আজ: শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ইং, ১১ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ১২ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

১৪ নভেম্বর ২০১৫, শনিবার |

kidarkar

দীর্ঘমেয়াদী বিনিয়োগের আহবান

Atiur_rahman-1428577529শেয়ারবাজার রিপোর্ট: ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পে স্বল্পমেয়াদী বিনিয়োগের পাশাপাশি বড় শিল্প ও অবকাঠামো নির্মাণে ব্যাংকগুলোকে দীর্ঘমেয়াদী বিনিয়োগের আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ড. আতিউর রহমান। এজন্য দীর্ঘমেয়াদী সঞ্চয় স্কিম বাড়ানোর তাগিদ দিয়েছেন তিনি।
আজ ১৪ নভেম্বর শনিবার রাজধানীর হোটেল রেডিসন ব্লু-তে ‘ইন্টারন্যাশনাল সেমিনার অব ব্যাংকিং ইন বাংলাদেশ: দ্য লিপ ফরওয়ার্ড’ শীর্ষক সেমিনারে এ আহ্বান জানান গভর্নর।
দেশি-বিদেশি ব্যাংকিং প্রফেশনালদের অংশগ্রহণে আয়োজিত দিনব্যাপী এ সেমিনারের আয়োজন করে অ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংকার্স বাংলাদেশ লিমিটেড (এবিবি)।
সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ড. আতিউর রহমান বলেন, ব্যাংকগুলোকে স্বল্পমেয়াদী বিনিয়োগের পাশাপাশি দীর্ঘমেয়াদী বিনিয়োগ করতে হবে। উড়াল সেতু, ব্রিজসহ বিভিন্ন দীর্ঘমেয়াদী প্রকল্পে বিনিয়োগ করা দরকার।
তিনি বলেন, যদিও দীর্ঘমেয়াদী বিনিয়োগে রিটার্ন দেরিতে আসে বিধায় বিপাকে পড়তে হয়। এজন্য স্বল্পমেয়াদী সঞ্চয়ের মতো দীর্ঘমেয়াদী সঞ্চয় স্কিম বাড়াতে হবে। সরকারি ব্যাংকগুলোর মতো দীর্ঘমেয়াদী সেভিংস স্কিম করতে হবে।
পেনশন ও প্রভিডেন্ট ফান্ড স্কিমের বাইরে সাধারণ নাগরিকের পেনশন সেভিংস স্কিম এবং বিদেশিদের রেমিট্যান্স সেভিংস স্কিম করতে বাংলাদেশ ব্যাংক সরকারের সঙ্গে কাজ করছে বলেও জানান তিনি।
গভর্নর আরও বলেন, আমরা দীর্ঘমেয়াদী বিনিয়োগের জন্য বিশ্বব্যাংকের অর্থায়নে ইতিমধ্যে ৩০০ মিলিয়ন ইউএস ডলারের ফান্ড গঠন করেছি। নিজস্ব অর্থায়নে আরও ২০০ মিলিয়নের ফাণ্ড করবো।
এবিবির চেয়ারম্যান ও ইস্টার্ন ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আলী রেজা ইফতেখারের সভাপতিত্বে আয়োজিত ওই সেমিনারে ‘সম্পদ ও দায় ব্যবস্থাপনা’ এবং ‘প্রযুক্তি ভূমিকা’ বিষয়ে দুটি পৃথক সেশন অনুষ্ঠিত হয়।
সেশন দুটি পরিচালনা করেন বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল আরবিট্রেশন সেন্টারের প্রধান নির্বাহী ও বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গভর্নর মুহাম্মদ এ. (রুমী) আলী এবং আরএসএ এডভাইজারি লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী কে. মাহমুদ সাত্তার।
‘সম্পদ ও দায় ব্যবস্থাপনা’ বিষয়ে মূলপ্রবন্ধ পাঠ করেন স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংকের আঞ্চলিক প্রধান (দক্ষিণ এশিয়া) প্রশান্ত রঞ্জিত। প্রবন্ধের ওপর আলোচনা করেন বাংলাদেশের নির্বাহী আবরার এ আনওয়ার এবং আইএফআইসি ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম শাহ আলম সরওয়ার।
‘প্রযুক্তি ভূমিকা’ বিষয়ে মূলপ্রবন্ধ পাঠ করেন আর্নেস্ট অ্যান্ড ইয়ং’র পার্টনার অ্যান্ড ন্যাশনাল লিডার আবিজার দেওয়ানজি। এ প্রবন্ধের ওপর আলোচনা করেন টেকনোহেভেন’র প্রধান নির্বাহী হাবিবুল্লাহ এন করিম, বেসিস’র যুগ্ম মহাসচিব মোস্তাফিজুর রহমান সোহেল এবং ডাচ বাংলা ব্যাংকের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবুল কাশেম মো. শিরিন।
বিপর্যয় ব্যবস্থাপনার ওপর বক্তব্য রাখেন স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড বাংকের বিজনেস কনটিউনিটির আঞ্চলিক প্রধান জেসুয়া জেমস। এছাড়াও সেমিনারে ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আব্দুল মান্নানসহ বিভিন্ন ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও চেয়ারম্যানরা উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ারবাজারনিউজ/অ/মু

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.