আজ: শনিবার, ২৫ মে ২০২৪ইং, ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৫ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

১১ মে ২০২৪, শনিবার |

kidarkar

সোনালীর সঙ্গে একীভূত হচ্ছে বিডিবিএল, রোববার চুক্তি

নিজস্ব প্রতিবেদক: পদ্মা-এক্সিম ব্যাংকের পর এবার রাষ্ট্র মালিকানাধীন বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক (বিডিবিএল) একীভূত হচ্ছে সোনালী ব্যাংকের সঙ্গে। সবকিছু ঠিক থাকলে আগামীকাল রোববার (১২ মে) দুই ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদ একীভূতের সিদ্ধান্ত অনুমোদনের পরিপ্রেক্ষিতে চুক্তি সম্পন্ন করতে পারে।

একীভূতের চুক্তি সই অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর আব্দুর রউফ তালুকদার। বাংলাদেশ ব্যাংক ও রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন ব্যাংক দুটির বিশ্বস্ত সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

বিডিবিএল সূত্র জানায়, মার্জারের বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনা ছিল, বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের পর্ষদ অনুমোদন দিয়েছে। গত বুধবার বিষয়টি অনুমোদন হয়েছে সোনালী ব্যাংকের পর্ষদ সভায়। দুটো সরকারি ব্যাংক একমত হওয়ায় মার্জ (একীভূত) হবে। ব্যাংক দুটির বোর্ডের সিদ্ধান্ত বাংলাদেশ ব্যাংককে অবহিত করার পরে রোববার চুক্তি হচ্ছে। এরপর বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনা অনুযায়ী মার্জার প্রক্রিয়ার পরবর্তী ধাপ শুরু হবে।

ব্যাংক খাতে স্থিতিশীলতা ফেরানোর কথা বলে তাড়াহুড়ো করে একীভূত কারার সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ ব্যাংক। এর ফলে এখন ব্যাংক একীভূত করার বিষয়ে পাঁচ দুর্বল ব্যাংকের চারটিই রাজি নয়। এখন পর্যন্ত ডুবতে বসা পদ্মা ব্যাংক ছাড়া বাকি চার দুর্বল ব্যাংকই এর বিপক্ষে মত দিয়েছে। এসব ব্যাংকের মধ্যে দুটি ব্যাংক এ সিদ্ধান্ত প্রত্যাখ্যান করেছে, একটি ব্যাংকের কর্মকর্তারা আন্দোলনে নেমেছেন। ক্ষুব্ধ আরেক ব্যাংকের কর্মকর্তারা।

ঝুঁকিতে থাকা দুর্বল ব্যাংকগুলোকে অপেক্ষাকৃত সবল ব্যাংকের সঙ্গে একীভূত করার উদ্যোগ নিতে বাংলাদেশ ব্যাংকে পরামর্শ দিয়ে আসছে আইএমএফ। তারই অংশ হিসেবে রোডম্যাপ ঠিক করা হয়। পাশাপাশি ব্যাংকগুলোকে এক বছর সময় দিয়ে ‘প্রম্পট কারেক্টিভ অ্যাকশন (পিসিএ)’ নীতি ঘোষণা করে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। গত বুধবারও আইএমএফ সংবাদ সম্মেলনে দুর্বল ব্যাংকে সবল ব্যাংকের সঙ্গে একীভূতের বিষয়টি বাস্তবায়নের তাগিদ দেয়। এতে নতুন করে দুটো ব্যাংক একীভূত করতে যাবতীয় প্রস্তুতি শেষ করেছে।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.