আজ: শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪ইং, ৩০শে চৈত্র, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ২রা শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০২ মার্চ ২০২৪, শনিবার |

kidarkar

অস্থির পুঁজিবাজারে লেনদেন বাড়লেও মূলধন কমেছে

নিজস্ব প্রতিবেদক : ফ্লোর প্রাইজ প্রতাহারে পুঁজিবাজার উত্থান ফিরলেও গত ১২ ফেব্রুয়ারি থেকে ধারাবাহিক দরপতনে পুঁজিবাজার।গত সপ্তাহে প্রতিদিনই লেনদেনের শুরুতে সূচকের উত্থান হলেও দিনশেষে সূচকের দরপতন হয়। এভাবে আরও একটি সপ্তাহ কেটে গেলো। টানা দরপতনে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) সব সূচকই কমেছে। সেই সঙ্গে কমেছে বাজার মূলধন। এর মাধ্যমে টানা তিন সপ্তাহের পতনে ডিএসইর বাজার মূলধন ১১ হাজার কোটি টাকার ওপরে কমে গেছে।তবে টাকার অংকে শেয়ার লেনদেনের পরিমাণ বেড়েছে।

জানা গেছে,আলোচ্য সপ্তাহে ডিএসইতে ৩ হাজার ৫০৮ কোটি ৩৮ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এর আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ৩ হাজার ৩৭০ কোটি ১৪ লাখ টাকা। অর্থাৎ এক সপ্তাহে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে লেনদেন বেড়েছে ১৩৮ কোটি ২৪ লাখ টাকা বা ৪ দশমিক ১০ শতাংশ।

গত সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসের লেনদেন শেষে ডিএসইর বাজার মূলধন দাঁড়িয়েছে ৭ লাখ ৬০ হাজার ৭২৩ কোটি টাকা। যা গত সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে ছিল ৭ লাখ ৬২ হাজার ১৪ কোটি টাকা। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইর বাজার মূলধন কমেছে ১ হাজার ২৯১ কোটি টাকা বা দশমিক ১৭ শতাংশ।

বিদায়ী সপ্তাহে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের প্রধান সূচক ‘ডিএসইএক্স’ ১৯ দশমিক ৪২ পয়েন্ট কমেছে। সপ্তাহ শেষে সূচকটি অবস্থান করছে ৬ হাজার ২৫৪ পয়েন্টে।প্রধান সূচকের সঙ্গে ‘ডিএসই-৩০’ সূচক এক সপ্তাহে ১২ দশমিক ৭৮ পয়েন্ট হারিয়েছে। আর ‘ডিএসইএস’ বা শরীয়াহ সূচক কমেছে ০ দশমিক ৭০ পয়েন্ট।

গত সপ্তাহে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে ৪১০ প্রতিষ্ঠান শেয়ার লেনদেনে অংশ নিয়েছে। এর মধ্যে ৩১টির শেয়ারের দরই অপরিবর্তিত ছিল। অপরদিকে দর বৃদ্ধি পেয়েছে ১৩৬টির, বিপরীতে কমেছে ২৩২ কোম্পানির শেয়ারদর।

৩ উত্তর “অস্থির পুঁজিবাজারে লেনদেন বাড়লেও মূলধন কমেছে”

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.