আজ: বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪ইং, ৫ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৭ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০২ মার্চ ২০১৬, বুধবার |

kidarkar

পতন থামছে না: ৬দিনে সূচক পড়েছে ২.৬২ শতাংশ

BAZARশেয়ারবাজার রিপোর্ট: পুঁজিবাজারে স্টক এক্সচেঞ্জ গুলোয় সূচকের পতন চলছেই। এমন প্ররিস্থিতিতে আজও দেশের উভয় স্টক এক্সচেঞ্জে সূচকের পতন ঘটেছে। আর এ নিয়ে টানা ৬দিন দেশের উভয় স্টক এক্সচেঞ্জে সূচকের পতন ঘটেছে। আর এ ৬ দিনে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচক ২.৬২ শতাংশ অর্থাৎ ১১৭.৩৫ পয়েন্ট কমেছে।

তবে আজ বুধবার ডিএসই-তে সূচকের পতন ঘটলেও লেনদেন আগের দিনের তুলনায় ৩১ শতাংশ বেড়েছে।

এদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) সূচকের পতন ঘটলেও লেনদেন আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে।

এ প্রসঙ্গে বাজার সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন, সম্প্রতি মেয়াদি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের অবসায়ন নিয়ে আইনি জটিলতার কারণে বাজারে অস্থিরতা তৈরি হয়েছে। তাছাড়া বিষয়টি আদালতে বিচারাধীন অবস্থায় থাকা সত্ত্বেও নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এন্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়া ফান্ডগুলোকে গুটিয়ে নিতে স্বল্প সময় বেঁধে দেয়। পরিণতিতে সম্পদ ব্যবস্থাপক কোম্পানিকে ফন্ডের কাছে থাকা শেয়ারগুলো তড়িঘড়ি করে বিক্রি করতে হচ্ছে।

একাধিক মার্চেন্ট ব্যাংক এবং ব্রোকারেজ হাউজের প্রধান নির্বাহীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, নতুন নতুন আইপিও বাজারে আসছে। কিন্তু নতুন বিনিয়োগ আসছে না। যে কারণে বিনিয়োগকারীরা সেকেন্ডারি মার্কেট থেকে টাকা তুলে আইপিও-তে বিনিয়োগ করছে। পরিণতিতে বাজারে টানা পতন চলছে। পাশাপাশি সরকারের আশ্বাস থাকা সত্ত্বেও বিএসইসি’র কার্যকর উদ্যোগের অভাবে এখনও শেয়ারবাজারে ব্যাংকের বিনিয়োগ সমন্বয়ের সময়সীমা বাড়েনি। তাই প্রতিষ্ঠানগুলোর কাছে অলস টাকা থাকা সত্ত্বেও তারা পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ বাড়াতে পারছে না।

বুধবার দিনশেষে ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ২১.৮৬ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৪৪৬২ পয়েন্টে। ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৫.৬৬ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১০৮৩ পয়েন্টে এবং ডিএসই-৩০ সূচক ২ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১৭১৩ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩১১টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১০৪টির, কমেছে ১৬৩টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৪টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের দর। আজ ডিএসইতে মোট ৫৭৮ কোটি ৪৩ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে।

এর আগের দিন মঙ্গলবার ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স ছিল ৪৪৮৪ পয়েন্ট। ডিএসই শরিয়াহ সূচক ছিল ১০৮৯ পয়েন্ট এবং ডিএসই-৩০ সূচক ছিল ১৭১৫ পয়েন্ট। এদিন ডিএসইতে মোট ৪৪০ কোটি ৬৩ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছিল। সে হিসেবে আজ ডিএসইতে লেনদেন ১৩৭ কোটি ৮০ লাখ টাকা বেড়েছে।

এদিকে আজ দিনশেষে সিএসই সাধারণ মূল্যসূচক ৪৭ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৮৩৬৪ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ২৩৩টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ৭১টির, কমেছে ১২৯টির ও দর অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৩টির। আজ সিএসই-তে মোট লেনদেন হয়েছে ৩৪ কোটি ৯৬ লাখ টাকা।

এর আগের দিন সিএসই সাধারণ মূল্যসূচক ছিল ৮৪১২ পয়েন্ট। এদিন সিএসই-তে মোট লেনদেন হয়েছিল ২৮ কোটি টাকা। সে হিসাবে সিএসই-তে আজ লেনদেন বেড়েছে।

শেয়ারবাজারনিউজ/মু

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.