আজ: বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪ইং, ৫ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৭ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০১ মার্চ ২০১৬, মঙ্গলবার |

kidarkar

মধ্যপ্রাচ্যে বাংলাদেশি পণ্যের রপ্তানি বাড়বে

amuশেয়ারবাজার ডেস্ক : বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস অ্যান্ড টেস্টিং ইন্সটিটিউশন (বিএসটিআই) এবং সৌদি আরবের জাতীয় মান সংস্থা সৌদি স্ট্যান্ডার্ডস, মেট্রোলজি অ্যান্ড কোয়ালিটি অর্গানাইজেশনের (এসএএসও) মধ্যে মানবিষয়ক দ্বিপাক্ষিক কারিগরি সহায়তা চুক্তি রিয়াদে স্বাক্ষরিত হয়েছে। এতে মধ্যপ্রাচ্যে বাংলাদেশি পণ্যের রপ্তানি বাড়বে বলে মনে করছেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু।

সৌদি সফররত শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমুর উপস্থিতিতে বাংলাদেশের পক্ষে বিএসটিআই এর মহাপরিচালক মোঃ ইকরামুল হক এবং সৌদি আরবের পক্ষে সাসো’র গভর্ণর সা’দ বিন ওতমান আল-কাসাবি আজ মঙ্গলবার এ চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন। শিল্প মন্ত্রণালয় এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ খবর জানিয়েছে।

উল্লেখ্য, এ চুক্তি সম্পাদনের ফলে সৌদি আরবসহ মধ্য প্রাচ্যের দেশগুলোতে বিএসটিআই প্রদত্ত মান সনদ গ্রহণযোগ্য হবে। ফলে এসব দেশে বাংলাদেশি পণ্যের রপ্তানি বাড়বে।

এর আগে শিল্পমন্ত্রী সৌদি আরবের বিখ্যাত সার ও রাসায়নিক দ্রব্য উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান সৌদি এরাবিয়া বেসিক ইন্ডাস্ট্রিজ কর্পোরেশনের (এসএবিআইসি) নির্বাহি ভাইস প্রেসিডেন্টের সাথে বৈঠক করেন। বিএসটিআই এর মহাপরিচালক মোঃ ইকরামুল হক, সৌদি আরবে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত গোলাম মশীসহ বাংলাদেশ দূতাবাসের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এসময় উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকে সাবিকের নির্বাহি ভাইস প্রেসিডেন্ট বলেন, বর্তমানে সাবিক বিশ্বের চতুর্থ বৃহৎ কেমিক্যাল পণ্য উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান। এটি বিশ্বমানের কেমিক্যাল, ইন্ডাস্ট্রিয়াল পলিমার, সার ও ধাতবপণ্য উৎপাদন করছে। তিনি বাংলাদেশে রসায়ন শিল্পের উন্নয়নে বিনিয়োগের আগ্রহ প্রকাশ করেন।

শিল্পমন্ত্রী এসএবিআইসি উৎপাদিত ইউরিয়া সারের গুণগতমানের প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, বাংলাদেশের কৃষকদের মধ্যে এ সার অত্যন্ত জনপ্রিয়। ২০০৭-০৮ অর্থবছর থেকে বাংলাদেশ সাবিক উৎপাদিত ইউরিয়া সার আমদানি করে আসছে। চলতি অর্থবছর বাংলাদেশ এ প্রতিষ্ঠান থেকে ৩ লাখ মেট্রিক টনেরও বেশি ইউরিয়া সার আমদানি করা হবে। ২০১৬-১৭ অর্থবছরের জন্য ইতোমধ্যে ৩ লাখ ৫ হাজার মেট্রিক টন ইউরিয়া সার আমদানির চুক্তি করা হয়েছে।

পরে মন্ত্রী বাংলাদেশে সৌদি আরবের বিনিয়োগ বাড়াতে সৌদি শিল্প উদ্যোক্তা সংগঠন ‘কাউন্সিল অব সৌদি চেম্বার’ এর নেতাদের সাথে বৈঠক করেন। এছাড়া, তিনি সৌদি আরবের বিনিয়োগ কর্তৃপক্ষ ‘সৌদি এরাবিয়ান জেনারেল ইনভেস্টমেন্ট অথরিটি’ এর উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাথে দ্বিপাক্ষিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে আলোচনা করেন।

বিকেলে শিল্পমন্ত্রী সৌদি আরবের বিখ্যাত স্টিল ও মেটাল প্রক্রিয়াজাতকরণ শিল্প কারখানা মেডেন ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডসহ কয়েকটি শিল্প কারখানা পরিদর্শন করেন।

শেয়ারবাজারনিউজ/অ

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.