আজ: শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪ইং, ৩০শে চৈত্র, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ২রা শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০২ মার্চ ২০২৪, শনিবার |

kidarkar

নারীর জয়ে নীরা নিয়ে আসছে প্রাইম ব্যাংক

নিজস্ব প্রতিবেদক: সারাদেশের নারীদের ক্ষমতায়নে গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ হিসেবে ‘নারীর জয়ে নীরা’ শীর্ষক ক্যাম্পেইন চালুর ঘোষণা দিয়েছে বেসরকারি প্রাইম ব্যাংক পিএলসি। ব্যাংকটির নারীদের ব্যাংকিং সেবা ‘নীরা’র আওতায় নতুন এই ক্যাম্পেইন চালু হবে।

সম্প্রতি উইজডম ফেয়ারে এই যুগান্তকারী উদ্যোগটি উন্মোচন করেন পলিসি রিসার্চ ইনস্টিটিউটের কনসালটেন্ট এবং প্রাইম ব্যাংক চেয়ারম্যানের স্ত্রী, মুনিয়া খান। প্রাইম ব্যাংকের সহায়তায় এই ফেয়ারটির আয়োজন করে সামাজিক কল্যান সংস্থা মাঝামাঝি।

‘নারীর জয়ে নীরা’ ক্যাম্পেইনটির মূল উদ্দেশ্য হলো- দেশের নারীদের সামাজিক, মানসিক ও ব্যবসায়িক যাত্রার অভিজ্ঞতা শেয়ার করার একটি মাইক্রোসাইট প্ল্যাটফর্ম তৈ‌রি করা। যেটি যুক্ত করা হবে প্রাইম ব্যাংকের ওয়েবসাইটের সঙ্গে। এই প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে বিভিন্ন দিক নির্দেশনা পেতে অংশগ্রহণকারীরা প্রাইম ব্যাংক অথবা খাত সংশ্লিষ্টদের সাথে যুক্ত হতে পারবেন। ক্যাম্পেইনটি শুরু হতে যাছে মার্চ মাসের ১১ তারিখ থেকে।

আন্তর্জাতিক নারী দিবসের অংশ হিসাবে আয়োজন করা হয়েছে উইজডম ফেয়ার। এই ফেয়ারটি মনোবিজ্ঞান ও আলোচনার সৃজনশীল অভিব্যক্তির সমন্বয়ে পরিচালিত হয়, যার লক্ষ্য আর্ট ইনস্টলেশন, পারফরম্যান্স আর্ট এবং সাইকোলজিক্যাল গেমসের মাধ্যমে যুব, পরিবার ও সম্প্রদায়ের ক্ষমতায়ন করা।

উইজডম ফেয়ার মূলত ‘কানাডা ফান্ড ফর লোকাল ইনিশিয়েটিভ (সিএফএলআই) এর অর্থায়নে পরিচালিত ‘ব্রেকিং দ্য চেইনস’ প্রকল্পের একটি অংশ। এই প্রকল্পের প্রধান লক্ষ্য- ‘ট্রমা’ ও ‘ট্রিগারস’ এর আলোচনাগুলোতে নতুন মাত্রা যোগ করা।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মুনিয়া খান এ ধরনের উদ্যোগের প্রয়োজনীয়তার বিষয়ে গুরুত্বারোপ করে বলেন, “নারী উদ্যোক্তাদের ক্ষমতায়ন শুধু আর্থিক, সামাজিক বা মানসিক সহায়তাই নয়, বরং একটি ইকোসিস্টেম তৈরি করা, যেখানে তাদের আইডিয়াগুলো বাস্তব রূপ পেতে পারে এবং তাদের চ্যালেঞ্জগুলো সহানুভূতি ও বোঝাপড়ার মাধ্যমে সমাধান করা হয়। আর এই ইকোসিস্টেম তৈরির প্রতিশ্রুতিতে ‘নারীর জয়ে নীরা’ একটি সময়োপযোগী প্রয়াশ”।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন- প্রাইম ব্যাংকের ডাইভারসিটি অ্যান্ড ইনক্লুশন বিভাগের প্রধান মাহবুবা আশরাফ, উইমেন ব্যাংকিং বিভাগের প্রধান শায়লা আবেদীন, প্রায়োরিটি ব্যাংকিং বিভাগের প্রধান তামান্না কাদরি। এ সময় তারা ক্যাম্পেইনের বিভিন্ন দিক ও সম্ভাবনা তুলে ধরেন, যা নারীদের সামগ্রিকভাবে সমর্থন করার মাধ্যমে সমাজে উল্লেখযোগ্য প্রভাব ফেলতে পারে।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.