আজ: বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪ইং, ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৬ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০২ এপ্রিল ২০১৬, শনিবার |

kidarkar

বগুড়ায় নির্বাচন পরবর্তি সহিংসতা: আহত ৫০

_72059258_020490861-1শেয়ারবাজার রিপোর্ট: ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন পরবর্তি সহিংসতায় বগুড়ার সোনাতলায় ইউনিয়ন পরিষদের ১৫ জন আহত হয়েছেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ ২৫ রাউন্ড শর্টগানের গুলি ছুঁড়ে।সহিংসতা পরবর্তি পরিস্থিতিতে এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। শনিবার সোনাতলা উপজেলার দিগদাইড় ইউনিয়নের পাঠানপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, ওই এলাকায় বিলবাইশায় সরকারি খাস জমির দখল নিয়ে নির্বাচনে বিজয়ী আব্দুস সামাদের সঙ্গে পরাজিত প্রার্থী সেলিম হোসেনের দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিল। আব্দুস সামাদ বিজয়ী হওয়ার পর তার সমর্থকরা বিজয় উল্লাস করে সকালে ওই খাস জমিতে লাগানো আধাপাকা বোরো ধান কাটতে যায়। ধান কাটার বিষয় জানতে পেরে সেলিম হোসেনের সমর্থকরাবাধা দেন। এ নিয়ে দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। সংঘর্ষের সময় উভয়পক্ষের কমপক্ষে ১৫ জন আহত হন। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে ২৫ রাউন্ড শর্টগানের গুলি ছুঁড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। এ ঘটনার পর আরও সংঘর্ষের আশঙ্কায় স্থানীয় প্রশাসন শনিবার দুপুর ২টা থেকে রোববার সকাল ১০টা পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি করে।

সোনাতলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হাবিবুর রহমান বলেন, পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে সেখানে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। সোনাতলা থানার ওসি মোতালেব হোসেন বলেন, ‘সংঘর্ষ থামাতে ২৫ রাউন্ড শর্টগানের গুলি ছুঁড়তে হয়েছে।’

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.