আজ: বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪ইং, ৫ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৭ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

১৪ এপ্রিল ২০১৬, বৃহস্পতিবার |

kidarkar

জ্বালানি ব্যবস্থাপনায় বাংলাদেশের উন্নতি

Energyশেয়ারবাজার ডেস্ক: জ্বালানি ব্যবস্থাপনার ক্ষেত্রে বাংলাদেশ উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি করেছে বলে জানিয়েছে ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম (ডব্লিউইএফ)। সংস্থাটির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বৈশ্বিক জ্বালানি সূচকে সাত ধাপ এগিয়েছে বাংলাদেশ। সরকারি বার্তা সংস্থা বাসস এ তথ্য জানিয়েছে।

জেনেভাভিত্তিক এই সংস্থাটির জ্বালানিবিষয়ক বার্ষিক প্রতিবেদন ‘এনার্জি আর্কিটেকচার পারফরম্যান্স ইনডেক্স (ইএপিআই)-২০১৬’ তে এ বছর বাংলাদেশের অবস্থান ১০৬। গত বছর যা ছিল ১১২তম অবস্থানে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি, উন্নয়ন এবং পরিবেশগত ধারণক্ষমতার বিষয়েও জ্বালানি ব্যবস্থাপনা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে।

বাংলাদেশের বিদ্যুৎ উৎপাদন ক্ষমতা আগের চেয়ে বেড়েছে। এখন প্রতিদিন গড়ে সাড়ে সাত হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন করে বাংলাদেশ, যা দেশটির দুই-তৃতীয়াংশ মানুষকে বিদ্যুতের আওতায় আনে। তবে ২০২১ সালের মধ্যে দেশের সব মানুষকে বিদ্যুতের আওতায় আনার পরিকল্পনা রয়েছে বাংলাদেশ সরকারের।

একটি দেশের নিরাপদ, সাশ্রয়ী এবং টেকসই জ্বালানি সরবরাহের সক্ষমতার ওপর ভিত্তি করে এই সূচক তৈরি করে ইএপিআই।তালিকার শীর্ষে আছে সুইজারল্যান্ড। এর পরেই নরওয়ের অবস্থান। তৃতীয় স্থানে আছে তিনটি দেশ—সুইডেন, ফ্রান্স ও ডেনমার্ক।

অন্যদিকে মোট ১২৬টি দেশের মধ্যে তালিকার একেবারে শেষে রয়েছে বাহরাইনের নাম। এর ঠিক ওপরেই রয়েছে লেবানন, ইয়েমেন, হাইতি ও ইথিওপিয়া। দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে ৫৪তম অবস্থানে আছে শ্রীলঙ্কা, ৯০-এ ভারত, ১০৩ নম্বরে পাকিস্তান ও ১১৫তম অবস্থানে নেপাল।

শেয়ারবাজারনিউজ/রু

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.