আজ: শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪ইং, ৬ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৯ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০১ এপ্রিল ২০২৪, সোমবার |

kidarkar

হঠাৎ ঝড়ে এলোমেলো বাংলাদেশের ব্যাটিং

স্পোর্টস ডেস্ক : রেকর্ড ৫৩১ রানে সফরকারী শ্রীলঙ্কার ইনিংস থামার পর ব্যাটিংয়ে বড় চ্যালেঞ্জ অপেক্ষা করছিল বাংলাদেশের সামনে। অবশ্য শুরুটা খারাপ হয়নি স্বাগতিকদের। গতকাল শেষ বিকেলে ব্যাট করতে নেমে উইকেটের পতন হয়েছে কেবল একটি। আজ প্রথম ঘণ্টা দারুণ প্রতিরোধের পর দ্রুত ৩ উইকেট হারিয়ে আবারও চাপে পড়ে গেছে স্বাগতিকরা।

আজ (সোমবার) চট্টগ্রাম টেস্টের তৃতীয় দিনে ১ উইকেটে ৫৫ রান নিয়ে ব্যাটিংয়ে নামে বাংলাদেশ। এদিন ব্যাট হাতে সকালটা খারাপ কাটেনি টিম টাইগার্সের। আগের দিনের দুই অপরাজিত ব্যাটার জাকির হাসান নাইটওয়াচম্যান তাইজুল ইসলাম মিলে বড় জুটি গড়ার চেষ্টা করেছেন। যদিও ব্যক্তিগত ফিফটির পর আর বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি জাকির।

ভিশ্ব ফার্নান্দোর দারুণ এক ডেলিভারিতে ফেরেন জাকির। ভেতরের দিকে ঢোকা বল জাকিরের রক্ষণ ভেদ করে উপড়ে ফেলেছে লেগ স্টাম্প। ৮ চারে ১০৪ বলে ৫৪ রান করে ফিরলেন জাকির। তার বিদায়ে ভাঙে ১২২ বলে ৪৯ রানের জুটি।

জাকিরের বিদায়ের পর যেন পথ হারিয়ে ফেলেছে বাংলাদেশও। দলীয় ৯৬ রান থেকে ৯ রান যোগ করতেই আরও দুই উইকেট হারিয়ে ফেলে স্বাগতিকরা। একে একে ফিরেছেন অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত এবং শেষমেশ নাইটওয়াচম্যান তাইজুলও। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত বাংলাদেশের সংগ্রহ ৪ উইকেট হারিয়ে ১০৫ রান। লঙ্কানদের চেয়ে এখনো পিছিয়ে আছে ৪২৫ রানে।

জাকিরের বিদায়ের পর ব্যাট করতে নেমেছিলেন টাইগার অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত। আগের টেস্টে ব্যর্থ হওয়া এই ব্যাটারের দিকে তাকিয়ে ছিল বাংলাদেশও। কিন্তু তিনি যেন নামলেন আর উঠলেন। প্রবাথ জায়াসুরিয়ার ফুল লেংথ ডেলিভারি অন ড্রাইভ করে সোজা শর্ট মিড উইকেট ফিল্ডারের হাতে ক্যাচ তুলে দিলেন। ১১ বলে মোটে ১ রান করেছেন শান্ত। এ নিয়ে সিরিজের তিন ইনিংসেই দুই অঙ্ক ছোঁয়ার আগে থামলেন তিনি।

পরের ওভারে বিশ্ব ফার্নান্ডোর শিকার তাইজুলও। জাকিরের মতো বোল্ড হয়েছেন। আবার ভেতরের দিকে ঢোকা বল ছিল, সেটি ভেদ করেছে তাইজুলের রক্ষণ। সাজঘরে ফেরার আগে ৬১ বলের ইনিংসে ২২ রান করেছেন। দিনের প্রথম ঘণ্টায় দারুণ ব্যাটিংয়ের পর পাঁচ ওভারের মধ্যে ৩ উইকেট হারিয়ে ফেলল বাংলাদেশ। ১ উইকেটে ৯৬ থেকে ৪ উইকেটে ১০৫ রানে পরিণত হয়ে চাপে বাংলাদেশ।

এর আগে দ্বিতীয় দিন শেষ বিকেলে ব্যাট করতে নেমে একমাত্র উইকেটের পতন হয়েছিল মাহমুদুল হাসান জয়ের। আরেক উদ্বোধনী ব্যাটার জাকিরের সঙ্গে জুটি গড়ার চেষ্টায় ছিলেন। তবে তাদের জুটিটা ভাঙে ১৩তম ওভারে। ভেতরের দিকে আসা লাহিরু কুমারার একটা বলে বোল্ড হয়ে যান জয়। ৪২ বলে ৩ চারে ২১ রান করে তিনি আউট হয়েছেন।

এর আগে প্রথম ইনিংসে অলআউট হওয়ার আগে রেকর্ড গড়ে লঙ্কানদের সংগ্রহ ৫৩১ রান। রানের পাহাড় গড়লেও দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম ইনিংসে লঙ্কান ব্যাটারদের কেউ সেঞ্চুরির দেখা পাননি। তাদের হয়ে অর্ধশতক পূর্ণ করেছেন ছয়জন ব্যাটার। আর এর মাধ্যমেই সেঞ্চুরিবিহীন এক ইনিংসে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড গড়ে ধনাঞ্জয়া ডি সিলভার দল। এর আগে ১৯৭৬ সালে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ভারত টেস্টের এক ইনিংসে ৫২৪ রান করেছিল। যা ছিল কোনো ব্যাটারের সেঞ্চুরি ছাড়া টেস্ট ইনিংসে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড। সেটি টপকে আরও ৭ রান বেশি করেছে লঙ্কানরা।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.