আজ: রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ইং, ১২ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ১৩ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

১০ নভেম্বর ২০১৫, মঙ্গলবার |

kidarkar

সার্কিট ব্রেকারে দুর্বল মৌলভিত্তির ৩ কোম্পানি

circuit breaker_SharebazarNewsশেয়ারবাজার রিপোর্ট: সপ্তাহের তৃতীয় কার্যদিবসে সার্কিট ব্রেকার স্পর্শ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত জেড ক্যাটাগরীর তিন কোম্পানি। কোম্পানিগুলো হলো: তাল্লু স্পিনিং, মডার্ন ডাইং এবং রহিমা ফুড। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

তাল্লু স্পিনিং: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ‘জেড’ ক্যাটাগরির কোম্পানি তাল্লু স্পিনিং। মঙ্গলবার এ শেয়ারের সার্কিট ব্রেকারে সর্বনিম্ন সীমা ছিল ১৪.৪০ টাকা এবং সর্বোচ্চ ১৭.৬০ টাকা। এই দিনে কোম্পানিটির শেয়ার দর ১৭.৬০ টাকায় স্পর্শ করাতে তা সার্কিট ব্রেকাররের আওতায় চলে আসে।

কোম্পানিটির বার্ষিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা এবং ডিভিডেন্ড জনিত বোর্ড সভা আগামী ১৪ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে কোম্পানিটির তিনটি প্রান্তিক প্রতিবেদনে দেখা যায় প্রথম প্রান্তিকের লোকসানের তুলনায় দ্বিতীয় প্রান্তিকে লোকসান বাড়লেও কোম্পানি তৃতীয় প্রান্তিকে তার পরিমান কমিয়ে এনেছে। আর বার্ষিক প্রতিবেদনে তার ধারাবাহিকতা রক্ষা করলে কোম্পানিটি হয়তো লাভের মুখ দেখতে পারে। এই আশায় শেয়ারটির প্রতি বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ বেড়েছে। এমনটাই মনে করছেন বাজার সংশ্লিষ্টরা।

কোম্পানিটি প্রথম প্রান্তিকে শেয়ারপ্রতি লোকসান করেছে ০.১২ টাকা, দ্বিতীয় প্রান্তিকে ০.২৫ টাকা এবং তৃতীয় প্রান্তিকে এর পরিমান কমে দাড়িয়েছে ০.১৬ টাকা। গত বছর কোম্পানিটি বিনিয়োগকারীদের কোন ডিভিডেন্ড দেয়নি এবং তার আগের বছর ১৫ শতাংশ বোনাস ডিভিডেন্ড দিয়েছিল।

আজ কোম্পানিটির শেয়ার দর ১০ শতাংশ বা ১.৬০ টাকা বেড়েছে। এই সময় প্রতিষ্ঠানটির শেয়ার দর ১৬.২০ টাকা থেকে ১৭.৬০ টাকা পর্যন্ত ওঠানামা করে সর্বশেষ ১৭.৬০ টাকায় লেনদেন হয়। এর মোট ১ লাখ ১৬ হাজার ৮১টি শেয়ার ১১৭ বার হাত বদল হয়। যার বাজার মূল্য ১ কোটি ১৬ লাখ ৮১ হাজার টাকা।

মডার্ন ডাইং: বস্ত্র খাতের এবং ‘জেড’ ক্যাটাগরির কোম্পানি মডার্ন ডাইং এন্ড স্ক্রীণ প্রিন্টিং লিমিটেড। মঙ্গলবার কোম্পানিটির শেয়ার দর ১০ শতাংশ বা ১২.৩০ টাকা বেড়েছে। এইদিন সার্কিট ব্রেকারে কোম্পানির শেয়ারদরের সর্বনিম্ন সীমা ছিল ১১০.৭০ টাকা এবং সর্বোচ্চ ১৩৫.৩০ টাকা। এই দিনে কোম্পানিটির শেয়ার দর ১৩৫.৩০ টাকায় স্পর্শ করাতে তা সার্কিট ব্রেকাররের আওতায় চলে আসে।

সদ্য প্রকাশিত কোম্পানির প্রথম প্রান্তিকের আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটি লোকসান থেকে মুনাফায় ফিরেছে। এই কারনেই এই শেয়ারে বিনিয়োগকারীদের এত আগ্রহ বলে মনে করছেন বাজার সংশ্লিষ্টরা। কোম্পানিটি গত বছর প্রথম প্রান্তিকে (জুলাই১৪-সেপ্টেম্বর১৪) শেয়ার প্রতি লোকসানে ছিল ০.৫৪ টাকা। আর এ বছর প্রথম প্রান্তিকে (জুলাই১৫-সেপ্টেম্বর১৫) শেয়ারপ্রতি আয় হয়েছে ০.৩৫ টাকা। ইতিমধ্যে কোম্পানিটি ৩০ জুন ২০১৫ সমাপ্ত অর্থবছরের জন্য ১০ শতাংশ ক্যাশ ডিভিডেন্ড দিয়েছে।

সর্বশেষ তথ্যমতে, কোম্পানিটির শেয়ার দর ১৩৫.২০ টাকা থেকে ১৩৫.৩০ টাকায় ওঠানামা করে সর্বশেষ ১৩৫.৩০ টাকায় লেনদেন হয়। এ কোম্পানিটির মোট ২ হাজার ৪৪৩টি শেয়ার মোট ৩২ বার হাত বদল হয়। যার বাজার দর ২ হাজার ৪৪৩ টাকা।

রহিমা ফুডের: ১৯৯৭ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হওয়া ‘জেড’ ক্যাটাগরির খাদ্য ও আনুষাঙ্গিক খাতের কোম্পানি রহিমা ফুডস। মঙ্গলবার এ কোম্পানির সার্কিট ব্রেকার সর্বনিম্ন সীমা ছিল ৩২.৪০ টাকা এবং সর্বোচ্চ ৩৯.৬০ টাকা। এই দিনে কোম্পানিটির শেয়ার দর ৩৯.৬০ টাকায় স্পর্শ করাতে তা সার্কিট ব্রেকাররের আওতায় চলে আসে।

সর্বশেষ প্রকাশিত তৃতীয় প্রান্তিকের (জানু১৫-মার্চ১৫) আর্থিক প্রতিবেদন ‍অনুযায়ী কোম্পানিটি শেয়ারপ্রতি লোকসানের পরিমান অর্ধেকে নামিয়ে এনেছে। এ জন্যই বিনিয়োগকারীরা এ শেয়ারে আগ্রহী হচ্ছে বলে অনেকেই মনে করেন।

তৃতীয় প্রান্তিকে (জানু১৫-মার্চ১৫) কোম্পানিটি শেয়ারপ্রতি লোকসান করেছে ০.১৩ টাকা। আগের বছর একই সময়ে যার পরিমান ছিল ০.২৬ টাকা। সেই হিসাবে কোম্পানিটি তার লোকসান অর্ধেকে নামিয়ে এনেছে।

আজ কোম্পানিটির শেয়ার দর ১০ শতাংশ বা ৩.৬০ টাকা বেড়েছে। এই সময় কোম্পানিটির শেয়ার দর ৩৭.৭০ টাকা থেকে ৩৯.৬০ টাকায় ওঠানামা করে সর্বশেষ ৩৯.৬০ টাকায় লেনদেন হয়। এ কোম্পানিটির মোট ৩৮ হাজার ৯০২টি শেয়ার ১৫৫ বার হাত বদল হয়। যার বাজার মূল্য ৩৮ হাজার ৭০২ টাকা।

শেয়ারবাজারনিউজ/রু

 

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.