেট গভর্নেন্সের সর্বোচ্চ মান নিশ্চিত করতে স্টেকহোল্ডারদের মধ্যে জ্ঞান আদান-প্রদান এবং পারস্পরিক সহযোগিতা বৃদ্ধির ক্ষেত্রে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.