আজ: সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪ইং, ২রা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৪ঠা শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৬, মঙ্গলবার |

kidarkar

৫ কোম্পানিকে বিএসইসির জরিমানা

BSECশেয়ারবাজার রিপোর্ট: নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন এবং অনিরীক্ষিত প্রান্তিক প্রতিবেদন নির্ধারিত সময়ের মধ্যে জমা দিতে ব্যর্থ হওয়ায় ওভার দ্য কাউন্টার মার্কেটের (ওটিসি) ৪ কোম্পানি এবং মূল মার্কেটের বিচ হ্যাচারী কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ অন্যান্য পরিচালকদের (স্বতন্ত্র পরিচালক ছাড়া) আর্থিক জরিমানা করেছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এন্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। ওটিসির কোম্পানিগুলো হলো: কাশেম টেক্সটাইল মিলস, কাশেম সিল্ক মিলস, এক্সেলসিয়র সুজ এবং হিল প্লানটেশন  লিমিটেড।

মঙ্গলবার ২৩ ফেব্রুয়ারি বিএসইসি’র ৫৬৭তম কমিশন সভায় এ পাঁচ কোম্পানিকে জরিমানা করা হয়। বিএসইসি’র মুখপাত্র ও নির্বাহী পরিচালক মো: সাইফুর রহমান স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বিচ হ্যাচারী  লিমিটেড ডিসেম্বর ৩১, ২০১৪ সমাপ্ত অর্থবছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন দাখিলে ব্যর্থতা সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ রুলস,১৯৮৭ এর রুল ১২ এর লঙ্ঘন। অনুরূপভাবে মার্চ ৩১,২০১৫ সময়ে সমাপ্ত ১ম প্রান্তিকের আর্থিক প্রতিবেদন এবং জুন ৩০, ২০১৫  সময়ে সমাপ্ত অর্ধবার্ষিক আর্থিক প্রতিবেদন  দাখিলে ব্যর্থতা সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ রুলস, ১৯৮৭ এর রুল ১৩ এবং কমিশনের নোটিফিকেশন নং- SEC/CMRRCD/2008-183/Admin/03-31,তারিখ সেপ্টেম্বর ২৭,২০০৯ এর লঙ্ঘন। উল্লেখিত সিকিউরিটিজ আইন সমূহ ভঙ্গের জন্য কমিশন বিচ হ্যাচারীর ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ প্রত্যেক পরিচালককে (স্বতন্ত্র পরিচালক ব্যাতিত) এক লাখ টাকা করে জরিমানা ধার্য করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে।

কাশেম টেক্সটাইল মিলস: প্রতিষ্ঠানটি ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৪ সমাপ্ত হিসাব বছরের নিরীক্ষিত প্রতিবেদন নির্ধারিত সময়ের মধ্যে দাখিল করতে ব্যর্থ হয়েছে। যা সিকিউরিটিজ এন্ড এক্সচেঞ্জ রুলস, ১৯৮৭ এর ধারা ১২ এর লঙ্ঘন। এছাড়া কোম্পানিটি ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৪ সময়ে সমাপ্ত প্রথম প্রান্তিক এবং ৩১ মার্চ ২০১৫ সময়ে সমাপ্ত দ্বিতীয় প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত প্রতিবেদন দাখিল করতে পারেনি। যা সিকিউরিটিজ এন্ড এক্সচেঞ্জ রুলস, ১৯৮৭ এর ধারা ১৩ এর লঙ্ঘন। তাই বিএসইসি কোম্পানিটির ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ প্রত্যেক পরিচালককে (স্বতন্ত পরিচালক ব্যতিত) এক লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে।

কাশেম সিল্ক মিলস: প্রতিষ্ঠানটি ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৪ সমাপ্ত হিসাব বছরের নিরীক্ষিত প্রতিবেদন নির্ধারিত সময়ের মধ্যে দাখিল করতে ব্যর্থ হয়েছে। যা সিকিউরিটিজ এন্ড এক্সচেঞ্জ রুলস, ১৯৮৭ এর ধারা ১২ এর লঙ্ঘন। এছাড়া কোম্পানিটি ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৪ সময়ে সমাপ্ত প্রথম প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত প্রতিবেদন এবং ৩১ মার্চ ২০১৫ সমাপ্ত অর্ধ বার্ষিক আর্থিক প্রতিবেদন দাখিল করতে পারেনি। যা সিকিউরিটিজ এন্ড এক্সচেঞ্জ রুলস, ১৯৮৭ এর ধারা ১৩ এর লঙ্ঘন।  তাই বিএসইসি কোম্পানিটির ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ প্রত্যেক পরিচালককে  (স্বতন্ত পরিচালক ব্যতিত) এক লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে।

এক্সেলসিয়র সুজ: প্রতিষ্ঠানটি ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৪ সমাপ্ত হিসাব বছরের ৩১ মার্চ ২০১৫ সমাপ্ত প্রথম প্রান্তিকের আর্থিক প্রতিবেদন দাখিল করতে ব্যর্থ হয়েছে। যা সিকিউরিটিজ এন্ড এক্সচেঞ্জ রুলস, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০০৯ এর লঙ্ঘন। তাই বিএসইসি কোম্পানিটির ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ প্রত্যেক পরিচালককে এক লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। উল্লেখ্য, কোম্পানিটির স্বতন্ত্র পরিচালককে জরিমানা দিতে হবে না।

হিল প্লান্টটেশন লিমিটেড:  প্রতিষ্ঠানটি ৩০ জুন ২০১৪ সমাপ্ত অর্থবছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন দাখিলে ব্যর্থতা সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ রুলস,১৯৮৭ এর রুল ১২ এর লঙ্ঘন। অনুরূপভাবে সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৪ সময়ে সমাপ্ত ১ম প্রান্তিকের আর্থিক প্রতিবেদন,ডিসেম্বর ৩১ ২০১৪ সময়ে সমাপ্ত অর্ধবার্ষিক আর্থিক প্রতিবেদন এবং মার্চ ৩১,২০১৫ সময়ে সমাপ্ত ৩য় প্রান্তিকের আর্থিক প্রতিবেদন দাখিলে ব্যর্থতার জন্য সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ রুলস, ১৯৮৭ এর রুল ১৩ এবং কমিশনের নোটিফিকেশন নং- SEC/CMRRCD/2008-183/Admin/03-31,তারিখ সেপ্টেম্বর ২৭,২০০৯ এর লঙ্ঘন। উল্লেখিত সিকিউরিটিজ আইন সমূহ ভঙ্গের জন্য কমিশন হিল প্লান্টেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ প্রত্যেক পরিচালককে (স্বতন্ত্র পরিচালক ব্যাতিত) দুই লাখ টাকা করে জরিমানা ধার্য করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে।

শেয়ারবাজারনিউজ/ম.সা

 

 

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.