আজ: বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪ইং, ৫ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৭ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

১৫ এপ্রিল ২০১৬, শুক্রবার |

kidarkar

ঝলসানো রোদ থেকে ত্বকের মুক্তিতে ১০টি ঘরোয়া টোটকা

ত্বকতীব্র গরম, সঙ্গে চাঁদিফাটা রোদ। ঝলসানো রোদে ট্যান হওয়ার প্রবল সম্ভাবনা। কিন্তু বাইরে তো বেরোতেই হবে। কীভাবে মুক্তি পাবেন ট্যান থেকে? রইল ১০টি ঘরোয়া টোটকা। বাতাসে উষ্ণতা বাড়ছে। এর প্রভাব পড়ছে ত্বকেও। ঝলসানো রোদে ট্যান হওয়ার প্রবল সম্ভাবনা। কিন্তু বাইরে তো বেরোতেই হবে। এ সময়ে বেশি পরিমাণে জল ও ফল খাওয়া ভাল। পাশাপাশি, সপ্তাহে অন্তত দুবার মুখে ফেসপ্যাক লাগানো অত্যন্ত জরুরি। ভেষজ উপাদান ব্যবহারে ত্বকের যত্ন হয় প্রাকৃতিক উপায়ে। ত্বকে কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দেয় না।

১. শশা, গোলাপ জল এবং পাতি লেবুর রসের প্যাক: তৈলাক্ত ত্বকের জন্য শশা খুব ভালো টোনার হিসেবে কাজ করে। মুখের ত্বক পরিষ্কার করার জন্য শশা, পাতিলেবুর রস ভাল কাজ করে। সঙ্গে গোলাপ জল মিশিয়ে নিলে সতেজ থাকবে ত্বক। এই তিনের মিশ্রণ আধা ঘণ্টা প্রথমে রেখে দিন। পরে  মুখে ও ঘাড়ে মিশ্রণটি ভালমতো মেখে ২০ মিনিট রাখুন। তার পর ভাল করে ধুয়ে রোদে বেড়িয়ে পড়ুন।

২. কাঁচা হলুদ, বেসন এবং পাতি লেবুর রসের প্যাক: শুষ্ক ত্বক উজ্জ্বল ও সতেজ করতে এবং ট্যান থেকে মুক্তি পেতে কাঁচা হলুদ, বেসন, পাতি লেবুর রস একসঙ্গে মিশিয়ে মুখে লাগিয়ে রাখতে পারেন আধঘন্টা। এই ঘরোয়া টোটকা খুবই উপকারী।

৩. চন্দন গুড়ো, কাঁচা হলুদ, কমলা লেবুর রসের প্যাক: কাঁচা হলুদ, চন্দন গুড়ো, কমলা লেবুর রসের মাস্ক বানিয়ে মুখে লাগালে তৈলাক্ত ত্বকের সমস্যা কমে। মিশ্রণটি ভাল কাজ করে টোনার হিসেবেও।

৪. তরমুজের রস এবং টক দই-এর প্যাক: নমনীয় ত্বকের জন্য তরমুজের রস ও টকদই একসঙ্গে মিশিয়ে নিন। এবার এই প্যাকটি আপনার মুখে লাগিয়ে ১০ থেকে ১৫ মিনিট রাখুন। এর পর ঠান্ডা জল দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

৫. পেঁপে মধুর প্যাক: মধু ত্বকে লাবণ্য ধরে রাখে। ত্বক স্বাভাবিক থাকলে সমস্যাও অনেক কম হয়। মুখের ত্বক পরিষ্কার করার জন্য এবং ঝলসানো রোদে ট্যান থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য মধুর সঙ্গে পাকা পেঁপে পেস্ট করে মিশিয়ে ২০ মিনিট মুখে মেখে রাখুন। তার পর পরিস্কার জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

৬. অ্যালোভেরা, মুসুর ডাল এবং টোম্যাটো ফেস প্যাক: অ্যালোভেরা, মুসুর ডাল এবং টোম্যাটো পেস্ট করে আপনার মুখে লাগিয়ে ২০ থেকে ২৫ মিনিট রাখুন। তারপর পরিস্কার জল দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এতে আপনার ত্বক আরও উজ্জ্বল হবে।

৭. আঙুর মধু প্যাক: সব ধরনের ত্বকের জন্য আঙুরের রস উপকারী। কয়েকটি আঙুর হাত দিয়ে আলতো করে পেস্ট করে পুরো মুখে মিনিট খানেক ঘষে নিন। কিছুক্ষণ রেখে জল দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। একেবারেই প্রাকৃতিক ফেসওয়াশের কাজ করবে এটা সব ধরনের ত্বকে। এ ছাড়া আঙুর মধু পেস্ট করে মুখে লাগিয়ে ১৫ মিনিট রেখে দিন। শুকিয়ে গেলে ধুয়ে ফেলুন। রোদের পোড়া ভাব কাটিয়ে এতে আপনার ত্বক আরও উজ্জ্বল হবে।

৮.দই মাস্ক: শশার রস, এক কাপ ওটমিল ও এক টেবিল চামচ দই একসঙ্গে মিশিয়ে ঘন মিশ্রণ তৈরি করুন। এবার এই মিশ্রণটা পুরো মুখে মেখে ৩০ মিনিট রেখে হালকা গরম জল দিয়ে ধুয়ে নিন।

৯. ডিম মাস্ক: একটা ডিমের সাদা অংশের সঙ্গে অর্ধেক লেবুর রস মিশিয়ে এই মিশ্রণটা ২০ মিনিট মুখে রেখে ধুয়ে ফেলুন। একটা সানগ্লাস পরে বেড়িয়ে পড়ুন রোদে।

১০ নিমপাতা, কাঁচা হলুদ পেস্ট প্যাক: নিয়মিত নিমপাতার সঙ্গে কাঁচা হলুদ পেস্ট করে লাগালে ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি ও স্কিন টোন ঠিক হয়। সঙ্গে এই মিশ্রণ খুব ভাল টোনারের কাজ করে। ত্বকের চুলকানিতেও নিমপাতা বেটে লাগালে উপকার পাওয়া যায়। নিমের তেলে প্রচুর ভিটামিন ই এবং ফ্যাটি অ্যাসিড থাকে যা ত্বক এবং চুলের জন্য উপকারী।

শেয়ারবাজারনিউজ/রু

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.